নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১ ফাল্গুন ১৪২৪, ২৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৯
পিপিপি'র প্রধান নির্বাহীর সাথে ডিসিসিআই'র পরিচালনা পর্ষদের সাক্ষাৎ
সরকারি-বেসরকারি অবকাঠামো প্লাটফর্ম করার তাগিদ
অর্থনৈতিক রিপোর্টার
জাতীয় অবকাঠামো পরিকল্পনা প্রণয়ন এবং সরকারি-বেসরকারি অবকাঠামো প্ল্যাটফর্ম গঠনের তাগিদ দিয়েছেন পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপ (পিপিপি)'র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আফসর এইচ উদ্দিন। গত রোববার পিপিপি কার্যালযে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই)'র সভাপতি আবুল কাসেম খানের নেতৃত্বে ডিসিসিআই'র পরিচালনা পর্ষদের সদস্যবৃন্দের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে তিনি এই তাগিদ দেন। পিপিপি'র প্রধান নির্বাহী বলেন, পিপিপি'র আওতায় বিভিন্ন মেগা প্রকল্প নির্ধারিত সময়ে বাস্তবায়নের লক্ষ্যে একটি জাতীয় অবকাঠামো বাস্তবায়ন কমিটি গঠনের প্রয়োজন রয়েছে। তবে পিপিপি'র আওতায় মেগা প্রকল্পসমূহ বাস্তবায়নের অর্থায়ন, দক্ষবলের অভাব, বিভিন্ন সংস্থা কর্তৃক অনুমতি পত্র লাভের দীর্ঘসূত্রতা এবং প্রকল্পের সম্ভাবনা যাচাইয়ের সময়ক্ষেপণ ও খাতভিত্তিক প্রকল্প বাস্তবায়নের বিশেষজ্ঞ দলের অভাব ইত্যাদি মূল প্রতিবন্ধকতা হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আসছে। তিনি জানান, ২০১৮ সাল নাগাদ পিপিপি'র আওতায় ১৩টি প্রকল্পে ১ দশমিক ৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয়ের প্রাক্কলন করা হয়েছে এবং এক্ষেত্রে সড়ক, পর্যটন, স্বাস্থ্য, বন্দর, নগারায়ন ও শিল্পখাত উল্লেখযোগ্য। তিনি বলেন, পিপিপি'র আওতায় প্রকল্পসমূহে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ১০ বছরের করমুক্ত সুবিধা প্রদান করা হয়ে থাকে এবং এ সুযোগ গ্রহণ করে দেশের ব্যবসায়ীরা অধিক হারে পিপিপি'র প্রকল্পসমূহে বিনিয়োগ করতে পারেন।

ডিসিসিআই সভাপতি আবুল কাসেম খান বলেন, বিনিয়োগ খাতে বিদ্যমান স্থবিরতা কমানোর জন্য বৈদেশিক সহায়তা এবং উচ্চ হারের বৈদেশিক ঋণের নির্ভরতা কমানোর জন্য পিপিপি কার্যকর প্ল্যাটফর্ম হিসেবে কাজ করতে পারে। তিনি জানান, পিপিপি কার্যালয় এ পর্যন্ত ১৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের ৪৭টি প্রকল্প অনুমোদন করেছে। তবে 'ডুইং বিজনেস ইনডেঙ্'-এ বাংলাদেশের অবস্থান পিপিপি কার্যালয় এবং বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা)'র মধ্যকার সমন্বয় আরো বাড়ানোর উপর জোরারোপ করতে হবে। তিনি বলেন, ২০১৭ সালে বাংলাদেশে জিডিপি'র ২ দশমিক ৯৬ শতাংশ অবকাঠামো খাতে ব্যয় হয় এবং ঢাকা চেম্বার মনে করে, এটাকে জিডিপি'র ৫ শতাংশে উন্নীতকরণ করতে হবে, যার জন্য প্রতিবছর অতিরিক্ত প্রায় ৪২ হাজার ৫১০ কোটি টাকা প্রয়োজন হবে। এসময় তিনি দেশের মেগা প্রকল্পগুলো যথাসময়ে বাস্তবায়নের জন্য প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে সরকারি ও বেসরকারি খাতের প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে একটি বিশেষ অথোরিটি 'ন্যাশনাল ইনফ্রাস্ট্রকাচার ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড মনিটরিং এডভাইজরি অথরিটি (নিডমা)' গঠনের প্রস্তাব করেন। তিনি বলেন, অবকাঠামো খাতের বিনিয়োগে আর্থিক প্রবাহ নিশ্চিতকরণের জন্য স্টক মার্কেট 'বিনিয়োগ বন্ড' প্রবর্তনের প্রস্তাব করছি, যেখানে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীরা বিনিয়োগ করতে আগ্রহী হবেন।

ডিসিসিআই পরিচালক ইঞ্জি. আকবর হাকিম, আন্দালিব হাসান, হুমায়ুন রশিদ, সেলিম আকতার খান, ওয়াকার আহমেদ চৌধুরী এবং মহাসচিব এএইচএম রেজাউল কবির এসময় উপস্থিত ছিলেন।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীফেব্রুয়ারী - ১৯
ফজর৫:১৩
যোহর১২:১৩
আসর৪:২০
মাগরিব৫:৫৯
এশা৭:১২
সূর্যোদয় - ৬:২৯সূর্যাস্ত - ০৫:৫৪
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
২৯০৫.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.