নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১২ জানুয়ারি ২০১৭, ২৯ পৌষ ১৪২৩, ১৩ রবিউস সানি ১৪৩৮
নতুন বছরের সাতকাহন
আলহাজ্ব মো. রবিউল হোসেন
শুভ নববর্ষ। দেশবাসীর অভিপ্রায় ২০১৭ সাল হোক শান্তি ও সমৃদ্ধির বছর। ডিসেম্বর শেষে জানুয়ারি আসে ইংরেজি নববর্ষের শুভ বার্তা নিয়ে। কিছু মন্দ বা দুঃখজনক বার্তাও যে প্রতি বছর থাকে না তাও না।

যেমন ডিসেম্বর শেষে প্রাক প্রাথমিক বিদ্যালয়, নিম্নমাধ্যমিক বিদ্যালয়, মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা। সর্বোপরি (পিএসসি) প্রাথমিক (জেএসসি) জুনিয়র সমাপনী পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণার আনন্দ এবং পহেলা জানুয়ারি শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়ার আনন্দ। উৎসবমুখর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর দিকে তাকলে প্রাণ জুড়িয়ে যায়! শিক্ষার্থী, শিক্ষক, শিক্ষিকা, অভিভাবক, স্থানীয় সংসদ সদস্য, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, শিক্ষা অফিসার কেউ না কেউ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে এ সকল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথি হিসেবে যোগ দিয়ে অনুষ্ঠানের মূল্যায়ন বৃদ্ধির পরিচয় দিয়ে থাকেন। এ সময় স্থানীয় চেয়ারম্যানদেরও কদর বাড়ে। সাংবাদিক, সুখি সমাজেরও আদর বাড়ে...। ভাব দেখে মনে হয় সমৃদ্ধ বাংলাদেশ। সুখি বাংলাদেশ।

যশোর জেলাধীন বাগআঁচড়া সিদ্দিকীয়া সিনিয়র মাদরাসার বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা হলো চেয়ারম্যান ইলিয়াস কবির বকুলকে নিয়ে জিজিটাল পদ্ধতিতে। বলিহারি সুসংবাদ। চালিতাবাড়িয়া আরডি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বাগআঁচড়া বালিকা স্কুল এন্ড কলেজের ফলাফল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন যশোর জেলার শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবদুস সালাম। খুবই প্রাণবন্ত উৎসবমুখর ছিল বার্ষিক ফল প্রকাশনী অনুষ্ঠান ও ১ জানিয়ারি বই উৎসব। এ সুসংবাদ দেশব্যাপীও।

দুঃসংবাদও যে ছিল না এমন নয়। ঘরে ফিরে এমপি লিটন হত্যার খবরে অনেকের মনে নতুন করে নতুন বছরেই আতঙ্ক সৃষ্টি করেছে। গাইবান্ধা-১ সুন্দরগঞ্জ আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় এমপি মনজুরুল ইসলাম লিটন দুর্বৃত্তদের ছোড়া গুলিতে গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। ঘটনা রহস্যময় ও মর্মান্তিকও বটে।

'প্রধান শিক্ষককে আ'লীগ নেতার হাতুড়ি পেটা'-সংবাদ শিরোনাম করেছে 'আমাদের সময়' ২ জানুয়ারি ২০১৭।

মেহেরপুরের গাংনীতে একটি স্কুলের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলামকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে আহত করেছেন উপজেলার বামুন্দী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মামুনুর রশিদ (সাংবাদিক গাংনী প্রতিনিধি)।

বলাবাহুল্য, বছর শুরু হতে না হতেই সরকারের বহু অর্জন, বহু সুসংবাদের মাঝে বহু অনাকাঙ্ক্ষিত অভিযোগ ও মারাত্মক দুর্ঘটনা সরকারের ভাবমূর্তি মস্নান হচ্ছে কিনা কে বলবেন তা?

বাংলাদেশ প্রতিদিন ২ জানুয়ারি এক খবরের শিরোনাম করেছে_ 'গাছের সঙ্গে দড়ি দিয়ে বেঁধে টাকা আদায়।'

ঝিনাইদহ জেলা পরিষদ নির্বাচনে এবার পরাজিত মেম্বার প্রার্থীরা ভোটারদেরকে গাছের সঙ্গে বেঁধে মারপিট করে ভোটের আগে দেয়া টাকা আদায় করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এমনকি তারা ফেল করার পর ক্ষিপ্ত হয়ে মেম্বার ভোটারদের বিভিন্ন প্রকার হুমকি-ধামকির মাধ্যমে দেয়া শাড়ি, লুঙ্গি ও উপহার সামগ্রী ফেরত নিচ্ছেন। মানুষ বলাবলি করছেন, একদলীয় ভোটেও একী কা-!

মানুষ দেখেও শেখে না। শুনেও শোনে না। বুঝেও বুঝেতে চায় না। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে আওয়ামী লীগের জনমত জরিপের একটি 'এসিড টেস্ট' সম্পন্ন হয়েছে নাসিক নির্বাচনের মধ্য দিয়ে, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে মানুষ যে আবার আওয়ামী লীগকেই বেছে নেবে তা প্রমাণ হয়েছে নারায়ণগঞ্জ নির্বাচনে।

নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচন এবং আওয়ামী লীগ প্রার্থী আইভি ও বিএনপি প্রার্থী এ্যাডভোকেট শাখাওয়াত হোসেন ভবিষ্যৎ জাতীয় বা যেকোনো জাতীয় ও আঞ্চলিক নির্বাচন সুষ্ঠু, অবাধ, সর্বোপরি খুন, যখম, মারামারি, কেন্দ্র দখলসহ সকল ধরনের অনিয়ম বর্জন করে নির্বাচনে জয়লাভ এবং পরাজয়ের গ্লানিকে মেনে নেয়ার যে দৃষ্টান্ত দেখিয়েছেন তা ভবিষ্যৎ নির্বাচনগুলোর জন্য জাতীয় রোল মডেল হয়েই থাকবে বলে দেশবাসী মনে করলেও বর্তমান একদলীয় শাসনেও লোভ-লালসা, খুন, যখম, গুম, হত্যা কমছে কৈ?

কথায় আছে ঈযরবষফ যড়ড়ফ ংযড়ংি ঃযব সধহ অং সড়ৎহরহম ংযড়ংি ঃযব ফধু. বছরের শুরুতেই বই উৎসব, পিএসসি এবং জেএসসি পরীক্ষার গ্লোরিয়াস রেজাল্ট জাতিকে সুবার্তা দিলেও দেশের হিংস্র রাজনীতি সরকারের শত অর্জন, সুনামের অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

ঘোলাটে রাজনীতির আলো_ছায়ায় দেশের মানুষ বলাবলি করছেন, 'সরকারের সদিচ্ছার কারণে শিক্ষকদের ভাগ্যবদল হলেও মূলত শিক্ষার্থীরা সেই তিমিরেই থেকে যাচ্ছে।'

কিন্তু কীভাবে?

জাতীয়করণ করা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে লেখাপড়ার মান বাড়ছে না। প্রাথমিক শিক্ষাকে অধিকতর গুরুত্ব দিয়ে সরকার দেশের ২৫ হাজার ৫৫২টি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করে। উদ্দেশ্য ছিল এসব স্কুলের শিশুদের মানসম্মত পাঠদান বাস্তবায়ন করা। অথচ গত ২৯-১২-১৬ তারিখে প্রকাশিত প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষার ফলাফল বিশ্লেষণ করলে তার প্রতিফলন দেখা যায়নি। বরং ফলাফল বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, জাতীয়করণ শিক্ষকদের ভাগ্যবদল হলেও বদলায়নি তেমন পেশার মান বা পেশার প্রতি দায়িত্বহীনতার পুরনো আভ্যাস। অন্য প্রাথমিক বিদ্যালয় অপেক্ষা পিছিয়ে রয়েছে এসব স্কুলের শিক্ষার্থীরা। দেখা গেছে, নতুন জাতীয়করণ করা সরকারি স্কুলে পাসের হার ৯৭.৩৮ শতাংশ। অথচ বেসরকারি কিন্ডার গার্টেন স্কুলের পাসের হার ৯৯.২৭ শতাংশ। জাতীয়করণ করা প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে এ বছর পরীক্ষায় অংশ নেয় ৫ লাখ ৬৯ হাজার ৩৪১ শিক্ষার্থী, এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১২ হাজার ৬৫৬ জন। এর ২৭ গুণের বেশি শিক্ষার্থী মাত্র জিপিএ ৩.৫-এর মধ্যে গ্রেড নম্বর পেয়ে পাস করেছে। তবে একথাও সত্য সকল প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে অনিয়ম বা ফলাফল খারাপ হয়েছে এ কথা ঢালাওয়াভাবে যেমন বলা যাবে না তেমনি যারা ফলাফল খারাপ করেছেন তাদের সম্পর্কে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. মো. আবু হেনা মোস্তফা কামাল ফল প্রকাশের পর কোথায় কি ধরনের ত্রুটি রয়েছে তা বিশ্লেষণ করে দেখা হবে এবং সংশোধনের পদক্ষেপ নিবেন বলে মিডিয়াকে জানিয়েছেন।

এতদসত্ত্বেও ছোটদের বড় সাফল্য শিক্ষিত জাতি গড়ার স্বপ্ন দেখতে হবে বৈকি।

সরকার প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষার মাধ্যমিক স্তরের সকল শ্রেণির শিক্ষক এবং কলেজ পর্যায় সরকারি বেসরকারি শিক্ষকদের বেতনভাতা বাড়িয়ে_ শিক্ষক, অভিভাবকসহ সর্বস্তরের মানুষের পক্ষ থেকে অভিনন্দিত হলেও বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে ২০১৭ সালে এসেও দেখা যাচ্ছে স্থানীয় কমিটি কর্তৃক প্রধান শিক্ষক, অধ্যক্ষ ও শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে দলীয় টার্ম এবং ডোনেশনের প্রতিযোগিতা।

বইয়ের ভার ও সৃজনশীল পদ্ধতিতে দুর্বল শিক্ষক কর্তৃক পাঠদান যেখানে ব্যাহত হচ্ছে বলে জাতীয় চিৎকার শোনা যাচ্ছে এবং বার বার বলা হচ্ছে সেক্ষেত্রে সরকার আজও নিশ্চুপ কেন?

২০১৭ সালকে তাহলে শুভ নববর্ষ বলব? না গণ অভিমানের ভাষায় বলব, হে নববর্ষ

'এড় অং ুড়ঁ ষরশব'.

আলহাজ্ব মো. রবিউল হোসেন : সাংবাদিক ও কলামিস্ট
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীসেপ্টেম্বর - ২২
ফজর৪:৩২
যোহর১১:৫২
আসর৪:১৪
মাগরিব৫:৫৮
এশা৭:১১
সূর্যোদয় - ৫:৪৭সূর্যাস্ত - ০৫:৫৩
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
২৯১৫.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.