নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, সোমবার ১৮ জুন ২০১৭, ৪ আষাঢ় ১৪২৪, ২২ রমজান ১৪৩৮
পার্বতীপুরে দেড় শতাধিক সরকারি গাছ কর্তন
দিনাজপুর থেকে শামীম রেজা
দিনাজপুরের পার্বতীপুরে ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে সরকারি রাস্তার দেড় শতাধিক গাছ কর্তনের অভিযোগ উঠেছে। নিয়ম মোতাবেক ঐ গাছগুলোর অর্থ রাস্তার ধারের জমির মালিক, সংশ্লিষ্ট ইউপি ও উপজেলা পরিষদ হলেও এই ভাগ দেয়া হয়নি কাউকে। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, পার্বতীপুর উপজেলার ৭নং মোস্তফাপুর ইউনিয়নের চকারহাট থেকে বড়দল পর্যন্ত অর্ধ পাকা অর্ধ কাঁচা রাস্তার আড়াই কিলোমিটার এলাকায় ইউক্যালিপটাস গাছ রয়েছে। এরই মধ্যে ঐ রাস্তার প্রায় দেড় শতাধিক গাছ অতি গোপনে কর্তন করেছে বিএসডিসি নামে স্থানীয় একটি সমিতির নেতাকর্মীরা। এসব ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে অভিযোগ দিলেও কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর। বরং দিনের পর দিন অবৈধভাবে রাস্তায় গাছ কাটার কার্যক্রম অব্যাহত রাখা হয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, এই সমিতির নেতাকর্মী মোট ৯ জন, তারা হলেন- বড়দল গ্রামের মৃত জামিল উদ্দিনের ছেলে মানিক, নুর মোহাম্মদের ছেলে আবু সাঈদ, আনসার আলীর ছেলে আনারুল, রেজওয়ানের ছেলে কামাল ওরফে সুজন, হেসাব উদ্দিনের ছেলে মমেনুল ইসলাম, ধজির উদ্দিনের ছেলে মাহবুবুর রহমান, শরিয়া মোহাম্মদের ছেলে আজাহার আলী ও এজাক। এলাকাবাসীর অভিযোগ, প্রায় ১১ বছর আগে গাছ লাগানোর সময় তাদের বলা হয়েছিল এই গাছের টাকা জমির মালিককে ১০ শতাংশ, এলাকার মাদ্রাসাকে ১০ শতাংশ, ইউনিয়ন পরিষদকে ৩০ শতাংশ ও সমিতি পাবে ৫০ শতাংশ। এছাড়াও সমিতির মাধ্যমে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যক্রম করা হবে উপার্জিত অর্থ দিয়ে। কিন্তু বেশ কিছুদিন ধরে ঐ রাস্তার গাছগুলো কাউকে কিছু না জানিয়েই কর্তন শুরু করে সমিতির নেতাকর্মীরা। কোনো প্রকার সিদ্ধান্ত ছাড়াই গাছ কর্তনের ব্যাপারে সংশ্লিষ্টদের বলতে গেলে বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদর্শন করা হচ্ছে। গাছ কাটার বিষয়ে ইউনিয়ন পরিষদ ও উপজেলা পরিষদে অভিযোগ দিলেও গাছ কর্তন অভিযান চলছেই বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

তারা জানায়, রাস্তার গাছের ছায়ার ফলে তাদের জমির ফসল উৎপাদন অনেক কমে গেছে। তারপরও উপকারভোগী হিসেবে অর্থ পাবেন এই আশায় বুক বেঁধে ছিলেন। কিন্তু এখন ঐ গাছ কাটা হলেও কোনো অর্থ তারা পাবেন না বলে সাফ জানিয়ে দেয়া হয়েছে। যাতে করে তাদের সব আশা ধুলিস্যাৎ হয়ে গেছে।

এ ব্যাপারে মোস্তফাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছাবেনুর আলম জানান, সমিতি কর্তৃক রোপণকৃত এই গাছগুলোর মালিক ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা পরিষদ, রাস্তার ধারের জমির মালিক ও সমিতির সদস্যরা। কিন্তু সমিতির সদস্যরা কাউকে কিছু না জানিয়েই গাছ কর্তন করেছে। এ ঘটনায় গাছগুলো উদ্ধার করা হয়েছে এবং পরবর্তীতে সেগুলো কি করা হবে তা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বলতে পারবেন। তবে যারা এই কার্যক্রমের সাথে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ ব্যাপারে পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তরফদার মাহমুদুর রহমান জানান, রাস্তার গাছ কর্তনের গ্রামবাসীদের এমন অভিযোগ পেয়েছেন তিনি। এ ঘটনায় তিনি বেশ কিছু কর্তনকৃত গাছের কাঠ উদ্ধার করেছেন। তবে অভিযোগের পরে ঐ এলাকায় অবৈধভাবে গাছ কর্তন বন্ধ রয়েছে। তিনি জানান, সমিতি থেকে একটি কাগজ দেখানো হয়েছে যেখানে ইউনিয়ন পরিষদ পাবে ৩০ শতাংশ এবং সমিতি পাবে ৭০ শতাংশ। কিন্তু সরকারি রাস্তার গাছের কোনো অংশ পাবে না উপজেলা পরিষদ এটি কিভাবে হয়। বিষয়টি তদন্ত করে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীআগষ্ট - ২২
ফজর৪:১৮
যোহর১২:০২
আসর৪:৩৫
মাগরিব৬:৩০
এশা৭:৪৫
সূর্যোদয় - ৫:৩৬সূর্যাস্ত - ০৬:২৫
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
২৫৭৫.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.