নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, শুক্রবার ৩১ জুলাই ২০২০, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৭, ৯ জিলহজ ১৪৪১
বাগমারায় গ্রামবাসীর স্বেচ্ছাশ্রমে সাঁকো নির্মাণ
রাজশাহী প্রতিনিধি
গত ৩ সপ্তাহ আগে প্রবল বৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলের পানির চাপে রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার দ্বীপপুর ইউনিয়নের লাউবাড়িয়া গ্রামে ফকিনী নদীর তীরে পাউবোর বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধটি ভেঙে যায়। এতে দুই ইউনিয়নের ১০/১২টি গ্রামের সাথে উপজেলা সদরের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। বাঁধের এই ভাঙনের ফলে বাগমারা ও পার্শ্ববর্তী আত্রাই উপজেলার বেশ কিছু বিলের মাছ ও ফসলি জমির ব্যাপক ক্ষতি হয়। এসময় বাড়তে থাকে গ্রামবাসীর দুর্ভোগ।

গ্রামবাসীরা জানায়, ভাঙনের প্রায় তিন সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও ভাঙনের স্থানে নৌকা বা ্আড় দিয়ে পারাপারের কোনো উদ্যোগ নেয়নি ইউনিয়ন পরিষদ। ফলে এই বাঁধের উপর দিয়ে প্রায় ১০/১২টি গ্রামের লোকজনের যাতাযাত বন্ধ হয়ে গেছে। এখন কোরবানি জমে ওঠবে। বাঁধের এই ভাঙনের কারণে বাঁধের আশপাশে অন্তত চারটি ছোট বড় হাটে গরু ছাগলসহ অন্যান্য পণ্য সামগ্রী নিয়ে যেতে পারছে না গ্রামবাসী।

কৃষকরা জানান, এই ভাঙনের কারণে আমরা চরম বিপদের সম্মুখীন হয়েছি। আমরা কোরবানির পশু বিক্রি করতে পারছি না। অন্যান্য পণ্য হাটে নিতে পারছি না। এই বেকায়দা অবস্থায় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা পরিষদে গিয়ে কোনো কূলকিনারা না পেয়ে আমরা নিজেরাই সাঁকো নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছি। গত বুধবার ভাঙন কবলিত স্থানে গিয়ে দেখা যায়, সেখানে প্রায় শতাধিক গ্রামবাসী সাঁকো নির্মাণে নিয়োজিত হয়েছে। এসব কাজের তদারকি করছেন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান বিকাশ চন্দ্র ভৌমিক। তিনি জানান, ঈদের আগেই এখানে আমরা যোগাপযোগ স্থাপন করতে চাই। গ্রামাবসীরা যে যার মতো বাঁশ কাঠ ও শ্রম দিয়ে আমাদের সহযোগিতা করছে। তিনিসহ কয়েকজন গ্রামবাসী জানান, এখানে অস্থায়ী পারাপারের জন্য উপজেলা পরিষদ থেকে একটি নৌকা দেয়া হলেও সেটি দুই দিনের মাথায় আকেজো হয়ে পড়ে আছে।

এই আবস্থায় স্থানীয় কয়েকজন নৌকার মাঝি এখানে ১০ টাকা করে নিয়ে পারাপার শুরু করে।

এদিকে বিভিন্ন খাল বিলের মুখে বীজ কালভার্টের মুখ বন্ধ করায় নামছে না বন্যার পানি। অপরদিকে কয়েক দিনের টানা বৃষ্টির কারণেই উপজেলার ফকির রানী নদী ও বারানই নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। উপজেলার অধিকাংশ ইউনিয়নে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি লক্ষ্য করা গেছে। গত এক সপ্তাহ পূর্বে নওগাঁর মান্দা উপজেলার পানি উন্নয়ন বোর্ডের টেংরা এলাকার বাঁধটি ভেঙে রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলা ও বাগমারা উপজেলার বিভিন্ন এলাকা বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়। ওই সময় বাগমারা উপজেলার দুই একটি ইউনিয়নের বাড়িঘর, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, পানবরজ, খেতের ধান, পাট, পেঁপে, ভুট্টাখেতসহ বিভিন্ন ফসলের ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হয়।

এতে দুর্ভোগে পড়ে যান সাধারণ লোকজন। এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরিফ আহম্মেদ জানান, বিপদকালীন সেখানে একটি নৌকা দেয়া হয়েছে। সেটি কেন চলছে না বিষয়টি খোঁজ নেয়া হবে। তবে সেখানে সাঁকো নির্মাণে আমরা গ্রামবাসীর পাশে আছি। অতি দ্রুত সাঁকোটি নির্মাণ করা হবে বলে তিনি সাংবাদিকদের জানান।
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীআগষ্ট - ১১
ফজর৪:১১
যোহর১২:০৪
আসর৪:৪০
মাগরিব৬:৩৮
এশা৭:৫৬
সূর্যোদয় - ৫:৩২সূর্যাস্ত - ০৬:৩৩
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
১২৫৯৭.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.