নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বুধবার ১৬ মে ২০১৮, ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২৯ শাবান ১৪৩৯
খুলনার ভোটে সব প্রহসন : বিএনপি
সরকার, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও ইসি'র ভোট জালিয়াতির মহড়া
স্টাফ রিপোর্টার
নির্বাচন কমিশনকে 'সরকারেরই বিম্বিত কণ্ঠস্বর' আখ্যা দিয়ে বিএনপি'র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে যা কিছু হয়েছে সব প্রহসন। সরকার, তাদের দোসর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও নির্বাচন কমিশন মিলে খুলনায় কেন্দ্র দখল, কারচুপি ও ভোট জালিয়াতির মহড়া চালিয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে নয়াপল্টনে বিএনপি'র কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে খুলনা সিটি নির্বাচনে সরকারের বিরুদ্ধে ভোট ডাকাতির অভিযোগ এনে জরুরি সাংবাদিক সম্মেলেনে তিনি এসব কথা বলেন। বর্তমান অবৈধ সরকার ক্ষমতায় থাকলে কোনো দিনই দেশে দূষণমুক্ত নির্বাচন হবে না মন্তব্য করে রিজভী বলেছেন, সরকার, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, নির্বাচন কমিশন ও আওয়ামী সশস্ত্র ক্যাডাররা একই নৌকার যাত্রী হওয়ার কারণে ভোট ডাকাতির নির্বাচনকেই আদর্শ নির্বাচন হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করা হচ্ছে। অবৈধ সরকার জনগণ পরিত্যক্ত হলে বেআইনি কাজ করবেই এবং এর জন্য তাদের কোনও লজ্জাবোধও নেই।

সাংবাদিক সম্মেলনে রিজভী বলেন, আমরা নানা সূত্রে জানতে পেরেছি খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বেলা ২টা ৩০ মিনিট থেকে ৪টায় ভোট শেষ হওয়া পর্যন্ত ভোট কেন্দ্রগুলোতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রহরায় নৌকা প্রার্থীর পক্ষে একচেটিয়া সিল মারার জন্য খুলনা পুলিশ কমিশনার নির্দেশ দিয়েছেন। নৌকা মার্কার প্রার্থী এরকম ভোটের বিষয়টি নিশ্চিত ছিলেন। তাই নির্বাচনের দু'দিন আগে ভোটে জেতার জন্য শুভেচ্ছা জানিয়ে পোস্টার ছাপিয়ে দেয়ালে দেয়ালে সেঁটেছেন নৌকার সমর্থকরা।

তিনি বলেন, আওয়ামী সন্ত্রাসী ক্যাডার, প্রকাশ্য অদৃশ্য আইন প্রয়োগকারী সংস্থার গুন্ডামি এবং গত কয়েকদিনে ভোটারদের মনে ভীতি সৃষ্টির জন্য গ্রেফতার ও বাড়িতে বাড়িতে পুলিশের আগ্রাসন, ভোটকেন্দ্রে ধানের শীষের এজেন্টদের ঢুকতে না দেয়া, মহিলা এজেন্টদের হুমকি দিয়ে ভোটকেন্দ্রে যেতে না দেয়া সবমিলিয়ে এখন পর্যন্ত যা ভোট হয়েছে, তা প্রহসন। প্রহসনের আরও একটি নিদর্শন হচ্ছে ধানের শীষের মেয়র প্রার্থী একটি কেন্দ্রে গিয়ে দেখেন গোটা ব্যালট বইটির প্রতিটি পেপার নৌকা মার্কার সিলে ভরা। আরও কয়েকটি কেন্দ্রে সাংবাদিকরা এরূপ ঘটনা সরেজমিনে প্রত্যক্ষ করেছেন। আওয়ামী লীগের সকল কাজই প্রকৃতপক্ষে প্রতারণা ছাড়া আর কিছুই নয়।

বিএনপি'র এই নেতা বলেন, শেখ হাসিনার রাজত্বে গণতন্ত্র এখন ছিন্নমূলে পরিণত হয়েছে। সরকার মূলত দেশবাসীর রক্ত পান করতে করতে সারা দেশকে ভাগাড়ে পরিণত করেছে। ভোটারবিহীন সরকারের নিরবচ্ছিন্ন ভোটাধিকার হরণের ধারায় জনগণের অন্তহীন আর্তি এখন আকাশে-বাতাসে ধ্বণিত হচ্ছে। আজকের ভোট সন্ত্রাসের ঘটনায় খুলনা সিটি কর্পোরেশনের ভোটাররা ব্যথিত, বঞ্চিত, অপমানিত।

খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিভিন্ন কেন্দ্রে আওয়ামী লীগ ও নির্বাচন কমিশনের নানা অনিয়মের চিত্র তুলে ধরে তিনি জানান, ২০নং ওয়ার্ডে শেখপাড়া আইয়ুব আলী ভোট কেন্দ্রে ধানের শীষের সকল এজেন্ট বের করে দিয়ে নৌকা মার্কায় সিল মারছে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা। ২৪নং ওয়ার্ড দারুস সালাম থেকে সকল এজেন্টদের মারধর করে বের করে দিয়েছে। বিএনপি'র কোনও ভোটারদের ঢুকতে দেয়নি। এছাড়া ময়লাপোতার সোনাপতা স্কুলের সামনে ধানের শীষের প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জুর নির্বাচনী ক্যাম্পে হামলা চালিয়ে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা ভেঙে গুড়িয়ে দিয়েছে। ইউসেফ স্কুল ভোট কেন্দ্র থেকে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা ধানের শীষের এজেন্টদের মারধর করে বের করে দিয়ে কেন্দ্র দখল করে নিয়ে নৌকায় সিল মারছে। সকাল ৮টা থেকে বেলা-১টা পর্যন্ত আওয়ামী সশস্ত্র সন্ত্রাসী কর্তৃক দখল করে নেয়া ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা-৯৫ টি। এপর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী সশস্ত্র আওয়ামী সন্ত্রাসীরা দখল করে নেয়া ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা-১৫০ টির অধিক।

সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপি'র চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক অধ্যক্ষ সেলিম ভূঁইয়া ও সহ-দফতর সম্পাদক মুনির হোসেন প্রমুখ।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীআগষ্ট - ১৯
ফজর৪:১৬
যোহর১২:০৩
আসর৪:৩৭
মাগরিব৬:৩২
এশা৭:৪৮
সূর্যোদয় - ৫:৩৫সূর্যাস্ত - ০৬:২৭
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৪১৭৪.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.