নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, শনিবার ১৩ জানুয়ারি ২০১৮, ৩০ পৌষ ১৪২৪, ২৪ রবিউস সানি ১৪৩৯
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে নদীগর্ভে সড়ক বিলীন
৩ উপজেলার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন
সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে একটি সড়ক নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ায় তিন উপজেলার সাথে সরাসরি যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এতে স্থানীয় জনতার ভোগান্তি চরমে পৌঁছেছে। যে কারণে অত্র অঞ্চলের জনসাধারণকে আবারো ফিরে যেতে হয়েছে পুরনো অতীতে। হেমন্তে পাও এবং বর্ষায় নাওযোগে চলাাচল করতে হচ্ছে। একের পর এক দুর্ভোগ যেন অত্র অঞ্চলের মানুষের পিছু ছাড়তে চাইছে না। এমনিতেই তিন উপজেলার সীমানা হওয়ায় সর্বক্ষেত্রে অত্র অঞ্চল অবহেলিত রয়েছে। তার উপর নতুন করে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার ঘটনায় তারা চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন।

জানা গেছে, গত প্রায় ৫ মাস আগে জগন্নাথপুর- বেগমপুর সড়কের জালালপুর ও কাতিয়া গ্রাম এলাকার ভাঙ্গাবাড়ী নামক স্থানে কুশিয়ারা নদীর উত্তাল ঢেউয়ে প্রায় এক হাজার থেকে ১৫শ ফুট এরিয়া নিয়ে অত্র অঞ্চলের যোগাযোগের একমাত্র প্রধান সড়কটি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায়।

বিশাল এরিয়া নিয়ে সড়কটি নদীতে তলিয়ে যাওয়ার পর থেকে অত্র অঞ্চলের জনগণের সরাসরি যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। তখন স্থানীয় জনতা নৌকাযোগে চলাচল করলেও বর্তমানে তারা শুকিয়ে যাওয়া নদীর পাড়ের জমি উপর দিয়ে পায়ে হেঁটে চলাচল করছেন। সরেজমিনে দেখা যায়, নদীগর্ভে তলিয়ে যাওয়ার সড়কের পাশে থাকা জমির উপর দিয়ে মানুষ পায়ে হেঁটে চলাচল করছেন এবং ভাঙনের দুই দিক থেকে গাড়ি চলাচল করছে। শুধু ভাঙন এলাকা পায়ে হেঁটে যেতে হচ্ছে। ভাঙনের এপার থেকে জগন্নাথপুর এবং ওপার থেকে বেগমপুর পর্যন্ত গাড়ি চলাচল করছে। এ সময় স্থানীয় দিঘলবাক গ্রামের শিক্ষানুরাগী সালিসি ব্যক্তি মুজিবুর রহমান, বড়ছেছি গ্রামের বাসিন্দা সাবেক ইউপি সদস্য শাহ খায়রুল ইসলামসহ প্রতিনিয়ত ভোগান্তির শিকার হওয়া স্থানীয়রা জানান, নদীতে সড়কটি তলিয়ে যাওয়ায় তিন উপজেলাবাসীর যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

এর মধ্যে জগন্নাথপুর উপজেলার কালনীচর, কালাইনজুরা, নোয়াগাঁও, আটঘর, দিঘলবাক, খারগাঁও, তাজপুর, শুক্লাম্বরপুর, মিলিক, কালাম্বরপুর, বড়ফেছি, রাধানগর, বড় কাতিয়া, ছোট কাতিয়া, নতুন কসবা, অলইতলি, জালালপুর ও নবীগঞ্জ উপজেলার গালিমপুর, মাধবপুর, পশ্চিম মাধবপুর, বৃহত্তর দিঘলবাক, রাধারপুর, মথুরাপুর, ফাদুল্লা এবং ওসমানীনগর থানার সুরিকোনা, দক্ষিণ কালনীচর, আবদুল্লাহপুর, তাহেরপুর, রহমতপুর, ইসলামপুর, চাতলপাড়, নুরপুর, গাবুরটিকি, অলিমপুর, বেগমপুরসহ এ তিন উপজেলার প্রায় অর্ধশত গ্রামের লক্ষাধিক মানুষ প্রতিনিয়ত ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। তাই মানুষের ভোগান্তি রাঘবে দ্রুত বিকল্প সড়ক নির্মাণ করতে তারা সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান।

এ ব্যাপারে উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিইডি) গোলাম সারোয়ার বলেন, এ সড়কটি পাইবো কর্তৃপক্ষ করার কথা রয়েছে। বারবার চেষ্টা করেও ফোন রিসিভ না করায় পাউবো'র জগন্নাথপুরের দায়িতপ্রাপ্ত এসও এর সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। তবে জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ বলেন, এ সড়ক নির্মাণের জন্য সম্ভবতো বরাদ্দ এসেছে। বরাদ্দ এলে দ্রুত কাজ শুরু হয়ে যাবে। এতে স্থানীয় জনগণের দুঃচিন্তার কোনো কারণ নেই।
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীজুন - ২১
ফজর৩:৪৩
যোহর১২:০০
আসর৪:৪০
মাগরিব৬:৫১
এশা৮:১৬
সূর্যোদয় - ৫:১১সূর্যাস্ত - ০৬:৪৬
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৪৪৫২.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.