নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, শুক্রবার ১২ জুলাই ২০১৯, ২৮ আষাঢ় ১৪২৬, ৮ জিলকদ ১৪৪০
তাহিরপুর-সুনামগঞ্জ সড়কে চরম দুর্ভোগ
তাহিরপুর (সুনামগঞ্জ) থেকে জাহাঙ্গীর আলম ভূঁইয়া
সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় সম্প্রতি পাহাড়ি ঢলের পানিতে গুরুত্বপূর্ণ তাহিরপুর-সুনামগঞ্জ সড়কের আনোয়রপুর ব্রিজের সংযোগ সড়কটি কিছু অংশ বেশি ভেঙে যায়। এরপর থেকে সিএনজি, লেগুনাসহ বিভিন্ন ধরনের যানবাহন চলাচল এবারেই বন্ধ রয়েছে। যানবাহন বন্ধ থাকায় শিক্ষার্থী, চাকরিজীবী, পর্যটক, ব্যবসায়ীসহ সর্বস্তরের মানুষ চরম দুর্ভোগ মাঝে ভাঙা অংশে পায়ে হেঁটে চলাচল করছে। এদিকে পাহাড়ি ঢলের পানি কমলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের গাফিলতি, দায়িত্বহীনতার কারণে শুরু হয়নি তাহিরপুর-সুনামগঞ্জ সড়কে সরাসরি যান চলাচল ফলে ভোগান্তি কমেনি সড়কে। তাই ভেঙে ভেঙে যাতায়াত করতে হচ্ছে যাত্রীদের। পানি কমে গেলেও ভাঙা সড়কটি দ্রুত সংস্কার না হওয়ায় চরম ক্ষোভ প্রকাশ করছেন চলাচলকারী মানুষজন।

জানা যায়, গত ২৪ জুন থেকে কদিন ভারী বৃষ্টিপাতে ভারতের মেঘালয়ের ভারি বৃষ্টিপাতে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়। নদী দিয়ে নেমে আসা ঢলের অতিরিক্ত পানি প্রবল বেগে প্রবাহিত হয় আনোয়ারপুর ব্রিজের পূর্ব পাশে সড়কের নিচু স্থান দিয়ে পানির তোড়ে ভেঙে গেছে প্রায় ২শ মিটার সড়ক। এরপর থেকে কোনো ধরনের যানবাহন তাহিরপুর উপজেলা সদরে আসছে না।

এদিকে ভাঙা সড়ক মেরামত না করায় বিপাকে পড়েন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। তিনি গত গত রোববার পারিবারিক ভ্রমণে তাহিরপুর উপজেলার টেকেরঘাট এসেছিলেন।

আসার পথে আনোয়ারপুরের ব্রিজ সংযোগ রাস্তার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন থাকার কারণে রাস্তার ভাঙা স্থানে নেমে তাহিরপুর উপজেলা সদরে না এসেই নৌকাযোগে টেকেরঘাটে যান। এসময় সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন থাকার বিষয়টি তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুলসহ দলীয় নেত্রীবৃন্দ মন্ত্রী মহোদয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করলে মন্ত্রী দ্রুত চলাচলের দুর্ভোগের সমাধানের আশ্বাস দেন।

সিএনজি চালক জুবায়ের জানান, বন্যার পর থেকেই তাহিরপুর থেকে সুনামগঞ্জ যাত্রী পরিবহণ বন্ধ করে বসে আছি। গেলেও আনোয়রপুর ব্রিজ পর্যন্ত যেতে পারি। গাড়ি নিয়ে সরাসরি সুনামগঞ্জ যেতে পারছেন না। তাই খুব কষ্টের মাঝে আছি টাকা উপার্জন করতে না পারায়।

পর্যটক শফিউল ইসলাম বলেন, সুনামগঞ্জ থেকে সিএনজি নিয়ে বালিজুরী পর্যন্ত এসেছেন। তারপর ভাঙা স্থানটুকু পায়ে হেঁটে এসে একটি সিএনজি গাড়ি নিয়ে তাহিরপুর আসেন।

এই সড়কটি ভাঙা না থাকলে সহজে গাড়ি নিয়ে উপজেলা সদরে যেতে পারতাম। গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি দ্রুত মেরামত করার দাবি জানান তিনি।

পণ্য পরিবহণের গাড়ি চলাচল না করতে পারায় শত শত ব্যবসায়ীরা পড়ছেন চরম বিপাকে। এসব জানিয়ে ব্যবসায়ী সাদেক আলী বলেন, সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন থাকার কারণে পণ্য পরিবহণের গাড়ি আসতে পারছে না তাহিরপুরে। মালামাল আনতে গেলে খরচের পরিমণ বেশি হয়।

এবিষয়ে তাহিরপুর উপজেলা প্রকৌশলী সাইদুল্লা মিয়া বলেন, জনৈক ঠিকাদার সড়কটির মেরামত কাজ করছিলেন, কাজ চলাকালীন সময় পাহাড়ি ঢলে সড়কটি ভেঙে যায়।

যত দ্রুত সম্ভব সড়কটি মেরামত করে যানবাহন চলাচলের উপযোগী করা হবে।

তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল বলেন, তাহিরপুর-সুনামগঞ্জ সড়কের আনোয়ারপুর ব্রিজ সংযোগ ভাঙার বিষয়টি পরিকল্পনামন্ত্রী মহোদয়কে অবহিত করেছি। তিনি সংস্কারের জন্য আশ্বাস দিয়েছেন।

দ্রুত সংস্কার না হলে এই সড়ক দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে সর্বস্তরের জনসাধারণ চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে আরো হবে।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীনভেম্বর - ২১
ফজর৪:৫৮
যোহর১১:৪৫
আসর৩:৩৬
মাগরিব৫:১৫
এশা৬:৩১
সূর্যোদয় - ৬:১৭সূর্যাস্ত - ০৫:১০
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৪৪৯৯.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.