নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, সোমবার ১৮ জুন ২০১৭, ৪ আষাঢ় ১৪২৪, ২২ রমজান ১৪৩৮
পবিপ্রবি'র ২ তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে পৌনে ৩ কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগ
পটুয়াখালী থেকে এইচ এম আনোয়ার হোসেন
পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. ইউনুছ শরীফ ও আ. মোতালেব খানের বিরুদ্ধে জাল-জালিয়াতি ও ক্ষমতার অপব্যবহার করে সরকারের ২ কোটি ৭১ লক্ষ ৭২ হাজার ৬০৮ টাকা ৯টি কর্যাদেশের মাধ্যমে আত্নসাৎ করার অভিযোগে পটুয়াখালীর বিজ্ঞ সিনিয়ার স্পেশাল জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। দক্ষিণ মুরাদিয়া গ্রামের গাজী মতিউর মামলাটি দায়ের করেন।

মামলা বিবরনে জানা যায় গত ২১/০৬/১৬ ইং তারিখ থেকে ৩১/১২/১৬তারিখ প্রর্যন্ত পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. ইউনুছ শরীফ ও আ. মোতালেব খান ৯ টি দরপত্র বিজ্ঞপ্তির দরপত্র অহবান করেন। অসামিগণ পরস্পর যোগসাজসে অবৈধভাবে লাভবান হওয়ার জন্য বিধি -বহির্ভ্থত ভাবে ঠিকাদারকে জাল-জালিয়াতি ও ক্ষমতার অপব্যবহার করে সরকারের ২ কোটি ৭১ লক্ষ ৭২ হাজার ৬০৮ টাকা ৯টি কর্যাদেশের মাধ্যমে আত্নসাৎ করেছে। এর মধে দরপত্র বিজ্ঞপ্তি নং -০১, কাজের নাম টিএসসির ২য় ও ৩য় তলা নির্মান । এ সর্ব নিম্ন দরদাতা মেসার্স আঃ রশিদ মিয়া । যার দরপত্র মূল্য ২,৬৪,৬৭,৭০৩/৮০ টাকা। কম দরে না দিয়ে বেশি দরে মোসার্স স্টার লাইট সার্ভিস লিঃকে ৩,২৬,৬১,৯৭৫/২১ টাকা বিধি-বহির্ভ্থত ভাবে কার্যাদেশ দিয়েছেন। যাহাতে সরকারের ৫১,৯৪,২৭১/- টাকা অর্থিক ক্ষতি বা আত্মসাৎ করেন ।

দরপত্র বিজ্ঞপ্তি নং-০২, কাজের নাম কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ১ম ও ২য় তলা নির্মান । এ সর্ব নিম্ন দরদাতা মেসার্স আবুল কালাম আজাদ। যার দরপত্র মূল্য ১,৫৩,১৫,০৫০/৭০ টাকা। উক্ত ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে কার্যাদেশ না দিয়ে বেশী দরে মেসার্স অীনক ট্রেডিং কর্পোরেশনকে কার্যাদেশ প্রদান করে সরকারের ১৩,২৯,৩১৯/৩০ টাকার অর্থিক ক্ষতিসাধন বা আত্মসাৎ করেন।

দরপত্র বিজ্ঞপ্তি নং -০৩,কাজের নাম এনএসভিএম ভবনের ৩য় তলা নির্মান। এ সর্ব নিম্নদরদাতা মেসার্স এম.এইচ এন্টারপ্রাইজ । যার দরপত্র মূল্য ১,১০,৩৭,৫৫৬/০০ টাকা। উক্ত ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে কার্যাদেশ না দিয়ে বেশী দরে মেসার্স আবুল কালাম আজাদ কে ১,৩৪,৩৮,৩৪২/১০ বিধি-বহির্ভুক্তভাবে কার্যাদেশ দিয়েছেন। যাহাতে সরকারের ২৪,০০,৭৮৬/১০ টাকা অর্থিক ক্ষতি বা আত্মসাৎ করেছেন।

দরপত্র বিজ্ঞপ্তি নং-০৪, কাজের নাম ছাত্রবাস নির্মান। এ সর্ব নিম্নদরদাতা মেসার্স অতিক কনস্ট্রাকশন। যার দরপত্র মূল্য ১,৪৯,১৬,৫৫৫/১৫ টাকা। উক্ত ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে কার্যাদেশ না দিয়ে বেশী দরে মেসার্স মাহাবুব ট্রেডার্স কে ১,৭৮,৯৪,৪৮৫/০০ বিধি-বহির্ভ্থত ভাবে কার্যাদেশ দিয়েছেন। যাহাতে সরকারের ২৯,৭৭,৯২৯/৮৫ টাকা অর্থিক ক্ষতি বা আত্মসাৎ করেছেন ।

দরপত্র বিজ্ঞপ্তি নং-০৫,কাজের নাম ছাত্রীবাস নির্মাণ। এ সর্বনিম্ন দরদাতা মেসার্স এসএইচ এন্টারপ্রাইজ। যার দরপত্র মূল্য ১,৬৯,৩৬,০২০/০০ টাকা। উক্ত ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে কার্যাদেশ না দিয়ে বেশী দরে মেসার্স অঊঈ ্ চঊঈ(ঔঠ) কে ২,০৯,৭১,৪২০/০০ বিধি-বহির্ভুক্তভাবে কার্যাদেশ দিয়েছেন। যাহাতে সরকারের ৪০,৩৫,৪০০/০০ টাকা অর্থিক ক্ষতি বা আত্মসাৎ করেছেন

দরপত্র বিজ্ঞপ্তি নং -০৬,কাজের নাম কালভাট ও রাস্তা নির্মাণ। এ সর্ব নিম্ন দরদাতা মেসার্স আমির ইঞ্জিনিয়ারিং কর্পোরেশন । যার দরপত্র মূল্য ১৫,৫০,০০০/০০ টাকা। উক্ত ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে কার্যাদেশ না দিয়ে বেশী দরে মেসার্স মাহাবুব ট্রেডার্সকে ১৯,৯২,৮৩৩/৪০ বিধি-বহির্ভুত ভাবে কার্যাদেশ দিয়েছেন। যাহাতে সরকারের ৩,৪২,৮৩৩/৪০ টাকা অর্থিক ক্ষতি বা আত্মসাৎ করেছেন।

দরপত্র বিজ্ঞপ্তি নং-০৭, কাজের নাম আসবাব পত্র সবারাহ (কাঠ)। এ সর্বনিম্ন দরদাতা মেসার্স ইউরো ট্রেডিং । যার দরপত্র মূল্য ২,৪০,১৯,৯৬১/৯০ টাকা। উক্ত ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে কার্যাদেশ না দিয়ে বেশী দরে মেসার্স খালেদ ফার্ণিচারের দর ছিল ২,৬৮,০০,০০০/০০টাকা ।কিন্তু দরপত্র মূল্য পরির্বতন করে মেসার্স খালেদ ফার্ণিচারকে ৩,২২,০০,০০০/০০ বিধি-বহির্ভুতভাবে কার্যাদেশ দিয়েছেন। যাহাতে সরকারের ৫৪,০০,০০০/০০ টাকা অর্থিক ক্ষতি বা আত্মসাৎ করেছেন।

দরপত্র বিজ্ঞপ্তি নং-০৮, কাজের নাম আসবাব পত্র সবারাহ (স্টীল)। এ সর্ব নিম্ন দরদাতা মেসার্স এ.এইচ এন্টারপ্রাইজ। যার দরপত্র মূল ১,২০,৬৩,৯০৫/৭০ টাকা। উক্ত ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে কার্যাদেশ না দিয়ে বেশি দরে মেসার্স ইউরো ট্রেডিংকে ১,৫৫,৬৫,৭৯৩/৭০ বিধি-বহির্ভ্থত ভাবে কার্যাদেশ দিয়েছেন। যাহাতে সরকারের ৩,৪২,৮৩৩/৪০ টাকা অর্থিক ক্ষতি বা আত্মসাৎ করেছেন।

দরপত্র বিজ্ঞপ্তি নং -০৯, কাজের নাম পিকাপ গাড়ি সবারাহ। এ ৩টি বৈধ দরপত্র দেখানো হয়েছেন। যার মধ্য মেসার্স সিটি সার্ভিস সেন্টার এর ওঝং এন্ড সমকাজের অভিজ্ঞতা নাই। মেসার্স গোপালদী ট্রেডার্স-এর ওঝং ৫ বছরের সমকাজের অভিজ্ঞতার সনদ ছিল না। মেসার্স মুকুল টেকনোলজি এর গাড়ি সরবরাহের সমকাজের অভিজ্ঞতার সনদ মছিল না। দরপত্র ৩টি বিধি মোতাবেক অবৈধো ছিল। যহিা বাতিলযোগ্য। কিন্তু টেন্ডার কমিটি পুনরায় টেন্ডার অহবান না করে বাজার মূল্যের চেয়ে বেশী দরে মেসার্স মুকুল টেকনোলজিকে ৫৪,৯০,০০০/০০ টাকায় কার্যাদেশ প্রদান করে। কিন্তু গাড়িটির দরপত্র মূল ছিল ৩৫,০০,০০০/- টাকা। দরপত্র মূল্যরে চেয়ে ১৯,৯০,০০০/- টাকা বেশী টাকায় কার্যাদেশ প্রদান করে। যাতে সরকারের ১৯,৯০,০০০/- টাকা অর্থিক ক্ষতি বা আত্মসাৎ করেছেন।

৯টি দরপত্র বিভিন্ন সময় দুর্নীতি ও অনিয়মের মাধ্যমে সরকারের ২ কোটি ৭১ লাখ ৭২ হাজার ৬০৮ টাকা আত্মসাৎ করিয়াছেন। এ বিষয় দুমকি উপজেলার দক্ষিণ মুরাদিয়া গ্রামের গাজী মতিউর রহমান ৪০৯/৪৬৭/৪৬৮/৪৭১/১৬১/১০৯ দ-বিধি তৎসহ ১৯৪৭ সালে দুর্নীতি প্রতিরোধ অইনের ২নং ৫(২) ধারায় একটি মামলা দায়ের করে। যার মামলা নং-১/১৭, তারিখ : ১৩-০৬-১৭। বাদীর পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন দুদুক পটুয়াখালী পিপি এ্যাডভোকেট নেছার উদ্দিন।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীঅক্টোবর - ২৩
ফজর৪:৪৩
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৪৯
মাগরিব৫:২৯
এশা৬:৪২
সূর্যোদয় - ৫:৫৯সূর্যাস্ত - ০৫:২৪
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৩০৩৭.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.