নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ৮ এপ্রিল ২০২১, ২৫ চৈত্র ১৪২৭, ২৪ শাবান ১৪৪২
গুলিস্তানে ব্যবসায়ীদের সাথে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া
নগরীতে মোটরবাইক চালকদের বিক্ষোভ
স্টাফ রিপোর্টার
পুরান ঢাকার ফুলবাড়িয়ায় ব্যবসায়ীদের সাথে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। গতকাল বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ফুলবাড়িয়া বিআরটিসি বাস কাউন্টারের সামনে এ ঘটনা ঘটে। তবে এতে কেউ হতাহত হয়নি। এছাড়াও লকডাউনের মধ্যে শহরগুলোতে গণপরিবহণ চালুর পর রাইড শেয়ারিংয়ে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার দাবিতে বিক্ষোভ করেছে মোটরবাইক চালকরা।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকান খুলে দেয়ার দাবিতে গতকাল বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ফুলবাড়িয়া সুপার মার্কেট-২-এর সামনে মানববন্ধন করে ঢাকা রেডিমেড গার্মেন্টস ব্যবসায়ী সমবায় সমিতি। মানববন্ধন শেষে তারা মিছিল নিয়ে বিআরটিসি কাউন্টারের সামনের সড়ক অবরোধ করার চেষ্টা করেন। তখন পুলিশ বাধা দিলে উভয়পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেন বিক্ষোভকারীরা। পরে পুলিশও তাদের পাল্টা ধাওয়া দিয়ে রাস্তা থেকে সরিয়ে দেয়। ঢাকা রেডিমেড গার্মেন্টস ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সদস্য এমদাদ হোসেন বলেন, সরকার লকডাউন ঘোষণা করলেও ঢাকার জীবনযাত্রা প্রায় স্বাভাবিক। সড়কে গণপরিবহণ চলছে। কাঁচাবাজার খোলা। বইমেলাও চলছে। অফিস আদালতে দাফতরিক কাজও চলছে। অযথা শুধু মার্কেটগুলো বন্ধ রাখা হয়েছে। তাই তারা মার্কেট খুলে দেয়ার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেন। ঢাকা রেডিমেড গার্মেন্টস ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সভাপতি আব্দুল মান্নান বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাদের মার্কেট খুলে দেয়ার দাবিতে আজকের এই মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়েছিল। তখন তাদের একটি পক্ষের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়।

অপরদিকে, লকডাউনের মধ্যে শহরগুলোতে গণপরিবহণ চালুর পর রাইড শেয়ারিংয়ে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার দাবিতে বিক্ষোভ করেছে মোটরবাইক চালকরা। গতকাল বুধবার দুপুরে মগবাজার, খিলক্ষেত, মিরপুর, জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে তারা বিক্ষোভ করে। এসময় তারা সড়ক অবরোধের চেষ্টা করে। পরে পুলিশ তাদের সরিয়ে দেয়।

শেয়ারে বাইক চালক বা রাইডারদের অভিযোগ, মোটরসাইকেলে দু'জন চলতে তাদের বাধা দেয়া হচ্ছে, পুলিশ মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। এ কারণে নিষেধাজ্ঞা তুলে দিতে বিক্ষোভ করেছে বাইক চালকরা। মোটরসাইকেল চালক নুরুল আলম জানান, চাকরি না থাকায় সংসার চালাতে মোটরসাইকেলে রাইড শেয়ারিং করেন। সরকারের নির্দেশনায় গণপরিবহণ চললেও মোটরসাইকেল বন্ধ করে তাদের পেটে লাথি মারা হয়েছে। রাস্তায় দাঁড়ালেই আমাদের বিনা অপরাধে মামলা দিয়ে হয়রানি করছে পুলিশ। তার ওপর রাইডশেয়ারিং বন্ধের ঘোষণা। আমরা চলব কীভাবে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) মো. মুনিবুর রহমান এ বিষয়ে বলেন, তারা বেশ কিছু দাবি দিয়ে বিক্ষোভ করেছে। তাদের দাবি আমরা শুনেছি। তবে তারা বেশিক্ষণ সড়কে অবস্থান করেননি। আধাঘণ্টা থেকে চলে গেছেন। করোনানাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে এক সপ্তাহের লকডাউন জারির পর রাইড শেয়ারিংয়েও নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়। তবে মানুষের দুর্ভোগ এড়াতে ঢাকাসহ সিটি শহরগুলোতে থেকে গণপরিবহণ চালুর উপর নিষেধাজ্ঞা গতকাল বুধবার তুলে নেয়া হয়।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীএপ্রিল - ১১
ফজর৪:২৩
যোহর১২:০০
আসর৪:৩১
মাগরিব৬:২১
এশা৭:৩৬
সূর্যোদয় - ৫:৪০সূর্যাস্ত - ০৬:১৬
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৫০৮.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.