নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১ ফাল্গুন ১৪২৪, ২৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৯
মাছের পোনা চাষ করে শিক্ষিত বেকার লেবু মণ্ডল এখন স্বাবলম্বী
রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) থেকে এম আজিজুল হক
বেকারত্ব ঘুচাতে ছাত্র জীবন থেকেই রাজারহাটের হামিদুল ইসলাম লেবু মন্ডল নামের এক যুবক চাকরির আশা না করেই ব্যতিক্রমী চিন্তা করে। এক সময় সে স্বল্প পুঁজি দিয়েই একাই মাছের পোনা চাষ শুরু করে। এসএসসি পরীক্ষার পর ১৯৯৮ সালে রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক রাজারহাট শাখা থেকে মাছের পোনা চাষ করার জন্য মাত্র ১৫ হাজার ঋণ নেয়। তাই দিয়ে রেণু পোনা মাছের ব্যবসা শুরু করেছিলেন মো. হামিদুল ইসলাম লেবু ম-ল (৩৪)। আর এখন তিনি স্বাবলম্বী সঙ্গে এসএসসিসে প্রথম বিভাগসহ বিএ পাস করে চাকুরী না খুঁজে পুরোপুরি মাছের পোনা ব্যবসায় ঝুঁকে পড়েন তিনি। এরপর তাকে আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। এরপর শুধু সফলতার গল্প শুরু। রাজারহাট উপজেলার সদর ইউপির বোতলার পাড় গ্রামের বাসিন্দা সমাজ সেবক মরহুম আলহাজ্ব আহাম্মদ আলী মন্ডলের ৪র্থ পুত্র হামিদুল ইসলাম লেবু মন্ডল লেবু। ১৯৯৮ সালের এসএসসি পরীক্ষার পর মাত্র ৩হাজার টাকা দিয়ে অন্যের একটি ছোট পুকুর লিজ নিয়ে রেণু মাছের পোনা চাষ শুরু করে। এখন শুধু তিনি রাজারহাট উপজেলা নয় গোটা কুড়িগ্রাম জেলার সর্বত্র সফল গুণগত মানের পোনা মাছের ব্যবসায়ী হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে। বর্তমান তিনি পৈতৃক ও লিজসহ প্রায় ২০ একর জমির ৫টি পুকুরে নিয়মিত পোনা মাছের চাষ করে আসছে। ৩৪বছর বয়সী এ যুবক সফল ব্যবসায়ী জীবনে ইতিমধ্যে প্রায় দেড় কোটি টাকার মালিক বনে গেছেন। তার ঐ পোনা মাছের হ্যাচারীতে এ এলাকার ৮/১০ জন শ্রমিক সারা বছরেই কাজ করে তাদের পরিবার পরিজনের জীবিকা নির্বাহ করে। এ বিষয়ে পোনা ব্যবসায়ী হামিদুল ইসলাম লেবু মন্ডলের সাথে কথা বলে জানা গেছে, শুরু থেকে আমার সাধনা ছিল সৎভাবে ব্যবসা করা। আল্লাহ্ তায়ালা আমাকে সেভাবে তৌফিক দিয়েছে। তাই বাকি জীবনেও আমি সততার সাথে ব্যবসা চালিয়ে যাব। নিজের ব্যবসায়ী অর্থ উর্পাজনের মধ্যে দিয়ে ৪ একর জমিসহ বসতবাড়ি তৈরির পাশাপাশি ব্যবসায় এখন কোটি টাকা বিনিয়োগ করছি। পাশাপাশি গুণগতমানের পোনা মাছ চাষে কোয়ালিটি সম্পন্ন খাবার পরিবেশনে তিনি বদ্ধ পরিকর। রাজারহাট উপজেলা মৎস্য অফিসার মো. মাহমুদুল নবী মিঠু বলেন, লেবু ম-ল একজন সৎ ও নিষ্ঠাবান মৎস ব্যবসায়ী হিসেবে আমি তাকে চিনি ও জানি। উপজেলা মৎস্য বিভাগের আয়োজনে কোটেশনের মাধ্যমে ঠিকাদারদের সব সময় তার কাছ থেকে পোনা মাছ সরবরাহ করার জন্য বলা হয়ে থাকে। পাশাপাশি ২০১৪ সালে উপজেলা পর্যায়ে এবং ২০১৫ সালে জেলায় সফল মৎস কর্মী হিসেবে তাকে পুরষ্কৃত করা হয়।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীঅক্টোবর - ১৮
ফজর৪:৪১
যোহর১১:৪৪
আসর৩:৫২
মাগরিব৫:৩৪
এশা৬:৪৫
সূর্যোদয় - ৫:৫৭সূর্যাস্ত - ০৫:২৯
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৭৭০৮.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.