নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১ ফাল্গুন ১৪২৪, ২৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৯
দিনাজপুরের এক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভুয়া শিক্ষক নিয়োগ
নবাবগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি
দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলার আলদাতপুর বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাকালীন প্রধান শিক্ষকের নাম প্রতারণামূলকভাবে কর্তন এবং পুরাতন শিক্ষক হাজিরা খাতা গায়েব করে নতুনভাবে দলীয় পরিচয়ে প্রধান শিক্ষক নিয়োগের অভিযোগে প্রাথমিক গণশিক্ষামন্ত্রী বরাবর প্রতিকার চেয়ে আবেদন করেছেন প্রাতারিত প্রধান শিক্ষক আফজালুজ্জামান। এদিকে মন্ত্রী দিনাজপুর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে সরেজমিনে বিষয়টি যাচাইপূর্বক প্রতিবেদন প্রদানের লিখিত নির্দেশনা দিয়েছেন। জানা গেছে, পার্বতীপুর উপজেলার ১০নং হরিরামপুর ইউনিয়নের উত্তর বিষ্ণুপুর ফকির পাড়া এলাকার মো. সাদেকুজ্জামানের ছেলে আফজালুজ্জামান নবাবগঞ্জ উপজেলার আলদাতপুর বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১৪/০৭/২০০৯ ইং স্মারক নং-০১/০৯ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মো. নজরুল ইসলাম স্বাক্ষরিত নিয়োগপত্র মূলে ম্যানেজিং কমিটির ১৩/০৭/২০০৯ সভার সিদ্ধান্ত মতে ২০/০৭/২০০৯ প্রধান শিক্ষক পদে যোগদান করে নিজস্ব অর্থায়নে বিদ্যালয় গৃহনির্মাণ, পাকাকরণসহ যাবতীয় কাজ অগ্রগামী হওয়ায় প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর মিরপুরের স্মারক নং- প্রাশিঅ/০৬/০২বিদ্যা-নীমালা/২০১২/১৪৩, তাং-০৭ আগস্ট ২০১৪-এর পলিসি ও অপারেশন বিভাগের পরিচালক মো. ইমরান কর্তৃক স্বাক্ষরিত 'বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের লক্ষ্যে প্রাপ্ত বিদ্যালয়ের তালিকা যা সচিব প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে প্রেরণকৃত ২৭ নং ক্রমিক এ সুস্পষ্টভাবে মো. আফজালুজ্জামানকে প্রধান শিক্ষক হিসেবে উল্লেখ করা আছে। উপজেলা শিক্ষা অফিস হতে চূড়ান্ত শিক্ষক তালিকা/প্রতিবেদন দাখিলের পূর্বে হঠাৎ করে বিদ্যালয়ের সভাপতি আরো ৩ লাখ টাকা দাবি করে। অন্যথায় শিক্ষক হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করতে নিষেধ করে। এই বিষয়ে প্রতারিত প্রধান শিক্ষক আফজালুজ্জামান বলেন, আমি যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে পত্রিকায় বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে মাস্টার্স ডিগ্রি যোগ্যতা নিয়ে বিদ্যালয়টিতে যোগদান করি। সভাপতি সাহেব আমার নিকট হতে ৩ লক্ষাধিক টাকা লিখিত ডকুমেন্ট মূলে হাতিয়ে নিয়েছে। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের শিক্ষক তালিকায় প্রধান শিক্ষক হিসেবে আমার নাম রয়েছে, বৈধ নিয়োগপত্র, যোগদানপত্রের মূল কপি হাতে রয়েছে। অথচ কর্মস্থল নবাবগঞ্জ উপজেলায় এবং আমি পার্বতীপুর উপজেলার বাসিন্দা এই খোড়া অজুহাত দেখিয়ে সভাপতি আমাকে নানাভাবে হয়রানি করছে। বিষয়টি নিয়ে আমি দিনাজপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য শিবলী সাদিকের স্বপ্নপূরীর বাসায় আমার স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোজাহিদুল ইসলাম সোহাগকে নিয়ে বসেছি। সংসদ সদস্য প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক হিসেবে আমার নাম বাদ যাবে না মর্মে আশ্বস্ত করলেও গত ৩০/০৫/২০১৬ তারিখে ৩৬৫ নং স্মারকে বিধি লঙ্ঘন করে এইচএসসি পাস রায়হান নামক দলিয় ছেলেকে তৃতীয় পর্যায়ে বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের নিমিত্তে তথ্য পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের সভাপতি নজরুল ইসলাম বলেন, প্রতিষ্ঠাকালীন প্রধান শিক্ষক আফজালুজ্জামানের অবদান অনেক সত্য তবে শিক্ষক পরিবর্তনের ঘটনায় আমি পরিস্থিতির শিকার। ডিগ্রি পাস যোগ্যতা ছাড়া প্রধান শিক্ষক পদে কিভাবে এইচএসসি পাস রায়হানকে নিয়োগ দিয়েছেন এবং পূর্ববর্তী প্রধান শিক্ষকের ইস্তফাপত্র ছাড়া এই নিয়োগ কতটুকু বৈধ এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, নতুন প্রধান শিক্ষকের চাকরি বৈধ হোক বা না হোক এতে আমার যায় আসে না। ঐ বিদ্যালয়ে আমার স্ত্রী ঝর্না পারভীন এবং ভাগি্ন তাশরাত উন্নাহার শিক্ষক হিসেবে রয়েছে আমি চাই ওদের চাকরি হোক। ইতিপূর্বেও আমি দুই দুইবার বিদ্যালয়ের ঘর নির্মাণ করেও বিদ্যালয় করতে পারিনি। নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত ভুয়া প্রধান শিক্ষক রায়হান বলেন, আমি ছাত্রলীগের ওয়ার্ড সভাপতি আমার এরিয়ায় পার্বতীপুরের শিক্ষক চাকরি করবে তা হয় না, তাই আমার বড় ভাইয়ের নির্দেশে আমি এই বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের চেয়ারে বসেছি।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীএপ্রিল - ২৫
ফজর৪:০৯
যোহর১১:৫৭
আসর৪:৩২
মাগরিব৬:২৭
এশা৭:৪৪
সূর্যোদয় - ৫:২৯সূর্যাস্ত - ০৬:২২
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৪৯৩৩.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.