নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, মঙ্গলবার ১৪ জানুয়ারি ২০২০, ৩০ পৌষ ১৪২৬, ১৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১
দুই সিটি ভোটের তারিখ পরিবর্তনের দাবি ঢাবি শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের
বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার
সরস্বতী পূজার কারণে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তনের দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে 'সচেতন শিক্ষক-শিক্ষার্থীবৃন্দ' ব্যানারে গতকাল সোমবার সকাল ১১টা থেকে বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত এই মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের কয়েকজন শিক্ষকসহ দুই শতাধিক শিক্ষার্থী অংশ নেন। নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী আগামি ৩০ জানুয়ারি ঢাকার দুই সিটিতে ভোট। ওইদিন স্বরস্বতী পূজা থাকায় ভোট পোনোর দাবি জানিয়ে আসছেন সনাতন ধর্ম্বাবলম্বীরা। ভোটের তারিখ পেছানোর নির্দেশনা চেয়ে হাই কোর্টে একটি রিটও হয়েছে। সোমবারের মানববন্ধনে জগন্নাথ হলের সংস্কৃত বিভাগের অধ্যাপক অসীম কুমার সরকার বলেন, আগামী ৩০ জানুয়ারি স্বরস্বতী দেবীর পূজা। ইতোমধ্যে পূজাটি সকল ধর্ম-বর্ণের মানুষের কাছে উৎসবে পরিণত হয়েছে। এই উৎসবে সকলে অংশগ্রহণ করেন, আনন্দ করেন। কিন্তু এই দিনে দুই সিটি নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে, যা আমাদের জন্য অত্যন্ত বেদনাদায়ক। পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক রতন চন্দ্র ঘোষ বলেন, একই সাথে দুইটা জিনিস চলতে পারে না। তাই আমাদের আহ্বান, স্বরস্বতী পূজার দিন বাদ দিয়ে অন্য যেকোনো দিন নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করা হোক। সংস্কৃত বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নমিতা ম-ল বলেন, মুসলমানরা যেমন ঈদের দিন পরিবর্তন করতে পারেন না, আমরাও পূজার তারিখ পরিবর্তন করতে পারব না। এটা বিশেষ তিথিতেই হয়। এটা আমাদের অধিকার। তাই নির্বাচনের তারিখই পরিবর্তন করতে হবে। আমরা ভোট দিতে চাই, আমরা পূজাও করতে চাই। জগন্নাথ হলের সাবেক প্রাধ্যক্ষ নিম চন্দ্র ভৌমিক নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশ যে অসামপ্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাস করে স্বাধীন হয়েছে পুজার দিনে নির্বাচনের এই তারিখ পরিবর্তন করে সেই চেতনাকে প্রতিষ্ঠা করুন। যদি এই তারিখ পরিবর্তন না করেন তা হলে আমরা মনে করব যে আপনারা আমাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের যে সাংবিধানিক অধিকার আছে সেটা চাচ্ছেন না। শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের পক্ষে মানববন্ধন থেকে দুই দাবি তুলে ধরেন বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থী পরিমল চন্দ্র রায়। দাবিগুলো হল- অনতিবিলম্বে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তন এবং আগামীতে এর যেন পুনরাবৃত্তি না ঘটে সেজন্য প্রাতিষ্ঠানিকভাবে (আইন তৈরি করে অথবা নির্বাচনি বিধিতে অন্তর্ভুক্ত করে) ব্যবস্থা গ্রহণ। মানববন্ধন শেষে একটি প্রতিনিধি দল নির্বাচন কমিশনকে স্মরকলিপি দিতে যায়।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীজানুয়ারী - ২৪
ফজর৫:২৩
যোহর১২:১১
আসর৪:০৪
মাগরিব৫:৪৩
এশা৬:৫৮
সূর্যোদয় - ৬:৪১সূর্যাস্ত - ০৫:৩৮
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৩৫৩৯.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.