নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, সোমবার ১৮ জুন ২০১৭, ৪ আষাঢ় ১৪২৪, ২২ রমজান ১৪৩৮
বাদীকে হত্যার হুমকি
হাত-পা বেঁধে বিধবাকে নির্যাতন মামলার আসামির জামিন
দশমিনা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি
হাত-পা বেঁধে বিধবা কানন বালাকে অমানবিক নির্যাতন মামলার আসামিরা জামিনে বেড়িয়ে খুনের হুমকি দিচ্ছে বিধবার ছেলে ও মামলার বাদী আসীম চন্দ্র দাসকে। এ ঘটনায় গত বুধবার আসীম চন্দ্র দাস পটুয়াখালীর দশমিনা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (৫৩৫/১৭) করেছেন। চাঞ্চল্যকর ঘটনায় মামলার প্রধান আসামি আবুল হোসেন প্যাদাসহ ১৪ আসামি বর্তমানে জামিনে রয়েছে। আবুল হোসেন প্যাদা ও অসীম চন্দ্র দাসের বসতভিটা একই এলাকার সুবাদে ভিন্ন মেয়াদে হাজির হয়ে আসামিরা আদালত থেকে জামিন নিয়ে মঙ্গলবার দিনের বিভিন্ন সময়ে মামলা (পটুযাখালী দ্রুত বিচার ট্রাইবুনাল আদালত মামলা নং- ১২৬/১৭) তুলে খুনের হুমকি দেয়।

চঞ্চল্যকর ঘটনার সংবাদ পরিবেশন করে দি এশিয়ান এজ প্রতিনিধি নিপুণ চন্দ্রসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে আবুল হোসেনের স্ত্রী লাকি বেগমকে বাদী করে চাঁদাবাজি-শ্লীলতাহানি অভিযোগে দশমিনা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সিআর ৫৬/১৭ নং মামলা করেন। এছাড়াও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি সিকদার গোলাম মোস্তফা বাদী হয়ে তথ্য ও প্রযুক্তি আইনের ২০০৬-এ ৫৭ ধারায় দশমিনা প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নিপুণ চন্দ্রকে প্রধান আসামি, দৈনিক জনতা প্রতিনিধি সঞ্জয় ব্যানার্জীকে দ্বিতীয় আসামিী করে বেনামি ৩/৪ জনের বিরুদ্ধে দশমিনা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এমপি ৫৯/১৭ নং (দশমিনা থানার মামলা নং-০৮/১৭) মামলা দায়ের করেন।

এদিকে, মানবাধিকার সংগঠন বাংলাদেশ মাইনরিটি ওয়াচ ও গ্লোবাল হিউম্যান রাইটস ডিফেন্সের সভাপতি রবীন্দ্র ঘোষ ও সহ-সভাপতি তপন কুমার পা-ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। ঘটনায় জড়িত, ভুক্তভোগী ও স্থানীয়দের মতামতের ভিত্তিতে বিধবা কানন বালা নির্যাতন ঘটনার নাটেরগুরু উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি সিকদার গোলাম মোস্তফাসহ ৩ আওয়ামী লীগ নেতার জড়িত থাকার বিষয় নিশ্চিত হয়।

বিধবা কানন বালা নির্যাতন মামলার বাদী আসীম চন্দ্র দাস বলেন, পুলিশ সার্বিক সহযোগিতা দিয়ে আসছে। কিন্তু ঘটনার মূলহোতা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি সিকদার গোলাম মোস্তফার জড়িত থাকলেও মামলায় আসামি করলে আমাকে বাঁচিয়ে রাখবে না দাদা। তিনি সব করাচ্ছেন জেনে বুঝেও তার নামে অভিযোগ করতে পারছি না।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীসেপ্টেম্বর - ২০
ফজর৪:৩২
যোহর১১:৫৩
আসর৪:১৬
মাগরিব৬:০১
এশা৭:১৩
সূর্যোদয় - ৫:৪৬সূর্যাস্ত - ০৫:৫৬
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
২৮৬৮.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.