নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, শুক্রবার ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১ ফাল্গুন ১৪২৬, ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪১
বসন্ত আর ভালোবাসার উত্তাপে সরগরম ফুলের বাজার
সব ধরনের ফুলের দাম বেড়েছে কয়েকগুণ
স্টাফ রিপোর্টার
ফুল শ্রদ্ধা, ভালোবাসা ও পবিত্রতার প্রতীক। এমনকি শোকের সঙ্গেও জড়িয়ে আছে ফুল। তাই যে কোনো উৎসবে ফুলের দোকানগুলোতে দেখা যায় উপচেপড়া ভিড়। বসন্ত ও ভালোবাসা দিবস একই দিনে হওয়ায় সরগরম হয়ে উঠেছে রাজধানীর ফুলের বাজার। গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর বনানী, ধানমন্ডি ও শাহবাগের বিভিন্ন ফুলের দোকানে ক্রেতাদের আগমনে জমে উঠেছে বেচাকেনা।

সরেজমিনে দেখা যায়, বসন্ত ও ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে বছরের অন্য সময়ের তুলনায় সব ধরনের ফুলের দাম কয়েকগুণ বেশি। দাম বেশি হলেও বসন্ত বরণের উৎসব এবং ভালোবাসার কাছে যে বাড়তি দাম কোনো বিষয়ই নয়, তারই প্রমাণ মেলে এ ভিড়ে। শাহবাগের বিভিন্ন ফুলের

দোকানে ক্রেতাদের আগমনে জমে উঠেছে বেচাকেনা। অন্যদিকে, রাজধানীর বিভিন্ন অঞ্চলে ফুলের দামের ভিন্নতাও দেখা গেছে। ধানমন্ডিতে যে দেশি গোলাপ ৩০ টাকা, সেটি শাহবাগে বিক্রি হচ্ছে ২০ টাকায়। ধানমন্ডিতে চায়না গোলাপ (দেশে উৎপাদিত) ৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, যা শাহবাগে ৪০ থেকে ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। অন্য ফুলের ক্ষেত্রেও দামের পার্থক্য রয়েছে।

শাহবাগের মুক্তা পুষ্প বিতানের স্বত্বাধিকারী আব্দুস সবুর বলেন, একই দিনে দুটো উৎসব পড়ায় আমরা ফুলের ব্যবসায়ীরা সার্বিকভাবে প্রস্তুত রয়েছি। যেহেতু মূল উৎসব কাল (আজ) তাই আজ থেকেই শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন পেশাজীবীরা ফুলের দোকানে ফুল কিনতে আসছেন।

শাহবাগের ফুলতলা ফ্লাওয়ার শপের মো. জলিল ফুলের বেচাকেনা প্রসঙ্গে বলেন, বেচাকেনা ভালোই হচ্ছে। এবার ভালোবাসা দিবস ও বসন্ত উৎসব একই দিনে এবং ছুটির দিন পড়েছে, তাই বিকেল থেকে বেচাকেনা আরও বাড়বে আশা করা যাচ্ছে। শাহবাগের অন্য ফুলের দোকানদারের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ফুলের চাহিদা যথেষ্ট পরিমাণে রয়েছে। ফুলের বেচাকেনাও জমে উঠেছে এবং সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বেচাকেনা আরও বাড়বে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আশরাফ এবং কনক ফারজানা শাহবাগে এসেছেন ফুল কিনতে। ফুল কেনার পর তাদের সঙ্গে আলাপকালে এ দুই শিক্ষার্থী জানান, বসন্ত উৎসব, ভালোবাসা দিবস এবং শুক্রবার বইমেলা উপলক্ষে প্রচ- ভিড় হবে, তাই একদিন আগেই ফুল কিনছেন তারা। ফুলের দাম প্রসঙ্গে তারা বলেন, ভালোবাসা দিবসে ফুলের দাম প্রতিবছর বেশিই থাকে। বেশি দাম দিয়েই কিনতে হলো। কিছুই করার নেই উৎসব তো পালন করতেই হবে।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীঅক্টোবর - ৩১
ফজর৪:৪৭
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৪৪
মাগরিব৫:২৪
এশা৬:৩৮
সূর্যোদয় - ৬:০৪সূর্যাস্ত - ০৫:১৯
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৪৭৯.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.