নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, শনিবার ১৩ জানুয়ারি ২০১৮, ৩০ পৌষ ১৪২৪, ২৪ রবিউস সানি ১৪৩৯
কিশোরগঞ্জে গাড়ি চালাচ্ছে শিশুরা। বাড়ছে দুর্ঘটনা
কটিয়াদী (কিশোরগঞ্জ) থেকে সুবল চন্দ্র দাস
নাম সৈকত, বয়স ১৩। বাড়ি কিশোরগঞ্জ শহরের নিউটাউন এলাকায়। শিশু সৈকত প্রতিদিন ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা নিয়ে জেলা শহরের সড়কে বের হয়। এ শিশু বয়সে ভাড়ায় অটোরিকশা চালিয়ে সামান্য আয়ে সংসার চালাচ্ছে সে। প্রতিদিন অটোরিকশা মালিককে ৫০০ টাকা দিয়ে বাকি ১৫০ থেকে সর্বোচ্চ ৩০০ টাকা তার আয় হয়। এ টাকা দিয়ে সে তার মা-বোনকে নিয়ে দু্থবেলা খেয়ে বেঁচে আছে। গত বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় সৈকত তার চালানো অটোরিকশাটি নিয়ন্ত্রণে রাখতে না পেরে শহরের শোলাকিয়া বুলবুল ভিলা এলাকার একটি বাড়ির বেড়া ভেঙে দুর্ঘটনায় পড়ে। এতে একজন অটো যাত্রী আহত হন। লোকজন এসে তাকে আটক করে। পরে শিশু বলে সৈকতকে ছেড়ে দেয়। শুধু সৈকত নয়, কিশোরগঞ্জ শহর ও আশপাশ এলাকার এবং ১০টি উপজেলার এমন দেড় সহগ্রাধিক শিশু-কিশোর অটোরিকশা চালানোর পেশায় নিয়োজিত রয়েছে। এই শিশু-কিশোর চালকদের কারণে প্রতিদিন অনেক দুর্ঘটনা ঘটছে। এসব দুঘর্টনায় প্রতিদিন গড়ে ২০ জনেরও বেশি মানুষ আহত হচ্ছেন বলে স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়।

জেলা পুলিশ ও মানবাধিকার সংগঠনগুলো জানায়, জেলা শহর ও আশপাশের এলাকার বিভিন্ন সড়কে অবাধে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চলছে। শহর ও আশপাশ এলাকায় ১০-১২ হাজার অটোরিকশা চলছে। এসব অটোতে শিশু ও কিশোরদের একটি বড় অংশ চালক হিসেবে কাজ করছে। অদক্ষ এসব চালক অটোরিকশা নিয়ন্ত্রণ করতে না পেরে প্রতিদিনই দুর্ঘটনা ঘটাচ্ছে। পরিবেশ রক্ষা মঞ্চের (পরম) সভাপতি অধ্যক্ষ শরীফ আহমেদ সাদী জানান, এসব অটো চালকের এক-চতুর্থাংশ শিশু-কিশোর। তারা ট্রাফিক আইন, নিয়ম-কানুন কোনো কিছু না জেনেই যেভাবে ইচ্ছা, সেভাবেই অটো চালাচ্ছে। এসব অদক্ষ শিশু-কিশোর চালকের কারণে প্রতিদিন ছোট খাটো দুর্ঘটনা বাড়ছে। অটোরিকশাচালক রশিদাবাদ গ্রামের আহাত মিয়া (১৪), তারাপাশা গ্রামের নজরুল (১৩), বিন্নাটি গ্রামের সুরুজ মিয়া (১৫), লতিবাবাদ গ্রামের আল-আমিন (২০), সজিব (১৬), কটিয়াদী কাওছার (১৭) জানায়, তাদের সংসারে কর্মক্ষম কোনো পুরুষ নেই। তাই বাধ্য হয়ে পড়াশোনা না করে তাদের অটোরিকশা চালাতে হচ্ছে। তাদের আয়-রোজগারেই পরিবারের সদস্যদের জীবন-জীবিকা চলছে। মানবাধিকার আইনজীবী মায়া ভৌমিক জানান, সরকারি কিংবা বেসরকারিভাবে ওইসব শিশু-কিশোর অটোচালকের পরিবারের আয়ের ব্যবস্থা না করা গেলে বাধ্য হয়েই তারা এ পেশাকে ধরে রাখবে। কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খোন্দকার শওকত জাহান বলেন, আইনের মাধ্যমে এসব শিশু-কিশোরের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হলে সমাজে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। যদিও আইনে শিশু শ্রম নিষিদ্ধ রয়েছে।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীঅক্টোবর - ২০
ফজর৪:৪২
যোহর১১:৪৪
আসর৩:৫১
মাগরিব৫:৩২
এশা৬:৪৪
সূর্যোদয় - ৫:৫৮সূর্যাস্ত - ০৫:২৭
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৬১০০.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.