নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১২ জুলাই ২০১৮, ২৮ আষাঢ় ১৪২৫, ২৭ শাওয়াল ১৪৩৯
জয়ের পথে প্রধান বাধা ঘাপটি মারা অনুপ্রবেশকারী-অভ্যন্তরীণ কোন্দল
তৃণমূলের খামে ভরা অভিযোগ আমলে নিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা
সফিকুল ইসলাম
আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হচ্ছে অক্টোবরে। টানা তৃতীয় মেয়া ক্ষমতায় আসার লক্ষ্যে সরকারি দল আওয়ামী লীগ রাজপথের বিরোধী দল বিএনপি বা অন্য কোনো দলকেই চ্যালেঞ্জ মনে করছে না। তবে জয়ের পথে প্রধান বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে সরকারি দলটিতে ঘাপটি মেরে থাকা (বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মী) অনুপ্রবেশকারী এবং তৃণমূলের অভ্যন্তরীণ কোন্দল। গতকাল আওয়ামী লীগের একাধিক শীর্ষ পর্যায়ের নেতার সাথে আলাপকালে এসব তথ্য জানা গেছে। সরকারি দলটির নীতিনির্ধারকরা ভাবছে, জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ বিএনপি বা অন্য কোনো দলকেই চ্যালেঞ্জ মনে করছে না। জয়ের পথে প্রধান বাধা অভ্যন্তরীণ কোন্দল ও দলে বিগত দশ বছরে ঘাপটি মেরে থাকা বহিরাগতদের বিশৃঙ্খলা নিয়ে ভাবছে তারা। দলীয় সভাপতি এরই মধ্যে নীতি নির্ধারণী পর্যায়ের নেতা ও সাংগঠনিক সম্পাদকদের বলেছেন স্থানীয় পর্যায়ে কোন্দল নিরসনে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে। পাশাপাশি বিভিন্ন কারণে আওয়ামী লীগে সুবিধা নিতে বা আশ্রয় নিতে আসা বহিরাগতদের খুঁজে বের করতে।

আওয়ামী লীগ দলীয় বিশেষ সূত্র জানিয়েছে,

গত ২৩ জুন থেকে তিন দফায় বিশেষ বর্ধিত সভা থেকে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের বক্তব্যে এবং দলীয় সভাপতিকে দেয়া তাদের অভিযোগপত্রে অভ্যত্তরীণ কোন্দলের প্রকটতা দেখে সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশ দিয়েছেন দ্রুত এসব দ্বন্দ্ব নিরসন করতে।

জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী নিজেও অনেক এলাকার নেতাদের সাথে আলোচনা করেছেন কিভাবে দ্বন্দ্ব সংঘাত মিটিয়ে ফেলা যায়। বিশেষ করে কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী ও সংসদের প্রধান হুইপ আতিকুর রহমান চৌধুরীর সাথে চলমান সংকট নিরসনে প্রধানমন্ত্রী নিজে হস্তক্ষেপ করেছেন বলে একটি বিশেষ সূত্র জানিয়েছে।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আওয়ামী লীগের একজন সভাপতিম-লীর সদস্য বলেছেন, তৃণমূলের নেতারা সভাপতির কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন। এগুলো দেখা হচ্ছে। সাংগঠনিক সম্পাদকদের বলা হয়েছে, দ্রুত সময়ের মধ্যে এগুলো দেখতে। তাছাড়া তৃণমূলের নেতারা অভিযোগ করেছেন, অনেক এমপি এলাকায় যান না এবং ত্যাগী নেতাদের এড়িয়ে এসব এমপি বিএনপি-জামায়াতের সাথে যুক্ত ছিল এমন লোকজনকে দলে আশ্রয় প্রশ্রয় দিয়েছেন। ফলে এলাকায় দল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তিনি জানান, শেখ হাসিনা তৃণমূলের তথ্য আমলে নিয়ে সংশ্লিষ্ট এমপি এবং সিনিয়র নেতাদের সাথে আলোচনা করছেন। দল থেকে আবারও সাংগঠনিক সফর শুরু করা হবে বলে তিনি জানান।

এ বিষয়ে কথা হয় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ। তিনি বলেন, অনেকেই রঙ পরিবর্তন করে আওয়ামী লীগে ঢুকে পড়েছে। এরাই দলে বিশৃঙ্খলা তৈরি করছে। তৃণমূলে থেকে জেলা পর্যন্ত এর বিস্তার। তিনি বলেন, দলের ভেতর ঘাপটি মেরে থাকা এসব বহিরাগতদের খুঁজে বের করে বহিষ্কার করা হবে।

দলীয় সূত্র জানিয়েছে, তৃণমূলের মতামতের উপর এবার অনেকের মনোনয়ন নির্ভর করছে। বিশেষ করে গত ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে যারা প্রথমবারের বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে জনবিচ্ছিন্নতার অভিযোগ অনেক বেশি। এসব অভিযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আগামী এক দুই মাসের মধ্যে যদি এমপিরা এলাকায় ভালো ইমেজ তৈরি করতে না পারেন তাহলে এবার মনোনয়ন পাবেন না।
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীঅক্টোবর - ২০
ফজর৪:৪২
যোহর১১:৪৪
আসর৩:৫১
মাগরিব৫:৩২
এশা৬:৪৪
সূর্যোদয় - ৫:৫৮সূর্যাস্ত - ০৫:২৭
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৪০৭৩.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.