নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৪ জানুয়ারি ২০২১, ৩০ পৌষ ১৪২৭, ২৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪২
নওগাঁ শহরে প্ল্যান বিহীন ভবনে বাড়ছে দুর্ঘটনা
নওগাঁ থেকে মো. আবু বকর সিদ্দিক
নওগাঁ শহরে বেড়েই চলেছে বহুতল ভবন নির্মাণ। তবে ভবন নির্মাণে কোন ধরনের নিয়ম মানা হচ্ছে না। ভবন নির্মাণে পৌরসভা থেকে নক্সার অনুমোদন দেয়া হলেও তা মানছেন না অনেকেই। ভবনে কোন ধরনের দুর্ঘটনা ঘটলে তা নির্মূলে বিপাকে পড়তে হবে ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের। শহরের জনকল্যাণ মহল্লার হুমায়ন কবির বটতলা সংলগ্ন 'টিচার্স টাওয়ার' নামে একটি আটতলা বহুতল ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। বির্তকিত ওই ভবনে যে কোন মূল্যে বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে প্রক্রিয়া চলছে বলে ভবনের তৃতীয় তলার ভাড়াটিয়া নওগাঁ নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই লিমিটেড কোম্পানি (নেসকো) এর প্রকৌশলী তানজিমুল হকের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে। ঘটনায় ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

এছাড়া বিভিন্ন দফতরেও অভিযোগ করেছেন তারা। জানা গেছে, ২৩ মিটার (৭ম তলা) পর্যন্ত উঁচু বহুতল ভবন নির্মাণ করতে হলে ভবনের সামনে ২০ ফুট প্রসস্ত রাস্তা, রিজার্ভ পানির ট্যাংক, ছাদের উপর ২৫ হাজার লিটার পানি ধারণক্ষমতার ট্যাংক, অগি্ন নির্বাপক যন্ত্র ও ফায়ার সার্ভিস মহাপরিচালকের ছাড়পত্র থাকতে হবে। গত বছরের ২৫ জুলাইয়ে 'টিচার্স টাওয়ার' ভবনটি উদ্বোধন করা হয়েছে। তবে এ বহুতল ভবন নির্মাণের অন্যান্য শর্তও মানা হয়নি। যদিও এখনো ফায়ার সার্ভিস মহাপরিচালকের ছাড়পত্র না থাকায় ভবনে বৈদ্যুতিক সংযোগ দেয়া হয়নি। ২৪ জন শিক্ষক মিলে ২৮ ইউনিট বিশিষ্ট আটতলা ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। ভবনটির সামনে চলাচলের কোন রাস্তা নাই। তবে শহরের পানি নিষ্কাশনে প্রায় আটফুট প্রসস্ত ঢাকনাযুক্ত একটি ড্রেন রয়েছে। ওই ভবনে কোন ধরনের দুর্ঘটনা ঘটলে সেখানে ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি যেতে পারবে না।

এছাড়া ভবন নির্মাণে পৌরসভার অন্যান্য নিয়মও মানা হয়নি। বির্তকিত ওই ভবনের তৃতীয় তলায় গত দুই মাস থেকে ভাড়াটিয়া হিসেবে উঠেছেন নেসকোর প্রকৌশলী তানজিমুল হক। যা তার কর্মস্থল থেকে প্রায় তিন কিলোমিটার দূরে। স্থানীয় হারুনুর রশীদ ও জালাল হোসেন বলেন, ওই বহতুল ভবন নির্মাণে কোন নিয়ম মানা হয়নি। ভবন মালিকরা নেসকোর প্রকৌশলী তানজিমুল হককে দিয়ে যে কোন মূল্যে বিদ্যুৎ সংযোগ পেতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে পারলে প্রকৌশলীকে তারা সুবিধা দিতে চেয়েছেন। শহরের এতো বাসা থাকতে বির্তকিত ওই ভবনে প্রকৌশলীকে কেন উঠতে হবে। ভবনের মালিকপক্ষের একজন শিক্ষক বেলাল হোসেন বলেন, যথাযথ নিয়ম মেনেই ভবন তৈরি করা হয়েছে।

নওগাঁ ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক একেএম মুরশেদ বলেন, ভবনের সামনে একটি ড্রেন আছে। ড্রেনের উপর ঢাকনা থাকায় ফায়ার সার্ভিসের ভারী গাড়ি চলাচলে ঝুঁকিপূর্ণ মনে হয়েছে। ওই ভবনটিতে কোন ধরনের দুর্ঘটনা ঘটলে ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি সেখানে যেতে পারবে না। এছাড়া অগি্ন নির্বাপনের ব্যবস্থাও দেখা হবে। নওগাঁ নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই লিমিটেড কোম্পানি এর প্রকৌশলী তানজিমুল হক বলেন, উপযুক্ত কাগজপত্র থাকলে ওই ভবনে বিদ্যুৎ সরবরাহ দিতে আপত্তি নাই। বির্তকিত একটি ভবনে কেন ভাড়া থাকছেন এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, কোথাও না কোথাও ভাড়া থাকতেই হবে। নতুন ভবন এজন্য সেখানে পরিবার নিয়ে উঠেছি। তবে নিজের স্বার্থ উদ্ধারে ভবনে উঠেছেন এমন বিষয়টি তিনি অস্বীকার করেছেন।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীজানুয়ারী - ১৫
ফজর৫:২৩
যোহর১২:০৮
আসর৩:৫৭
মাগরিব৫:৩৬
এশা৬:৫৩
সূর্যোদয় - ৬:৪২সূর্যাস্ত - ০৫:৩১
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫০৬৬.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.