নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, শুক্রবার ১৫ মার্চ ২০১৯, ১ চৈত্র ১৪২৫, ৭ রজব ১৪৪০
উলিপুরে অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে সরকারি গাছ কেটে নেয়ার অভিযোগ
উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি
কুড়িগ্রামের উলিপুরে সরকারি গাছ কেটে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে শিক্ষার্র্থী ও এলাকাবাসী ঐ গাছ আটক করে রেখেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উলিপুর সরকারি ডিগ্রি কলেজে। কলেজের শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, উলিপুর সরকারি ডিগ্রি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. আবু তাহের ২০১৬ সালে যোগদানের পর থেকে বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতি করে আসছেন। অধ্যক্ষ নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে গোপনে কলেজ চত্বরে থাকা প্রায় লক্ষাধিক টাকা মূল্যের ৩টি রেন্ট্রি কড়াই গাছ কেটে ফেলেন। প্রথম ধাপের উলিপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে কলেজ চত্বরে বিজিবি অবস্থান করায় ১৩ মার্চ পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার সুবাদে গত গত রোববার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ গাছগুলো কেটে ফেলেন। ঐদিন গাছগুলোর কিছু অংশ সরিয়ে নেয়া হলেও গত সোমবার দুপুরের দিকে বাকি অংশ সরানোর সময় শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসীর প্রতিবাদের মুখে তা আর সম্ভব হয়নি। গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে ঐ অধ্যক্ষ এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে পড়েন। এ ঘটনায় কলেজ চত্বরে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

উলিপুর সরকারি ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থী ও এইচএসসি পরিক্ষার্থী আরিফুল ইসলাম আকাশ, ওবায়দুল হক, একাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থী আদর সরদার, মেহেদী হাসান, ইমন সরকার, নাহিদ হাসানসহ অনেকে অভিযোগ করেন, অধ্যক্ষ স্যার কলেজে যোগদান করার পর থেকে নানাবিধ দুর্নীতি ও অনিয়মে জড়িয়ে পড়েছেন। কলেজে চত্বরে অবস্থিত নারিকেল গাছসহ বিভিন্ন ফলের গাছের ফল বিক্রয়, গাছ কেটে বিক্রয় করা, কলেজের ছাত্রাবাস বহিরাগতকে ভাড়াপ্রদানসহ বিভিন্ন অনিয়ম করে আসছেন। তারা আরও বলেন, দূর-দূরান্তের শিক্ষার্থীরা ছাত্রাবাসে থাকার সুযোগ না পেলেও কলেজের একমাত্র ছাত্রাবাসটি অধ্যক্ষ স্যার উপজেলার ধামশ্রেণী ইন্দারারপাড় দাখিল মাদরাসার শিক্ষক মাও. ছবুর আলীকে ভাড়া প্রদান করেছেন। উলিপুর সরকারি ডিগ্রি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আবু তাহের গাছ কাটার কথা স্বীকার করে বলেন, গাছগুলো মৃত এবং ঝঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকার কারণে সেগুলো কাটা হয়েছে। ঐ গাছগুলো দিয়ে কলেজের ব্রেঞ্চ তৈরি করা হবে। ছাত্রাবাস ভাড়া দেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, সেখানে কলেজ মসজিদের ইমাম সাহেব থাকেন। গাছ কাটার ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমতি আছে কি না তা জানতে চাইলে সদুত্তর না দিয়ে তিনি বলেন, কলেজে অনেক সমস্যা, ভালো কাজ করতে গেলেই বাধা আসবে তবে এখতিয়ারের বাইরে আমি কিছুই করিনি।
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীনভেম্বর - ১০
ফজর৫:০৮
যোহর১১:৫১
আসর৩:৩৭
মাগরিব৫:১৬
এশা৬:৩৩
সূর্যোদয় - ৬:২৯সূর্যাস্ত - ০৫:১১
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
১০৩৮৮.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.