নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, শুক্রবার ৩১ জুলাই ২০২০, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৭, ৯ জিলহজ ১৪৪১
জনতার মত
কোরবানির আনন্দ উদযাপন হোক প্রতিবেশীদের নিয়ে
জুবায়ের আহমেদ
আল্লাহতায়ালা সামর্থ্যবানদের জন্য কোরবানি ফরজ করেছেন। পবিত্র ঈদুল আজহা আসন্ন। সামর্থ্যবান ব্যক্তিরা ইতোমধ্যেই কোরবানির পশু ক্রয় করা শুরু করেছেন। তবে বিদ্যমান করোনা সংকটের কারণে অর্থনৈতিক দুরবস্থার ফলে গতবারও যারা কোরবানি দিয়েছেন তাদের অনেকেই এবার কোরবানি দেবেন না এবং দিবেন কি দিবেন না, এমন দ্বিধাদ্বন্দ্বেও আছেন অনেকে। আবার অনেকেই হয়তো সামাজিক মর্যাদা অক্ষুণ্ন রাখার জন্য যেভাবেই হোক কোরবানি করবেন। কিন্তু যারা একেবারেই অপারগ, তারা কোরবানি করা থেকে বিরত থাকবেন। অর্থনৈতিক সমস্যার মাঝে কোরবানি করা আবশ্যকও নয়।

বৈশ্বিক মহামারী কোভিড-১৯ বাংলাদেশে হানা দেয়ার পর থেকেই মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত হয়েছে। দীর্ঘদিনের লকডাউনের সময় মানুষ কর্মহীন হয়ে ঘরে অবস্থান করেছে। চলতি জুলাই মাসের শুরু থেকে সরকার লকডাউন তুলে দিলে মানুষ স্বাভাবিক কাজকর্ম চালু করলেও অর্থনৈতিক যে সংকট তৈরি হয়েছে তা থেকে মুক্তি পেতে দীর্ঘ সময় লাগবে। করোনাকালীন সময়ে পবিত্র ঈদুল ফিতর অনেকটা নীরবেই উদযাপিত হয়েছে। ঈদুল ফিতরে নতুন জামা কেনার হিড়িক পড়লেও এবার ছিল ব্যতিক্রম। পবিত্র ঈদুল আজহায় নতুন জামা কেনার তাগাদা না থাকলেও কোরবানি করতে হয়, যেখানে শরিকে কোরবানি দিলেও নূ্যনতমপক্ষে ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকার প্রয়োজন, বর্তমান দুরবস্থায় যা অনেকের নিকট অসাধ্য ব্যাপার।

আমাদের সমাজ ব্যবস্থায় একটি অত্যন্ত ভালো বিষয় যে, প্রতি বছর কোরবানি করার পর স্ব-স্ব গোত্র ও প্রতিবেশীদের মাঝে কোরবানির মাংস বিতরণ করা হয়। যদিও এটি শুধুমাত্র সামাজিক নয়, ধর্মীয় বিধানও বটে। অন্যবার যেসকল মানুষজন কোরবানি দিতে পারতো না, তারা এবারও হয়তো দিতে পারবে না। আবার বিদ্যমান সংকটের কারণে গত বছর কোরবানি দেয়া অনেকেই এবার কোরবানি দিতে পারবে না। যাদের আমরা মধ্যবিত্ত বা নিম্নমধ্যবিত্ত বলি, তাদের মধ্যে যারা এবার কোরবানি দিতে পারবে না। তাদের সাথে স্বেচ্ছায় নিজ উদ্যোগে কোরবানির আনন্দ ভাগাভাগি করে নেয়া এবার বেশি জরুরি।

প্রতিবেশীর হক সম্পর্কে পবিত্র কোরান ও হাদিসে সুস্পষ্টভাবে বর্ণনা করা হয়েছে। হযরত ইবনে আব্বাস রা. থেকে বর্ণিত, রাসুল (সা.) বলেছেন, ওই ব্যক্তি মুমিন নয় যে পেটপুরে খায় অথচ তার পাশের প্রতিবেশী না খেয়ে থাকে। (মুসনাদে আবু ইয়ালা, হাদীস ২৬৯৯; আল আদাবুল মুফরাদ, হাদীস ১১২)। রাসুল (সা.) বলেছেন, জিব্রাঈল (আ.) আমাকে প্রতিবেশীর হকের ব্যাপারে এত বেশি তাকিদ করেছেন যে, আমার কাছে মনে হয়েছে প্রতিবেশীকে মিরাজের অংশিদার বানিয়ে দেয়া হবে। (সহীহ বুখারী ৬০১৪; সহীহ মুসলিম ২৫২৪)। করোনা মহামারীর সময়ে অন্যান্য সময়ের চেয়েও বেশি সুদৃষ্টি দিতে হবে দরিদ্র প্রতিবেশীদের দিকে।

আগামীকাল বাংলাদেশে পবিত্র ঈদুল আজহা (কোরবানি ঈদ) উদযাপিত হবে। কোরবানির পশু যবাই করা হবে ঈদের দিন থেকেই। আমরা যেন আমাদের অসামর্থ্যবান প্রতিবেশীদের হক তাদের পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে বুঝিয়ে দেই। তাদের নিয়ে আনন্দের সাথে ঈদ উদযাপন করতে যেনো কার্পণ্য না করি। করোনা সংকটকালীন সময়ে অসামর্থ্যবান প্রতিবেশীদের নিয়ে পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপনের মাধ্যমে দেশব্যাপী মানবতার উৎকৃষ্ট উদাহরণ তৈরি হোক আরো একবার।

জুবায়ের আহমেদ : লেখক

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীআগষ্ট - ১১
ফজর৪:১১
যোহর১২:০৪
আসর৪:৪০
মাগরিব৬:৩৮
এশা৭:৫৬
সূর্যোদয় - ৫:৩২সূর্যাস্ত - ০৬:৩৩
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
১২৫৬০.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.