নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, মঙ্গলবার ৩০ জুন ২০২০, ১৬ আষাঢ় ১৪২৭, ৮ জিলকদ ১৪৪১
তিন হাসপাতালের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা চেয়ে হাইকোর্টে রিট
স্টাফ রিপোর্টার
রোগী ভর্তি না করায় এবং অতিরিক্ত বিল নেয়ার অভিযোগ এনে ঢাকা ও চট্টগ্রামের তিনটি বেসরকারি হাসপাতালের পরিচালকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়েছে।

ফেনীর এক বাসিন্দা এ রিট করেছেন বলে জানিয়েছেন আইনজীবী ইয়াদিয়া জামান। গতকাল সোমবার ইয়াদিয়া জামান জানান, বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চে এ রিট দাখিল করা হয়েছে।

ওই তিনটি হাসপাতালসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে রোগীর চিকিৎসা না করে ফেরত দেয়া এবং অতিরিক্ত বিল আদায়ের ঘটনায় বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত প্রতিবেদন যুক্ত করে এ রিট আবেদন করেন ফেনীর দাগনভূঁইয়ার জাঙ্গালীয়া গ্রামের মৃত তফাজ্জল হোসেনের

ছেলে জেবুল হোসেন রয়েল। রিট আবেদনে ঢাকার আনোয়ার খান মডার্ন হাসপাতাল, চট্টগ্রামের নিজাম রোডের মেট্রোপলিটন হাসপাতাল ও মেডিক্যাল সেন্টার হাসপাতালের পরিচালকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে স্বাস্থ্য সচিবকে কেন নির্দেশ দেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারির আবেদন জানানো হয়েছে।

আবেদনকারীর অভিযোগ, তার মা মনছুরা বেগম (৬৭) দীর্ঘদিন অসুস্থ। গত ৩ বছর ধরে তার কিডনি ডায়ালাইসিস চলছে। এ অবস্থায় গত ১ জুন তার জ্বর ও উচ্চ রক্তচাপ দেখা দেয়। তাই তাকে নিকটস্থ চট্টগ্রামের নিজাম রোডের দু'টি হাসপাতালে নেয়া হয়। অনেক অনুরোধ করার পরও কিন্তু তারা ভর্তি করেনি।

রিট আবেদনে বলা হয়, একটি জাতীয় দৈনিকে গত ২২ জুন একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। যেখানে বলা হয় আনোয়ার খান মর্ডান হাসপাতালে মুক্তিযোদ্ধা মো. মোজাম্মেল হক (৬৭) নামের এক রোগীর কাছ থেকে অল্প কিছু সময়ে নেয়া অঙ্েিজন বিল বাবদ ৮৬ হাজার টাকা নিয়েছে। তিনদিন হাসপাতালে থাকার পর মোট বিল নিয়েছে আড়াই লাখ টাকা। আইনজীবী ইয়াদিয়া জামান জানান, সরকার সরকারি-বেসরকারি হাসপাতলের প্রতি দু'টি নির্দেশনা জারি করেছিলেন।

বেসরকারি হাসপাতাল/ক্লিনিকের প্রতি নির্দেশনায় বলা হয়, কোভিড-১৯ সংক্রমণ-এর পর থেকে বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিকে সাধারণ রোগীরা চিকিৎসাসেবা প্রাপ্তির ক্ষেত্রে নানাবিধ সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন। এছাড়া দীর্ঘদিন ধরে কিডনি ডায়ালাইসিসসহ চিকিৎসা গ্রহণকারী রোগীরা সংশ্লিষ্ট বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহণে বাধার সম্মুখীন হচ্ছেন। এসব রোগীদের চিকিৎসা অব্যাহত রাখার বিষয়ে বিভিন্ন সময় মন্ত্রণালয় এবং স্বাস্থ্য অধিদফতর বাংলাদেশ প্রাইভেট ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন এবং বাংলাদেশ মেডিক্যাল কলেজ ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে অনুষ্ঠিত একাধিক সভার মাধ্যমে অনুরোধ করা হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকেও একাধিকবার নির্দেশনা জারি করা হয়েছে এবং পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দেয়ার মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট সবাইকে বার বার আহ্বান জানানো হয়েছে। এমতাবস্থায় বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিকে সাধারণ রোগীদের স্বাস্থ্যসেবা দেয়ার জন্য নিম্নোক্ত নির্দেশনা নির্দেশক্রমে জারি করা হয়েছে।

সব বেসরকারি হাসপাতাল/ক্লিনিকে সন্দেহভাজন কোভিড রোগীদের চিকিৎসার জন্য পৃথক ব্যবস্থা থাকতে হবে।

চিকিৎসা সুবিধা থাকা সত্ত্বেও জরুরি চিকিৎসার জন্য আসা কোনো রোগীকে কোনোভাবেই ফেরত দেয়া যাবে না। রেফার করতে হলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের কোভিড হাসপাতাল নিয়ন্ত্রণ কক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে রোগীর চিকিৎসার বিষয়টি সুনিশ্চিত করে রেফার করতে হবে। দীর্ঘদিন ধরে যেসব রোগী কিডনি ডায়ালাসিসসহ বিভিন্ন চিকিৎসা গ্রহণ করছেন তারা কোভিড আক্রান্ত না হয়ে থাকলে তাদের চিকিৎসা অব্যাহত রাখতে হবে।

এ নির্দেশনার ব্যত্যয় ঘটলে বা কোনো অভিযোগ প্রমাণিত হলে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে প্রচলিত বিধান অনুসারে লাইসেন্স বাতিলসহ প্রয়োজনীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। পরে এসব নির্দেশনা বাস্তবায়ন চেয়ে আইনজীবী-চিকিৎসকরা রিট করেন। ওইসব রিটের শুনানির পর ১৫ জুন হাইকোর্ট বিভাগ উক্ত বিষয়ে আদেশ দিয়েছিলেন। যেটি গত ১৬ জুন আপিল বিভাগে বহাল ছিল। কিন্তু এসব হাসপাতাল আদালতের আদেশ ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সার্কুলার লঙ্ঘন করেছেন বলে জানান ইয়াদিয়া জামান।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীজুলাই - ১১
ফজর৩:৫২
যোহর১২:০৪
আসর৪:৪৪
মাগরিব৬:৫২
এশা৮:১৫
সূর্যোদয় - ৫:১৮সূর্যাস্ত - ০৬:৪৭
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৩৬৬.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.