নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, মঙ্গলবার ২৭ জুলাই ২০২১, ১২ শ্রাবণ ১৪২৮, ১৬ জিলহজ ১৪৪২
উত্তরায় করোনা রোগীর হামলায় ৩ স্বাস্থ্য কর্মী আহত
উত্তরা থেকে মাহফুজুল আলম খোকন
রাজধানীর উত্তরায়, করোনা রোগী কর্তৃক তিন স্বাস্থ্য কর্মীকে ছুরিকাঘাতের ঘটনায় মামলা হওয়ার চার দিনেও উদঘাটন হয়নি হামলায় ব্যবহৃত ইউসিইউতে থাকা চাকুর রহস্য। হামলাকারী ও হামলার শিকার ৮ জনের মধ্যে ৩ জনের অবস্থাই আশঙ্কাজনক।

গত ২২ জুলাই রাত ২টার দিকে উত্তরা ১১নং সেক্টরের গরিবে নেওয়াজ এভিনিউ এ অবস্থিত শিনশিন জাপান হাসপাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র আইসিইউতে সবুজ ষ্টিজ (৩৫) নামে এক করোনা রোগীর ছুরিকাঘাতে হাসপাতালের ২ নার্স ও এক ওয়ার্ডবয়সহ তিন জন আহত হন। এই বিষয়ে উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এদিকে ঘটনার পরে অভিযোক্ত করোনা রোগী সবুজকে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে পুলিশ পাহারায় চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এই বিষয়ে সবুজ ষ্টিজের শ্বশুর যৌতি কস্তা দৈনিক জনতাকে বলেন, ঘটনা কি ভাবে হয়েছে আমি জানি না। বৃহস্পতিবার রাতে আমি ১ লাখ ২ হাজার টাকার ওষুদ কিনে দিয়ে বাড়ি চলে আসি, পথিমধ্যে আমাকে ফোনে যানানো হয় আমার জামাই দুর্ঘটনা ঘটিয়েছে। পরে আমি সকালে এসে জামাইয়ের হাত-পা বাঁধা অবস্থায় দেখতে পাই। পরে আমরা হাসপাতালের বিল পরিশোধ করে সবুজের উন্নত চিকিৎসার জন্য ইউনাইটেড হাসপাতালে নিয়ে আসি। হামলায় ব্যবহৃত চাকু কোথা থেকে আসলো আমরা জানি না, তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সবুজকে বেধড়ক পিটিয়েছে, বর্তমানে সবুজের অবস্থা আশঙ্কাজনক, তার দুই হাতেই অস্ত্রপাচার করা হয়েছে, প্রতিদিন ৪ ব্যাগ করে রক্ত দিতে হচ্ছে। এদিকে শিনশিন জাপান হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি চাকুটি রোগীর আত্মীয় স্বজনের কেউ ফল কাটার জন্য দিয়ে গেছে। এই বিষয়ে হাসপাতালের মহা পরিচালক মোঃ শরিফুল ইসলাম দৈনিক জনতাকে বলেন,রোগীর অবস্থা মুটামুটি ভালোর দিকে থাকায় আইসিইউ থেকে দুএক দিনের মধ্যেই ক্যাবিনে স্থানান্তর করবো বলে রোগীর পরিবারকে জানিয়েছিলাম। রাত ২ টার দিকে আইসিইউতে থাকা স্বাস্থ্য কর্মীর ওপর অতর্কিত হামলা পরিকল্পিত কিনা আমার জানা নেই,তবে হামলায় ব্যবহৃত চাকুটি পুলিশ আলামত হিসেবে জব্দ করেছে। চাকুটির গায়ে কোন একটা সুপার শপের বারকোড রয়েছে,যা দিয়ে পুলিশ চাকুর ক্রেতাকে শনাক্ত করতে পারবে বলেও মনে করেন তিনি। হামলাকারী এবং হামলার শিকার দুই নার্সের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায়,কারোর ই বক্তব্য পাওয়া সম্ভব না হওয়ায় হাসপাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে চাকু থাকার বিষয়টির আসল রহস্য এখনো সকলেরই অজানা।

এই বিষয়ে উত্তরা পশ্চিম থানার ইন্সপেক্টর অপারেশ সুমন চন্দ্র ঘোষ দৈনিক জনতাকে বলেন, ঘটনার বিষয়ে তদন্ত চলছে, আসামি এবং ভিকটিম কারোর সাথেই কথাবলা সম্ভব না হওয়ায় এখনি এই বিষয়ে তেমন কিছুই বলা সম্ভব হচ্ছেনা। হাসপাতালের আইসিইউতে চাকু থাকার বিষয়টি ভালোভাবে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীঅক্টোবর - ২৫
ফজর৪:৪৪
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৪৭
মাগরিব৫:২৮
এশা৬:৪১
সূর্যোদয় - ৬:০০সূর্যাস্ত - ০৫:২৩
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৮৬৬৯.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.