নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বুধবার ১১ জানুয়ারি ২০১৭, ২৮ পৌষ ১৪২৩, ১২ রবিউস সানি ১৪৩৮
রামপালে ৮৩টি নদী-খাল খননে ৭শ ৬ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন
রামপাল (বাগেরহাট) প্রতিনিধি
অবশেষে মংলা-ঘসিয়াখালী চ্যানেল স্থায়ী ও ফলপ্রসূভাবে সচলকরনের লক্ষ্যে চ্যানেল সংলগ্ন ৮৩ নদী খাল খননের জন্য ৭০৬.৪০ কোটি টাকার করার বরাদ্দ জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের একনে নির্বাহী কমিটির অনুমোদন লাভ করেছে। এর ফলে চ্যানেলটি সচল সবচেয়ে বড় বাঁধা সংলগ্ন নদী খাল অবৈধ দখলদারদের কবল হতে মুক্ত করণের দীর্ঘদিনের দাবি বাস্তবায়িত হতে চলেছে। এতে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছে এলাকবাসী ও পরিবেশবাদী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

সদ্য সচলকৃত মংলা-ঘষিয়াখালী চ্যানেল ফের যাতে নব্যতা সংকটে পড়ে অচল না হয় সে জন্য ৮৩টি নদী খাল খনন ও অবৈধ দখলদারদের হাত থেকে মুক্ত করা এলাকাবাসীর দাবী দীর্ঘদিনের। অবশেষে ১০ জানুয়ারী একনেকের সভায় ৮৩টি নদী খাল ও ২টি টিআরএম প্রকল্পের জন্য ৭শ ৬ কোটি ৪০ লক্ষ টাকার আর্থিক বরাদ্দ অনুমোদিত হয়েছে বলে সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন বাগেরহাট পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী খুশি মোহন সরকার। এ প্রকল্পের আওতায় ৮৩টি নদী-খালের ৩০৯.৬৮ কিলোমিটার খনন, ২টি টিআরএম প্রকল্প (টাইডাল বেসিন), ৪টি রেগুলেটর, ২টি স্টিল ব্রিজ ও ১৬.৫০ কিলোমিটার বাঁধ নির্মাণ করা হবে। একনেকে এ অর্থ বরাদ্দের খবরে পরিবেশবাদী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও সচেতন মহল সন্তোষ প্রকাশের পাশাপাশি খনন কার্যক্রম যাতে ফলপ্রসূভাবে সম্পন্ন হয় ও প্রকল্প বরাদ্দের অর্থ সুষ্ঠুভাবে ব্যয় নিশ্চিত করা হয় সে ব্যাপারে যথাযথ ও সতর্ক পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন। এর সাথে সংশ্লিষ্ট এলাকার জনসাধারণের বসতবাড়ি ক্ষেতখামার ও মৎস্য ক্ষেত্রসহ নানাবিধ স্থাপনা ও সম্পদ যাতে ব্যাপকহারে ক্ষতি সাধিত না হয় সে ব্যাপারে খুব সতর্ক ও টেকসই পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য গুরুত্বারোপের দাবিও জানিয়েছেন তারা। এজন্য ব্যক্তিমালিকানাধীন জায়গা জমি রক্ষার্থে পরিকল্পিত ডাইকিং-এর প্রতি খেয়াল রাখতে হবে খননকারী কর্তৃপক্ষকে। তা না হলে এলাকার পরিবেশ প্রতিবেশ বিপর্যস্ত হওয়ার পাশাপাশি এলাকাবাসীর ব্যপক আর্থিক ক্ষতির আশঙ্কা করছে সচেতন মহল।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীফেব্রুয়ারী - ২৬
ফজর৫:০৭
যোহর১২:১২
আসর৪:২২
মাগরিব৬:০৩
এশা৭:১৬
সূর্যোদয় - ৬:২৩সূর্যাস্ত - ০৫:৫৮
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
২২১২.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.