নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, মঙ্গলবার ১৩ মার্চ ২০১৮, ২৯ ফাল্গুন ১৪২৪, ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৩৯
বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষেণই জাতি মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল : রাঙ্গা
স্টাফ রিপোর্টার
কোনো মেজরের ঘোষণা বা হুঁইসেলে স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ অর্জিত হয়নি। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের স্মরণকালের দিক-নির্দেশনামূলক ভাষণই সমগ্র জাতিকে মহান মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়তে উদ্বুদ্ধ করে। তার নেতৃত্বে অর্জিত হয় স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ,

নিজস্ব জাতিসত্তা, পবিত্র সংবিধান ও লাল-সবুজের পতাকা।

গতকাল সোমবার কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরি মিলনায়তনে সীমান্ত কালচারাল ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে মহান স্বাধীনতা দিবসের ৪৭ বছর পূর্তি উপলক্ষে স্বাধীনতা ও বঙ্গবন্ধু বিষয়ক এক আলোচনা সভা ও গুণীজন সম্মাননা পদক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এলজিআরডি ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মো. মসিউর রহমান রাঙ্গা এসব কথা বলেন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী আব্দুস সাত্তারের সভাপতিত্বে এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট সমাজসেবক জসিম উদ্দিন মুন্নু, ওয়ার্ড কাউন্সিলর শফিকুল ইসলাম সেন্টু, হাসিবুর রহমান মানিক, মো. এনামুল হক ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা এইচ এম মেহেদী হাসান।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জীবন ও রাষ্ট্র দর্শনের মৌল নীতি ছিল মানুষের প্রতি ভালোবাসা আর বাঙালির প্রতি চিরন্তন মমত্ববোধ। তিনি স্বপ্ন দেখতেন অন্তর্ভুক্তিমূলক রাষ্ট্রব্যবস্থা ও বৈষম্যহীন সমাজ ব্যবস্থা বিনির্মাণের। তারই যোগ্য উত্তরসূরি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সূচিত দিন বদলের সনদ বাস্তবায়িত হচ্ছে। এ মাসেই বাংলাদেশ নিম্ন-মধ্যম আয়ের দেশ হতে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হওয়ার প্রথম ধাপের শুভ সূচনা করবে।

রাঙ্গা বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে মুক্তিযোদ্ধা, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা, খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা ও যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে বিভিন্ন ধরনের কল্যাণমুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করে আসছে। এক্ষেত্রে উপকারভোগী মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা বৃদ্ধির পাশাপাশি ভাতার হারও উল্লেখযোগ্য পরিমাণ বৃদ্ধি করা হয়েছে। তিনি সীমান্ত কালচারাল ফাউন্ডেশনকে মুক্তচিন্তা, স্বাধীনতার স্বপক্ষের মননশীল ও সৃষ্টি ধর্মী সাংস্কৃতিক সংগঠন হিসেবে উল্লেখ করে এর কর্মযজ্ঞকে তৃণমূল মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দেয়ার আহ্বান জানান। তিনি সংগঠনটিকে সার্বিক সহায়তার আশ্বাস দেন।

পরে প্রতিমন্ত্রী ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখা কৃতী ব্যক্তিগণের হাতে সম্মাননা পদক তুলে দেন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীসেপ্টেম্বর - ২৩
ফজর৪:৩৩
যোহর১১:৫২
আসর৪:১৩
মাগরিব৫:৫৭
এশা৭:১০
সূর্যোদয় - ৫:৪৭সূর্যাস্ত - ০৫:৫২
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৪৭৭৭.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.