নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, সোমবার ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২৯ মাঘ ১৪২৫, ৫ জমাদিউস সানি ১৪৪০
ভারতকে হারিয়ে টি-টোয়েন্টি সিরিজ নিউজিল্যান্ডের
স্পোর্টস রিপোর্টার
প্রাণপণ চেষ্টা করেও পারলেন না দিনেশ কার্তিক ও ক্রুনাল পান্ডিয়া। শেষ ওভারে দারুণ বোলিং করে রোমাঞ্চকর ম্যাচে ব্যবধান গড়ে দিলেন টিম সাউদি। ভারতকে হারিয়ে টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতে নিল নিউ জিল্যান্ড।

তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টিতে ৪ রানে জিতেছে কেন উইলিয়ামসনের দল। ২১২ রান তাড়ায় ২০৮ রানে থামে ভারত। ২-১ ব্যবধানে সিরিজ ঘরে তুলেছে নিউজিল্যান্ড। এই প্রথম তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে হারল ভারত। ১৮তম ওভারে ১৮ রান দিয়েছিলেন সাউদি। শেষ ওভারে প্রয়োজন ছিল ১৬ রান।

তবুও অভিজ্ঞ এই পেসারের ওপরই ভরসা রাখেন উইলিয়ামসন। আস্থার প্রতিদান দেন সাউদি, প্রথম পাঁচ বলে মাত্র ৪ রান দিয়ে ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেন তিনি।

শেষ বলে ছক্কা হাঁকান কার্তিক, তাতে কেবল পরাজয়ের ব্যবধান কমে। ২২ বলে ৬৩ রানের বিধ্বংসী এক জুটিতেও ভারতকে জেতাতে পারেননি ক্রুনাল ও কার্তিক। হ্যামিল্টনের সেডন পার্কে রোববার টস হেরে ব্যাট করতে নেমে টিম সাইফার্ট ও কলিন মানরোর ব্যাটে উড়ন্ত সূচনা পায় নিউ জিল্যান্ড। দলে ফেরা কুলদীপ যাদব ভাঙেন ৭.৪ ওভার স্থায়ী উদ্বোধনী জুটি।

রিস্ট স্পিনারের বলে স্টাম্পড হয়ে শেষ হয় কিপার সাইফার্টের ২৫ বলে তিনটি করে ছক্কা-চারে গড়া ৪৩ রানের বিস্ফোরক ইনিংস। রিপ্লেতে দেখা গেছে মহেন্দ্র সিং ধোনি বেলস ফেলে দেওয়ার সময় ব্যাটসম্যানের বুটের কিছু অংশ ছিল লাইনের ভেতরে। তবুও আউট দেন আম্পায়ার।

দ্বিতীয় উইকেটে কেন উইলিয়ামসনের সঙ্গে ৫৫ রানের জুটি গড়েন মানরো। একবার জীবন পাওয়া বিস্ফোরক এই ওপেনারকেও ফেরান কুলদীপ। ৪০ বলে পাঁচটি করে ছক্কা-চারে ৭২ রান করেন মানরো। ডানা মেলার আগেই উইলিয়ামসনকে ফেরান খলিল আহমেদ।

ক্রিজে গিয়েই বোলারদের ওপর চড়াও হন কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম। ১৬ বলে খেলেন ৩০ রানের ঝড়ো ইনিংস। শেষের দিকে বোলারদের ওপর চড়াও হয়ে দলের রান দুইশ ছাড়ান ড্যারিল মিচেল ও রস টেইলর। কুলদীপ ২৬ রানে নেন ২ উইকেট। তিনি ছাড়া দলের আর সবার ইকোনমি রেট ছিল নয়ের উপরে। বড় রান তাড়ায় শুরুতেই শিখর ধাওয়ানকে হারায় ভারত। মিচেল স্যান্টনারকে সস্নগ সুইপ করে উড়ানোর চেষ্টায় ডিপ মিডউইকেটে ধরা পড়েন বাঁহাতি ওপেনার। দেখেশুনে খেলছিলেন রোহিত শর্মা, অন্য প্রান্তে ঝড় তুলেছিলেন বিজয় শঙ্কর। তাদের ৭৫ রানের জুটিতে দৃঢ় ভিতের ওপর দাঁড়ায় সফরকারীরা। ২৮ বলে ৪৩ রান করা শঙ্করকে ফিরিয়ে জুটি ভাঙেন স্যান্টনার। ড্যারিল মিচেলের বলে কিপারের গ্লাভসে ধরা পড়েন রোহিত। এসেই বোলারদের ওপর চড়াও হওয়া রিশাব পান্ত ও হার্দিক পান্ডিয়া টিকেননি বেশিক্ষণ। দ্রুত ফিরে যান ধোনি। ৪ রানের মধ্যে এই তিন ব্যাটসম্যানের বিদায়ে চাপে পড়ে যায় ভারত।

কার্তিক ও ক্রুনালের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে জেগে উঠে ভারতের আশা। শেষ ৪ ওভারে ৫৯ রানের সমীকরণ প্রায় মিলিয়ে ফেলেছিলেন তারা। কিন্তু সাউদির অসাধারণ শেষ ওভারে আর পেরে উঠেননি তারা।

কার্তিক ৪ ছক্কায় অপরাজিত থাকেন ৩৩ রানে। দুটি করে ছক্কা-চারে ২৬ রানে অপরাজিত থাকেন ক্রুনাল।

বিস্ফোরক ইনিংসে সুর বেঁধে দেওয়া মানরো জেতেন ম্যাচ সেরার পুরস্কার। সিরিজ সেরার পুরস্কার জেতেন সাইফার্ট।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীজুলাই - ১৭
ফজর৩:৫৫
যোহর১২:০৫
আসর৪:৪৪
মাগরিব৬:৫১
এশা৮:১৩
সূর্যোদয় - ৫:২১সূর্যাস্ত - ০৬:৪৬
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৫৬৩.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.