নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, মঙ্গলবার ১৪ জানুয়ারি ২০২০, ৩০ পৌষ ১৪২৬, ১৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১
জমে উঠেছে ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন
প্রতিশ্রুতির ফুলঝুরি প্রার্থীদের
মেয়র নির্বাচিত হলে নগরসেবক হয়ে থাকবো : আতিক
স্টাফ রিপোর্টার
নির্বাচনী ময়দানে শীতের তীব্রতা উপেক্ষা করে পথে পথে ছুটে বেড়াচ্ছেন সরকারি দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থীরা। তাদের অবিরাম প্রচারণায় জমে উঠেছে দুই সিটি করপোরেশনের নির্বাচনী লড়াই। শুধু তাই নয়, ভোটের উত্তাপের কাছে যেন হার মেনেছে প্রচণ্ড ঠাণ্ডা। অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগ, হামলা-মারামারি আর প্রার্থীদের প্রতিশ্রুতির ফুলঝুরিতে জমে উঠেছে ঢাকা উত্তর-দক্ষিণ সিটি নির্বাচনের প্রচারণা। এদিকে অভিযোগ পেলেই তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছে ইসি। মাঠে রয়েছে একাধিক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ইলেক্ট্ররিয়াল টিম। তারা কঠোরভাবে প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণা ও আচরণবিধি মনিটরিং করে প্রতিদিন ইসিতে রিপোর্ট দিচ্ছেন। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নির্বাচনে অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগ নির্বাচন সংস্কৃতিরই অংশ। তা মাত্রা ছাড়িয়ে যায় কিনা এটি দেখার বিষয়। তবে নির্বাচনকে ঘিরে অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগ যাই করা হোক, তাঁদের ঘিরে এখন সরগরম পুরো নির্বাচনী এলাকা।

মেয়র নির্বাচিত হলে নগরসেবক হয়ে থাকবেন বলে আশা ব্যক্ত করেছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলাম। এর পাশাপাশি ঢাকাকে মাদকমুক্ত করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন তিনি। গতকাল সোমবার দুপুরে রাজধানীর খিলগাঁও তালতলা সিটি করপোরেশন মার্কেট থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরুর আগে তিনি এসব কথা বলেন। আতিক বলেন, বিগত সময়ে আমি একটি উপনির্বাচনের মাধ্যমে নয় মাসের জন্য দায়িত্ব পেয়েছিলাম। এবার একটি পূর্ণাঙ্গ নির্বাচন হচ্ছে। দায়িত্বকালে যে সময় পেয়েছি, সেই সময়ের মধ্যে অবশ্যই ঢাকাকে যেভাবে সাজানোর কথা সেভাবে সাজাতে পারিনি। কিন্তু কীভাবে ঢাকা সাজবে, কীভাবে জলজট-যানজট দূর হবে, কীভাবে আমরা মানবিক ঢাকা গড়তে পারবো, কীভাবে মশা নিয়ন্ত্রণে আসবে, নারী ও শিশুবান্ধব ঢাকা কীভাবে করা যায় সেই প্ল্যান করে ফেলেছি। আমরা মাদকমুক্ত একটি ঢাকা গড়তে চাই। যদি নির্বাচিত হই, অবশ্যই ঢাকাকে জলজট, যানজট, মাদকমুক্ত করবো। আতিক আরও বলেন, এজন্য আমাদের দরকার ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে ঘর থেকে বের করে মাঠে নিয়ে আসার। যেখানে যতো মাঠ আছে, তা দখলমুক্ত করবো। মাঠ কারও নিজস্ব না, মাঠ আমাদের সবার জন্য হবে। আপনারা বলেন নগরপিতা! আমি নগরপিতা না, নগরসেবক হয়ে থাকতে চাই। প্রতিপক্ষের ক্যাম্পিংয়ে বাধা দেয়ার অভিযোগ প্রসঙ্গে আতিক বলেন, 'একটু আগে আমি আসার সময় দেখলাম বিএনপির একটি মিছিল গান বাজাতে বাজাতে যাচ্ছে। আমি স্বাগত জানিয়েছি, আমি কিন্তু চাইলে তাদের দাঁড় করাতে পারতাম। কিন্তু আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি, আমরা বিশ্বাস করি যার যার ভোট সে দেবে, যাকে খুশি তাকে দেবে। তারা গান বাজিয়ে যাওয়ার সময় আমি কিন্তু ভিডিও করে নিয়ে এসেছি। সুতরাং তারা হয়তো নিজেরা বিশৃঙ্খলা করে একটি দোষ আমাদের ওপর চাপিয়ে দিচ্ছে। আমরা কোনোদিন কাউকে বাধা দেইনি, তারা মিথ্যা কথা বলছে।
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীমে - ২৭
ফজর৩:৪৬
যোহর১১:৫৬
আসর৪:৩৫
মাগরিব৬:৪২
এশা৮:০৫
সূর্যোদয় - ৫:১২সূর্যাস্ত - ০৬:৩৭
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫০০১.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.