নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, শনিবার ১৩ জানুয়ারি ২০১৮, ৩০ পৌষ ১৪২৪, ২৪ রবিউস সানি ১৪৩৯
অভিবাসনপ্রত্যাশীদের নিয়ে ট্রাম্পের মুখে নোংরা কথা
জনতা ডেস্ক
যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসনপ্রত্যাশী কয়েকটি দেশের নাগরিকদের নিয়ে বিদ্বেষপূর্ণ মন্তব্য করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ওভাল অফিসে একদল সাংসদের সঙ্গে অভিবাসন নীতিমালা নিয়ে আলোচনায় গত বৃহস্পতিবার তিনি বলেন,কেন আমরা নোংরা দেশগুলো থেকে এসব লোককে এখানে নিয়ে আসছি? হাইতি, এল সালভাদর ও আফ্রিকার দেশগুলো নিয়ে ট্রাম্পের এই অশ্লীল মন্তব্য ছিল বলে ওয়াশিংটন পোস্টের বরাত দিয়ে জানায় বিবিসি। মার্কিন প্রেসিডেন্টের এমন মন্তব্য নিয়ে ডেমোক্রেট-রিপাবলিকান দুই শিবিরেই তীব্র সমালোচনার মধ্যে হোয়াইট হাউজ এক বিবৃতিতে ট্রাম্পের পক্ষে সাফাই গেয়েছে।

ওয়াশিংটনের কিছু রাজনীতিক বিদেশি দেশগুলোর হয়ে লড়াইয়ের পথ বেছে নিয়েছে; অন্যদিকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ইচ্ছে সবসময়ই আমেরিকার জনগণের পক্ষে লড়াই করার, বিবৃতিতে বলেন হোয়াইট হাউজের মুখপাত্র রাজ শাহ। মার্কিন বর্তমান প্রশাসন অন্য অনেক দেশের মতো মেধা-ভিত্তিক অভিবাসনে আগ্রহী বলেও মন্তব্য মুখপাত্রের।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প আমাদের দেশকে শক্তিশালী করতে স্থায়ী সমাধানের পথে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন, যেন তাদেরই স্বাগত জানানো যায়, যারা আমাদের সমাজে অবদান রাখতে পারবেন, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখতে ও আমাদের মহান জাতির সঙ্গে একীভূত হয়ে যেতে পারবেন। অস্থায়ী, দুর্বল ও বিপজ্জনক পন্থায় নেওয়া অভিবাসী যারা পরিশ্রমী মার্কিনিদের ও বৈধভাবে অভিবাসী হওয়া নাগরিকদের জীবনকে হুমকির মুখে ফেলে ট্রাম্প তাদের প্রত্যাখ্যান করতে চান বলেও বিবৃতিতে বলা হয়েছে।

রিপাবলিকান ও ডেমোক্রেট পার্টির একদল সাংসদ দ্বিপাক্ষিক একটি অভিবাসন নীতিমালা নিয়ে কথা বলতে গেলে ট্রাম্প অভিবাসনপ্রত্যাশীদের নিয়ে বিদ্বেষপূর্ণ এ মন্তব্য করেন। বৈঠকে ডেমোক্রেট সিনেটর রিচার্ড ডারবিন প্রাকৃতিক দুর্যোগ, যুদ্ধ ও মহামারি আক্রান্ত দেশগুলোর নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে অস্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব প্রেসিডেন্টকে দেন বলে খবর মার্কিন গণমাধ্যমগুলোর। প্রত্যুত্তরে ট্রাম্প সাংসদদের বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের উচিত ওইসব দেশ থেকে অভিবাসী না নিয়ে নরওয়ের মতো দেশগুলো থেকে নেওয়া। সাউথ ক্যারোলাইনার রিপাবলিকান সিনেটর লিন্ডসে গ্রাহামও ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, যদিও প্রেসিডেন্টের মন্তব্য নিয়ে পরে তাকে কিছু বলতে শোনা যায়নি।

বিবিসি বলছে, আফ্রিকান অভিবাসনপ্রত্যাশীদের নিয়ে ট্রাম্পের অশ্লীল মন্তব্য এবারই প্রথম নয়। গত বছরের জুনে অভিবাসন নিয়ে এক বৈঠকে ট্রাম্প হাইতির নাগরিকদের 'সবারই এইডস আছে' মন্তব্য করেছিলেন বলে তিন সপ্তাহ আগে নিউ ইয়র্ক টাইমস এক প্রতিবেদনে জানিয়েছিল।

ওভাল অফিসে বসে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের নিয়ে করা ট্রাম্পের মন্তব্য যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে তীব্র সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। মেরিল্যান্ডের ডেমোক্রেট সাংসদ এলিজাহ কামিংস টুইটে মার্কিন প্রেসিডেন্টের মন্তব্য প্রত্যাখ্যান করে বলেন, ক্ষমার অযোগ্য এ মন্তব্যের নিন্দা জানাচ্ছি, যা প্রেসিডেন্টের অফিসের মর্যাদা ক্ষুণ্ন করেছে।
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীনভেম্বর - ১৬
ফজর৪:৫৬
যোহর১১:৪৪
আসর৩:৩৭
মাগরিব৫:১৬
এশা৬:৩১
সূর্যোদয় - ৬:১৪সূর্যাস্ত - ০৫:১১
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৬৩৩২.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.