নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, সোমবার ১৮ জুন ২০১৭, ৪ আষাঢ় ১৪২৪, ২২ রমজান ১৪৩৮
বিএনপি মহাসচিবের গাড়িবহরে হামলা : ফখরুলসহ আহত ৬
দুর্বৃত্তরা 'জয় বাংলা' সস্নোগান দিয়ে হামলা চালায় : আমীর খসরু
স্টাফ রিপোর্টার
রাঙামাটিতে পাহাড় ধসে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে যাওয়ার সময় চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় বিএনপি মহাসচিবের গাড়িবহরে হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ-যুবলীগের নেতাকর্মীরা। এতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীসহ ৬ জন আহত হয়েছেন। এসময় ছাত্রলীগ-যুবলীগের নেতাকর্মীরা বহরের কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করে। অন্যান্য আহতরা হলেন, ভাইস চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) রুহুল আলম চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীম, বিএনপি'র স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. ফাওয়াজ হোসেন শুভ ও চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি'র সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসেম।

গতকাল রোববার সকাল ১০ টার দিকে বিএনপি মহাসচিবের গাড়িবহর রাঙ্গুনিয়ার ইছাখালী বাজারে পৌঁছার পরই তারা এ হামলা চালায় বলে রাঙ্গুনিয়া উপজেলা বিএনপি'র সাধারণ সম্পাদক মহসিন শীর্ষ নিউজকে জানিয়েছেন।

মির্জা ফখরুল গণমাধ্যমকে বলেন, ২০-২৫ জন লোক অতর্কিতে গাড়িবহরে লাঠিসোঁটা, রামদাসহ হামলা করে। আমার গাড়ির কাচ ভেঙে গেছে। গাড়ি তছনছ করা হয়েছে। গাড়ির ভাঙা কাচ আমার শরীরে এসে লেগেছে। আমাদের কয়েক নেতা আহত হয়েছেন।

বিএনপি'র স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, আমার হাত দিয়ে রক্ত ঝরছে।

সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীম বলেন, আমরা মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এসেছি। ঐ জায়গার বীভৎসতা ভাষায় প্রকাশ করার মত না। প্রত্যেক হামলাকারীর হাতেই আগ্নেয়াস্ত্র ও লাঠিসোঁটা ছিল। তারা সবাই আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী।

বিএনপি'র স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. ফাওয়াজ হোসেন শুভ বলেন, আমাদের বহরে ৮/৯ টি গাড়ি ছিলো, এরমধ্যে ৫টি গাড়ি ভেঙে চুরমার করা হয়েছে। আমাদের ছয়জনের বাইরেও অনেক নেতা আহত হয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়ক হয়ে ৪টি গাড়ি রাঙ্গামাটির দিকে যাচ্ছিলো। এসময় ইছাখালী হাসপাতালের সামনে হঠাৎ ২৫/৩০ জন দুর্বৃত্ত দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সড়কে অবস্থান নিয়ে গাড়িগুলোর গতিরোধ করে। এক পর্যায়ে কিছু বুঝে উঠার আগেই তারা গাড়ি বহরে হামলা ও ভাঙচুর করে দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে গাড়িগুলো রাঙ্গামাটির দিকে অগ্রসর না হয়ে চট্টগ্রামের দিকে ফেরত যায়।

বিএনপি'র স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, হামলা ও ভাঙচুরের সময় দুর্বৃত্তরা 'জয় বাংলা' সস্নোগান দিয়ে গাড়িবহরে হামলা চালায়। তিনি বলেন, এখানে যে হামলার ঘটনা ঘটেছে, এটা অবিশ্বাস্য। আমরা রাঙামাটির কাপ্তাই হয়ে ভোটঘরে রিলিফ দিতে যাচ্ছি। এটা সবাই জানে। ৫০ থেকে ৬০ জন লোক লাঠিসোঁটা, রড, ছুরি, ধামা, রামদা নিয়ে হামলা চালিয়েছে। আমরা যে জীবন নিয়ে বের হয়ে আসতে পারবো তা চিন্তাও করিনি। এ ধরনের আক্রমণ আমার জীবনে দেখি নাই। বিএনপি'র এই নেতা বলেন, কোনো সভ্য দেশে রাজনীতি যে এ পর্যায়ে আসবে, তা ভাষায় প্রকাশ করার মতো না।

এ হামলার জন্য আওয়ামী লীগ নেতা ও ঐ এলাকার সংসদ সদস্য হাছান মাহমুদের সমর্থকদের দায়ী করেন আমীর খসরু।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, বিএনপি'র সর্বোচ্চ পর্যায়ের নেতাদের গাড়িবহরে হামলা হয়েছে। সাধারণ নেতাকর্মীদের বেলায় তো কথাই নেই। সাধারণ মানুষ এই সরকারের হাতে নিরাপদ নয়।

ঘটনাস্থলে থাকা রাঙামাটি জেলা বিএনপি'র সভাপতি হাজি মো. শাহ আলম বলেন, পাহাড় ধসের ঘটনায় হতাহতদের প্রতি সহমর্মিতা জানাতে এবং সহযোগিতা করতে বিএনপি'র মহাসচিবের নেতৃত্বাধীন একটি দল রাঙামাটিতে আসছিল। চট্টগ্রাম থেকে গাড়িবহরটি রাঙামাটি আসার পথে ইছাখালীতে এ হামলার ঘটনা ঘটে। আওয়ামী লীগ নেতা হাছান মাহমুদের সমর্থকরা এ হামলা চালিয়েছে। হামলায় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, বিএনপি'র স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ডা. শুভসহ কয়েকজন আহত হয়েছেন। তাঁদের গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। এলোপাথাড়ি মারধর করা হয়েছে। পাথর নিক্ষেপ করা হয়েছে।

হামলার ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন রাঙ্গুনিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমতিয়াজ আহমেদ। এ সময় তিনি বিএনপি নেতাদের তোপের মুখে পড়েন।

প্রসঙ্গত, সাম্প্রতিক পাহাড় ধসে রাঙামাটি, বান্দরবান ও চট্টগ্রামে প্রায় দেড়শজনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটে।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীসেপ্টেম্বর - ২০
ফজর৪:৩২
যোহর১১:৫৩
আসর৪:১৬
মাগরিব৬:০১
এশা৭:১৩
সূর্যোদয় - ৫:৪৬সূর্যাস্ত - ০৫:৫৬
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
২৮৫৫.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.