নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, শুক্রবার ১৫ মার্চ ২০১৯, ১ চৈত্র ১৪২৫, ৭ রজব ১৪৪০
এভাবে ব্যাংকিং খাত চললে উন্নয়ন সম্ভব নয : অর্থমন্ত্রী
অর্থনৈতিক রিপোর্টার
অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, আমরা যেভাবে ব্যাংকিং খাত চালাচ্ছি, এভাবে চালালে চলবে না। এভাবে চললে কোনো দেশের উন্নয়ন সম্ভব নয়। গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে অগ্রণী ব্যাংকের বার্ষিক সম্মেলন-২০১৯ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, স্বল্প মেয়াদি আমানত গ্রহণ করে দীর্ঘ মেয়াদি ঋণ দেয়া যেতে পারে না। এর মাধ্যমে যারা উন্নয়নের চিন্তা করে তারা বোকার রাজ্যে রয়েছে। সেজন্য বন্ড ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে সরকারের পক্ষ থেকে। আর প্রাণ গ্রুপের মাধ্যমে এই ব্যবস্থার উদ্বোধন করা হবে বলেও এ সময় জানান তিনি।

তিনি বলেন, দেশের উন্নয়নের ট্যাঙ্রে পরিধি আরো বাড়াতে হবে। আমাদের দেশে যারা ট্যাঙ্ প্রদান করেন তারাই বারবার

ট্যাঙ্ প্রদান করে আসছেন। কিন্তু নতুন করে ট্যাঙ্রে আওতায় আসার উপযোগী অনেক মানুষ এই তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হচ্ছেন না। তাই আগামী বাজেটে আমি এই অপবাদ থেকে জাতিকে মুক্তি দিতে চাই।

তিনি আরো বলেন, দেশ থেকে দারিদ্র্য তাড়াতে হবে। সবাই প্রধানমন্ত্রীকে সহায়তা করলে আমরা ফেল করবো না। ব্যাংকিং খাত কিছুটা খারাপ অবস্থায় রয়েছে। এই খাতের গ্ল্যামার ফেরাতে হবে। যারা ভালো কাস্টমার তাদের ব্যাংকিং সুযোগ-সুবিধা বাড়াতে হবে। ঋণ দেয়ার বিষয়ে সচেতন থাকতে হবে। খেলাপি ঋণ কিছুতেই বাড়তে দেয়া যাবে না।

এ সময় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির বলেন, বিশ্বব্যাপী প্রকৌশলগত উন্নয়নের পাশাপাশি সাইবার ঝুঁকিও বাড়ছে। বাংলাদেশের ব্যাংক খাতকে এই ঝুঁকি থেকে মুক্ত রাখতে সব ব্যাংকের কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে।

তিনি বলেন, প্রকৌশলগত দিক থেকে সারা বিশ্ব খুব দ্রুত গতিতে এগোচ্ছে। বিশ্বের সাথে তাল মেলাতে সেই প্রযুক্তি আয়ত্ত করতে হবে। তা না হলে অন্যরা এগিয়ে যাবে এবং অলসরা আগের জায়গাতেই পড়ে থাকবে।

এর আগে অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্যে ব্যাংকটির সিইও এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ শামস-উল ইসলাম ব্যাংকের আর্থিক অবস্থা তুলে ধরে বলেন, ২০১৮ সাল শেষে অগ্রণী ব্যাংকের আমানত দাঁড়িয়েছে ৬২ হাজার ৩৯২ কোটি টাকা। এ সময় ঋণ ও অগ্রিম এর পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩৯ হাজার ৫৭৫ কোটি টাকা। শ্রেণিকৃত ঋণ (খেলাপি ঋণ) দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৭৫১ কোটি টাকা যা মোট ঋণের ১৬ দশমিক ২১ শতাংশ। আলোচিত সময়ে এর শাখার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯৫২টিতে।

অগ্রণী ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান ড. জায়েদ বখতের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ সচিব আব্দুর রউফ তালুকদার, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম, বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীসেপ্টেম্বর - ২১
ফজর৪:৩১
যোহর১১:৫২
আসর৪:১৫
মাগরিব৫:৫৯
এশা৭:১২
সূর্যোদয় - ৫:৪৬সূর্যাস্ত - ০৫:৫৪
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৭৩৩৭.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.