নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৪ জানুয়ারি ২০২১, ৩০ পৌষ ১৪২৭, ২৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪২
লক্ষ্মীপুর মহাদেবপুরে রাতের অন্ধকারে বৈঠকখানা ঘর উধাও
লক্ষ্মীপুর থেকে ভি বি রায় চৌধুরী
লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দালাল বাজার ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের মহাদেবপুর গ্রাম এলাকায় একটি বৈঠকখানা ঘর একমাস পূর্বে রাতের অন্ধকারে কে বা কাহারা উদ্দেশ্য প্রনোদিত হয়ে সরিয়ে নিয়ে গেছে। এ ব্যাপারে ১১ জানুয়ারী সোমবার মো. শাহিদুর রহমান সাঈদ বাদী হয়ে লক্ষ্মীপুর সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এ ব্যাপারেও স্হানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য হীরন মিঞার নিকট ঘটনার শুরুতে লিখিত অভিযোগ করেন বলে ভুক্তভোগী জানান। অভিযোগ পেয়ে পরিষদের গ্রাম পুলিশ শাকায়েত উল্লাহ মিঞাকে খোঁজ খবর নেয়ার জন্য ইউপি সদস্য বলেন। প্রায় একমাস অতিক্রান্ত হওয়ার পর ১১ জানুয়ারি এলাকার মো. গাজী জমদ্দার বাড়ির আবদুর রবের বসত ঘর সংলগ্ন পুকুরে সরিয়ে নেয়া ঘরের খুঁটি, টিন ও টিনের বেড়ার সন্ধান পেয়ে গ্রাম পুলিশ শাকায়েত উল্লাহ মিঞা ইউনিয়ন মেম্বার ও এলাকাবাসিকে তাৎক্ষণিক জানান। এই বিষয়ে একই বাড়ির আবদুর রবের স্ত্রী মরিয়ম বেগম বলেন, দীর্ঘদিন যাবৎ শাহিদুর রহমানদের সাথে জায়গা জমি নিয়ে আমাদের বিরোধ চলে আসছে এবং বর্তমানে এই সম্পত্তির উপর আদালতের নিষেধাজ্ঞা বলবৎ আছে বলে জানান কিন্তু তিনি এ বিষয়ে কোনো কাগজ পত্র দেখাতে পারেননি। উধাও হওয়া ঘরের অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এখানে কখনো কোন ঘর ছিলো না। উক্ত বিষয়ে এলাকার সাবেক মেম্বার মফিজ উল্লাহ মিঞা বলেন, এখানে একটি ঘর ছিলো যেটা কিছুদিন পূর্বে রাতের অন্ধকারে কে বা কাহারা সরিয়ে নিয়ে যায়। সেই ঘরটি ১১ জানুয়ারি আবদুর রবের বাড়ির পুকুরে গ্রাম পুলিশ শাকায়েত উল্লাহ মিঞার অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে। এই ব্যাপারে এলাকার গন্যমান ব্যাক্তিদের মধ্যে মৃত আমিন উল্লাহর পুত্র ফরিদ মিঞা বলেন, এখানে একটা ঘর ছিলো এটা সত্য তেমনি রাতে অন্ধকারে উধাও হয়ে যাওয়াও সত্য। এই বিষয়ে স্হানীয় আ'লীগ নেতা বেল্লাল হোসেন মিঞা গণমাধ্যমকে বলেন, এখানে ঘর থাকাও যেমন সত্য তেমনি ঘর উধাও হওয়াও সত্য। ১১ জানুয়ারি বাড়ির ভিতরের পুকুরে পুরো ঘরের খুঁটি সহ টিনগুলো পাওয়া গেছে বলে গ্রাম পুলিশ শাকায়েত উল্লাহ মিঞা গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। বৈঠকখানা ঘরটি উধাও হওয়ার ব্যাপারে দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মো. ফিরোজ আলম হিরন বলেন, বিগত মাসখানেক পূর্বে আমাকে ঘরের মালিক শাহিদুর রহমান সাঈদ লিখিত অভিযোগের মাধ্যমে বিষয়টি জানান।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীজানুয়ারী - ১৬
ফজর৫:২৩
যোহর১২:০৯
আসর৩:৫৮
মাগরিব৫:৩৭
এশা৬:৫৩
সূর্যোদয় - ৬:৪২সূর্যাস্ত - ০৫:৩২
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫০৯০.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.