নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, শনিবার ১০ আগস্ট ২০১৯, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ৮ জিলহজ ১৪৪০
সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৯
জনতা ডেস্ক
সড়ক দুর্ঘটনায় বিভিন্ন স্থানে ৬ জন নিহত হয়েছে। জনতা প্রতিনিধি ও এফএনএসের পাঠানো খবর_

এড সড়ক

নাটোরে স্বামী নিহত অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীসহ আহত ২

এফএনএস

বড়াইগ্রামে দুই মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে মেহেদী হাসান (২৭) নামে একজন নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন তার অন্তসত্ত্বা স্ত্রীসহ দুইজন। গতকাল শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে বনপাড়ার গোধরা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। মেহেদী যশোর জেলার শার্শা আমলাই গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে। স্ত্রী রোকসানা বেগম (২২) একই জেলার সাতগোগা গ্রামের হামজার আলীর মেয়ে। তাকে বনপাড়া পাটোয়ারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সংঘর্ষে অন্য মোটরসাইকেল আরোহী বাবু হোসেনকে (৩০) আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি একটি ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের

ফোরম্যান হিসেবে কর্মরত ছিলেন। বনপাড়া হাইওয়ে থানার এসআই মাহফুজুর রহমান জানান, ঈদের ছুটিতে কর্মস্থল টাঙ্গাইল থেকে মেহেদী তার অন্তসত্ত্বা স্ত্রীকে নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। অন্যদিকে বাবু মেহেরপুর থেকে নাটোরের নলডাঙ্গায় নিজ বাড়িতে ফিরছিলেন। এ সময় ওই স্থানে এলে মেহেদী ও বাবুর মোটরসাইকেল দুটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে পৃথক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

এফএনএস

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় তিন মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। গতকাল শুক্রবার সকালে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর ও গাজীপুরের কালিয়াকৈরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- নাটোরের আটদিঘা এলাকার বাসিন্দা ঢাকায় নৌবাহিনীর সদর দফতরের কর্পোরাল নাজমুল হোসেন (২৭), মির্জাপুর উপজেলার হারিয়া গ্রামের সাবেক চেয়ারম্যান মো. ছবুর মিয়ার স্ত্রী সুফিয়া বেগম (৬০) ও পার্শ্ববর্তী বাসাইল উপজেলার কাঞ্চনপুর গ্রামের শামীম আল মামুনের মেয়ে সামিয়া আক্তার (১০)। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, গতকাল শুক্রবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে মোটরসাইকেলে ঢাকা থেকে নাটোর যাচ্ছিলেন নাজমুল হোসেন ও তার সহকর্মী কর্পোরাল জাহাঙ্গীর হোসেন। পথে মির্জাপুর উপজেলার গোড়াই এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মোটরসাইকেলটি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। এ সময় পেছন থেকে একটি ট্রাক নাজমুলকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এছাড়া সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নানার বাড়ি মির্জাপুর উপজেলার মুশুরিয়াঘোনা থেকে চাচা শাহিন মিয়ার সঙ্গে মোটরসাইকেলে বাড়িতে যাচ্ছিল সামিয়া আক্তার। পথে মহাসড়কে মির্জাপুর উপজেলার কদিমধল্যা বাসস্ট্যান্ডে পেছন থেকে একটি বাস মোটরসাইকেলকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই সামিয়া মারা যায়। গুরুতর অবস্থায় আহত চাচা শাহিন মিয়াকে (৩৫) কমির্জাপুরের কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্য দুর্ঘটনাটি ঘটে মহাসড়কের কালিয়াকৈরে সকাল ১০ টার দিকে। ছেলে সোহাগ মিয়ার সঙ্গে মোটরসাইকেলে বাড়ি যাচ্ছিলেন সুফিয়া বেগম। পথে ওই এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মোটরসাইকেল থেকে দুইজন রাস্তায় ছিটকে পড়েন। এ সময় উত্তরাঞ্চলগামী বাসের চাপায় ঘটনাস্থলেই সুফিয়া মারা যান। দুর্ঘটনায় আহত সোহাগ মিয়াকে মির্জাপুরের ন্যাশনাল ক্লিনিকে চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়েছে। মির্জাপুরের গোড়াই হাইওয়ে থানার ওসি রাইজুল ইসলাম জানান, নিহতদের মধ্যে দুইজনের লাশ হাইওয়ে থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। এ ছাড়া কর্পোরাল নাজমুল হোসেনের লাশ ময়না তদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

চট্টগ্রামে পিকআপ চাপায় পোশাককর্মী নিহত

এফএনএস

চট্টগ্রামে রাস্তা পারাপারের সময় পিকআপ ভ্যানের চাপায় এক পোশাক শ্রমিক নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছে আরও চারজন। গতকাল শুক্রবার সকালে নগরীর আকবর শাহ থানার কালীরহাট এলাকায় এ হতাহতের ঘটনা ঘটে বলে পুলিশ জানায়। নিহত পারভীন আক্তার (২৮) সাগরিকা এলাকায় একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করতেন। তার বাসা কালীর হাট এলাকায়। প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই শীলব্রত বড়ুয়া জানান, কর্মস্থলে যাওয়ার জন্য রাস্তা পারাপারের সময় দ্রুতগামী একটি পিককাপ এসে চাপা দেয় শ্রমিকদের। এতে পারভীনসহ মোট পাঁচজন চাপা পড়েন জানিয়ে তিনি বলেন, আহতদের হাসপাতালে আনা হলে চিকিৎসক পারভীনকে মৃত ঘোষণা করেন। অন্য চারজনকে হাসপাতালে ক্যাজুয়ালিটি ওয়ার্ডে ভর্তি করানো হয়েছে। এদিকে দুর্ঘটনার পর চালকসহ পিকাপটি আটক করা হয়েছে বলে জানান আকবরশাহ থানার এসআই কামাল উদ্দিন।

শেরপুরে ট্রাক চাপায় কলেজ শিক্ষার্থী নিহত : আহত ১

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি

বগুড়ার শেরপুরে ট্রাকের চাপায় এক কলেজ ছাত্র নিহত হয়েছেন। নিহত ওই শিক্ষার্থীর নাম মো. সোহান হাসান (২২)। তিনি পৌরশহরের শান্তিনগর এলাকার মো. নুরুন্নবীর ছেলে। গতকাল শুক্রবার বিকেল চারটার দিকে উপজেলার শেরপুর-রানীরহাট সড়কের আড়ংশাইল নামক স্থানে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সোহাগ (২০) নামে তাঁর আরেক বন্ধুও গুরুতর আহত হয়েছেন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে তাঁকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেঙ্ েনেয়া হয়। কিন্তু সেখানে অবস্থার অবনতি ঘটলে তাৎক্ষণিক বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। শেরপুর ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন কর্মকর্তা মো. রতন হোসেন এই তথ্য নিশ্চিত করে জানান, স্থানীয় শেরপুর সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থী মো. সোহান তাঁর বন্ধু সোহাগকে সঙ্গে নিয়ে মোটরসাইকেল যোগে রানীরহাটে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে উক্ত স্থানে পৌঁছালে একইদিক থেকে আসা দ্রুতগতির একটি চালবোঝাই ট্রাক (ঢাকা মেট্রো ড-১১-০২২৩) মোটরসাইকেলটিকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই সোহান হাসান মারা যান। আর গুরুতর আহত সোহাগকে উদ্ধার করে শজিমেক হাসপাতালে পাঠানো হয় বলে এই কর্মকর্তা জানান।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে শেরপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রুম্মান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, দুর্ঘটনার পরপরই চালক-হেলপার পালিয়ে যাওয়ায় তাদের আটক করা সম্ভব হয়নি। তবে ঘাতক ট্রাকটিকে আটক করা হয়েছে। উক্ত ঘটনায় একটি মামলা নেয়া হবে বলে এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান।

লালপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ২ মোটরসাইকেলরোহী নিহত

বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলা সীমা সংলগ্ন লালপুরের গুদড়ায় সকাল সাড়ে নয়টার দিকে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয় মোটরসাইকেলরোহী মেহেদী হাসান (২৫) ও বাবু (৩০)। মেহেদী হাসান যশোর জেলার শার্শা থানার আলমাই গ্রামের রফিকুল ইসলামের পুত্র এবং টাঙ্গাইল 'ডওরপ' বেসরকারী সংস্থার কর্মকর্তা ছিলেন। বাবু নাটোর জেলাধীন নলডাঙ্গা থানার বিলজোয়ারী গ্রামের আলী আকবরের পুত্র ও মেহেরপুর আসিফ এন্টারপ্রাইজের গাড়ী চালক ছিলেন। মেহেদী হাসানের চিকিৎসাধীন আহত স্ত্রী অন্তসত্বা রুখসানা পারভীন (২২) জানান, স্বজনদের সাথে ঈদ করার জন্য স্বামীর কর্মস্থল টাঙ্গাইল থেকে মোটরসাইকেলযোগে যশোরের দিকে রওনা হই। পথিমধ্যে দুর্ঘটনায় পতিত হই।

নিহত বাবুর ভাই আবুল হোসেন জানান, ঈদ উপলক্ষে কর্মস্থল মেহেরপুর থেকে বাবু মোটরসাইকেলযোগে বাড়ী ফেরার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হলে প্রথমে তাকে নাটোর সদর হাসপাতালে ও পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় শুক্রবার দুপুর সাড়ে বারটার দিকে মুত্যুবরণ করেন।

দুর্ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী গুদড়া গ্রামের আমজাদ হোসেন ও সালমা বেগম জানান, নাটোরগামী সবুজ রঙের ডিসকভার মোটরসাইকেল একই দিকে চলমান মিনি ট্রাককে ওভারটেক করার সময় বীপরীত মুখ থেকে আসা দুই আরোহী বিশিষ্ট লাল রঙের টিভিএস মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে দুই মোটরসাইকেলের তিনজনই গুরুতর আহত হন। পরে দ্রুত তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বনপাড়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. দেলোয়ার হোসেন জানান, ঈদে নিহতরা কর্মস্থল থেকে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ী ফেরার পথে গুদড়াতে পৌছলে তাদের গাড়ীর মুখোমুখী সংঘর্ষ ঘটে। এলাকাবাসী আহত স্বামী-স্ত্রী মেহেদী হাসান ও রুখসানা পারভীনকে বনপাড়া পাটোয়ারী হাসপাতালে নিয়ে আসলে মেহেদী হাসান মৃত্যুবরণ করেন ও রুখসানা পারভীনকে ভর্তি করা হয়। এছাড়া বাবু রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছে। সংঘর্ষে উভয় মোটরসাইকেলের ব্যাপক ক্ষতিসাধন হয়েছে। সেগুলো থানায় জব্দ করা হয়েছে। নিহতদের স্বজনেরা কেহই থানায় এ পর্যন্ত না আসায় কোনো মামলা হয়নি এবং মেহেদী হাসানের লাশ থানায় আনা হয়েছে।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীসেপ্টেম্বর - ১৬
ফজর৪:২৯
যোহর১১:৫৪
আসর৪:১৯
মাগরিব৬:০৫
এশা৭:১৮
সূর্যোদয় - ৫:৪৫সূর্যাস্ত - ০৬:০০
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৯১৫৯.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.