নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৪ জুন ২০১৮, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২৮ রমজান ১৪৩৯
শেরপুরে পুলিশিং কমিটির নেতার বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসার অভিযোগ
শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি
বগুড়ার শেরপুরে ওয়ার্ড কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সভাপতির বিরুদ্ধে সন্ত্রাস-চাঁদাবাজি ও মাদক ব্যবসায় জড়িত থাকার অভিযোগ তুলেছেন উপজেলার শাহবন্দেগী ইউনিয়নের সংরক্ষিত নারী সদস্য আঙ্গুরী বেগম। মঙ্গলবার (১২জুন) শেরপুর প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই অভিযোগ করেন। এসময় লিখিত বক্তৃতায় তিনি বলেন, উপজেলার খন্দকারটোলা গ্রামের আজাহার আলীর ছেলে স্থানীয় ওয়ার্ড কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সভাপতি রুবেল শেখ ও তার সেকেন্ড ইন কমান্ড বলে পরিচিতি খোরশেদ আলীর ছেলে রফিকুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। এই দুই মাদক সন্ত্রাসীর কাছে জিম্মী হয়ে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। তাদের এহেন অন্যায় কর্মকা-ের বিরুদ্ধে কেউ মুখ খোলার সাহস পায় না। এরা প্রায়ই বিচার-মীমাংসার নামে বাদী ও বিবাদী পক্ষসহ এলাকার সাধারণ লোকজনের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেয়। এমনকি দাবি অনুযায়ী টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তাদের বসতবাড়ির গরু ছাগল পর্যন্ত লুটে নেয়া হচ্ছে। এরপরও বরাবরেই তারা ধরাছোঁয়ার বাইওে থেকে যাচ্ছে। যার ফলে চক্রটি আরও বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। এরই ধারাবাহিকতায় এবার তারা সরকারি উন্নয়নমূলক কাজেও বাঁধার সৃষ্টি করেছে।

ইউপি নারী সদস্য আঙ্গুরী বেগম অভিযোগ করে বলেন, নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী খন্দকারটোলা দক্ষিণপাড়া এলাকায় মানুষের চলাচলের জন্য রাস্তা তৈরীর উদ্যোগ নেন। পরবর্তীতে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ওই রাস্তায় ইটের সোলিং করার জন্য টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। সেই টাকায় রাস্তার কাজ শুরু করা হলে তার কাছে ৫০হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন ওই দুই মাদক সন্ত্রাসী। চাঁদার টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তারা নানাভাবে রাস্তার কাজে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেন। পাশাপাশি নানা হুমকি-ধামকি দেন। বিশেষ করে আমার ছেলের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ও লুটপাটের পরিকল্পনা করছেন। এমনকি বিষয়টি নিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি করলে ঈদের পর আমার প্রাণনাশ করারও হুমকি দিচ্ছেন। এ অবস্থায় চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে তিনি অভিযোগ করেন। ইউপি সদস্য আঙ্গুরী বেগম বলেন, দেশে মাদকবিরোধী অভিযান চলমান রয়েছে। এরপরও খন্দকারটোলা এলাকা

মাদক মুক্ত হয়নি। মাদক ব্যবসায়ীরাও রয়েছেন ধরা ছোঁয়ার বাইরে। ফলে জমজমাটভাবে চলছে মাদক ব্যবসা। তাই অনেকটা নির্বিঘ্নে চলা এই মাদক ব্যবসা বন্ধ এবং ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে পুলিশসহ সরকারের সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে। এ প্রসঙ্গে বক্তব্য জানতে অভিযুক্ত রুবেল শেখের মোবাইল ফোনে একাধিকবার ফোন দেয়া হলেও ফোন বন্ধ থাকায় তার বক্তব্য জানা যায়নি। তবে অভিযুক্ত রফিকুল ইসলাম তাদের নির্দোষ দাবি করে বলেন, তারা মাদকসহ কোন অন্যায় কর্মকান্ডের সঙ্গে জড়িত নেই। রাস্তা সংস্কারের কাজে নয়ছয় করেন ওই নারী সদস্য। তার এই অনিয়ম-দুর্নীতির প্রতিবাদ করায় তাদের বিরুদ্ধে এসব মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীঅক্টোবর - ১৯
ফজর৪:৪২
যোহর১১:৪৪
আসর৩:৫২
মাগরিব৫:৩৩
এশা৬:৪৪
সূর্যোদয় - ৫:৫৭সূর্যাস্ত - ০৫:২৮
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৩৬৮৫.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.