নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, সোমবার ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২৯ মাঘ ১৪২৫, ৫ জমাদিউস সানি ১৪৪০
ঈশ্বরদীতে মুক্তিযোদ্ধা হত্যাকারীদের গ্রেফতার দাবিতে ৪০ দিনের কর্মসূচি ঘোষণা
ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি
পাবনা ঈশ্বরদীর পাকশী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা মুস্তাফিজুর রহমান সেলিম হত্যার পাঁচ দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ এখনও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। এর প্রতিবাদে এবং দ্রুত আসামিদের গ্রেফতার করার দাবিতে বিক্ষোভ, রাস্তা অবরোধ, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কালো পতাকা উত্তোলন ও মানববন্ধন করা হয়েছে। ধারাবাহিকভাবে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সভা, মানববন্ধন, কাল পতাকা উত্তোলন,

কালো ব্যাচ ধারণসহ ৪০ দিনের নানা কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে।

গতকাল (রবিবার) সকালে মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড পাকশী শাখা, স্থানীয় আওয়ামী লীগ বিবিসি বাজার কমিটির পক্ষ থেকে উপজেলার রুপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প মোড়ের গোল চত্বরে ঘণ্টাব্যাপী চলা মানববন্ধন থেকে এসব কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। এই সময় বিক্ষোভকারীরা রাস্তা অবরোধ করে রাখে। এতে কুষ্টিয়া-দাশুড়িয়া, পাবনা রুপপুর মহা সড়কের উভয় দিকে সব ধরনের কয়েকশত যানবাহন আটকা পড়ে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে বিক্ষুদ্ধ জনতাকে শান্ত করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

মুক্তিযোদ্ধা সংসদ পাকশী শাখার কমান্ডার জাহাঙ্গীর আলমের সভাপতিত্বে সমাবেশে নিহত মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাফিজুর রহমান সেলিম হত্যার পাঁচদিন পার হলেও হত্যাকারীদের গ্রেফতার করে না পারায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা চান্না মন্ডল, ঈশ্বরদী মুক্তিযোদ্ধা সংসদ এর সাবেক কমান্ডার আব্দুল খালেক, ব্যবসায়ী মহিদুল ইসলাম, রবিউল ইসলাম রবি, আওয়ামী লীগ নেতা জহুরুল ইসলাম মালিথা, সাইফুজ্জামান পিন্টু, রফিকুল ইসলাম সুলতান, মোস্তাফিজুর রহমান ছবি, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সাহাপুর ইউপি চেয়ারম্যান মতলেবুর রহমান মিনহাজ, আব্দুর রহমান মিলন, রেলওয়ে শ্রমিকলীগ সভাপতি ইকবাল হায়দার, যুবলীগ সভাপতি আনোয়ার হোসেন ও মাসুদুর রহমান বিশ্বাস।

মানববন্ধন, বিক্ষোভ সভা ও অবরোধ কর্মসূচিতে সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বাহাউদ্দীন ফারুকী উপস্থিত হয়ে আসামিদের গ্রেফতারের অগ্রগতির বিষয়ে বক্তব্য রাখেন। ওসি উপস্থিতদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনাদের একটু ধৈর্য ধরতে হবে। পাকশীতে মুক্তিযোদ্ধা সেলিম হত্যায় যেন শেষ হত্যা হয়। আর কোন মায়ের কোল যেন খালি না হয় সেই জন্য পুলিশ নিখুঁতভাবে কাজ করছে। হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিস্বরূপ ফাঁসির কাঠগড়ায় নিয়ে যাওয়ার জন্য কাজ করা হচ্ছে। খুব শীঘ্রই সেলিমের হত্যাকারীদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

উল্লেখ্য, গত বুধবার (৬ ফেব্রুয়ারি) রাত নয়টায় ঈশ্বরদীর পাকশী বিবিসি বাজার থেকে নিজ বাড়িতে ফেরার সময় বাড়ির দরজার সামনে আতঁতায়ীদের গুলিতে নিহত হন বীরমুক্তিযোদ্ধা মোস্তাফিজুর রহমান সেলিম।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীনভেম্বর - ২০
ফজর৪:৫৬
যোহর১১:৪৪
আসর৩:৩৬
মাগরিব৫:১৫
এশা৬:৩১
সূর্যোদয় - ৬:১৫সূর্যাস্ত - ০৫:১০
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৮২৯৮.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.