নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১১ অক্টোবর ২০১৮, ২৬ আশ্বিন ১৪২৫, ৩০ মহররম ১৪৪০
সিংগাইরে সারা বছর পাওয়া যায় আখ
সিংগাইর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি
অনুকূল আবহাওয়া ও সঠিক পরিচর্যায় এ বছর সিংগাইর উপজেলায় আখের বাম্পার ফলন হয়েছে। বছরের প্রায় ৮-১০ মাসই এখানে পাওয়া যায় পরিপক্ব আখ। এখন চলছে আখের ভরা মৌসুম।

সুদীর্ঘকাল ধরে এখানকার বেলে- দোআঁশ মাটিতে ব্যাপক আখের আবাদ হয়ে আসছে। এক দশক আগেও আখ থেকে গুড় উৎপাদনই ছিল এখানকার কৃষকদের প্রধান অর্থকারী ফসল। সময়ের বিবর্তে এখন আর গুড় তৈরির আখ তেমনটা চাষ হয় না। সে স্থান দখল করেছে মুখে চিবিয়ে খাওয়ার উপযোগী উন্নতমানের বোম্বাই গেন্ডারি (আখ)। সিংগাইরে উৎপাদিত আখ/গেন্ডারি স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে পার্শ্ববর্তী সাভার, কেরানীগঞ্জ ও রাজধানী ঢাকা শহরে দেদার বিক্রি হচ্ছে।

আর্থিকভাবেও লাভবান হচ্ছেন এ এলাকার আখ চাষিরা। বছরে প্রায় অর্ধশত কোটি টাকার আখ এ অঞ্চলে উৎপাদন হয়।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছর ৭শ ১০ হেক্টর বা ৫ হাজার ৫শ বিঘা জমিতে অমৃত, বোম্বাই ও সাতাশ জাতের আখ আবাদ হয়েছে। ফলনও হয়েছে ভালো। আখ চাষপ্রবণ এলাকা বায়রা ইউনিয়নের সানাইল গ্রামের কৃষক আয়ুব আলী বেপারী (৬০) বলেন, এক বিঘা জমিতে ৩২শ থেকে ৩৬শ চাড়া রোপণ করতে হয়। বছর শেষে গড়ে বিঘাপ্রতি ১১-১২ হাজার পরিপক্ব আখ পাওয়া যায়। যার বাজার মূল্য লাখ টাকার উপরে। তিনি আরো বলেন, একবার চাড়া লাগালে তিন বছর ঐ জমি থেকে ভালো ফলন পাওয়া যায়।

এ বছর তিনি ২ বিঘা জমিতে অমৃত জাতের আখ আবাদ করেছেন। প্রতিটি আখ ১৪-১৫ ফুট লম্বা হয়েছে। চাড়াভাঙ্গা গ্রামের কৃষক আব্দুল আজিজ জানান, উত্তরাধিকার সূত্রে আমরা আখ চাষের সঙ্গে জড়িত। যুগ যুগ ধরে বাপ-দাদারা গুড় তৈরির আখ চাষ করলেও ২০০৮ সাল থেকে চুইং টাইপ গেন্ডারির আবাদ করছি। এ বছর ৬ বিঘা জমিতে অমৃত ও বোম্বাই জাতের আখ লাগিয়েছি। ফলনও হয়েছে বাম্পার।

জামালপুর বস্নকের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. সেকান্দার আলী বলেন, আখ চাষপ্রবণ এ এলাকায় প্রায় সাড়া বছর পরিপক্ব আখ পাওয়া যায়। খরচ বাদে বিঘাপ্রতি ৬০-৭০ হাজার টাকা লাভ হওয়ায় এখানকার কৃষকরা আখ চাষের দিকে ঝুঁকছে।

তিনি আরো বলেন, সমপরিমাণ জমিতে বছরে তিন বার ধান চাষ করে যে লাভ হয় আখ থেকে তার দ্বিগুণ টাকা পাওয়া যায়। সাহরাইল বাজারের আখ বিক্রেতা মনির হোসেন বলেন, ৩৫ হাজার টাকা দিয়ে আধা বিঘা জমির আখ ক্রয় করেছি। অর্ধেক বিক্রি করেই চালান উঠে এসেছে। সবগুলো বিক্রি করলে দ্বিগুণ লাভ হবে বলে তিনি জানান।

সরেজমিনে দেখা গেছে, সিংগাইর পৌর সদরের আজিমপুর, বিনোদপুর, বায়রা ইউনিয়নের সানাইল, চারাভাঙ্গা, জামালপুর, সৌরভপুর, গ্যাড়াদিয়া, নয়াবাড়ি, তালেবপুর ইউনিয়নের মজলিসপুর, জামশা ইউনিয়নের উত্তর জামশা, দক্ষিণ জামশা, মাটিকাটা, চান্দহর ইউনিয়নের বৈন্যা, আটিপাড়া, চর আটিপারা, ধল্লা ইউনিয়নের মেদুলিয়া, কামুড়া, নয়াপাড়া ও চর উলাইল গ্রামে ব্যাপক আখের আবাদ হয়েছে। আখ চাষ পাল্টে দিয়েছে এ উপজেলার হাজারো কৃষক ও বেপারীর ভাগ্যের চাকা।

তবে আখের চাষের সাথে জড়িত অনেক চাষিরা বলেন, এ অঞ্চলে এখন আর আখের রস থেকে গুড় উৎপাদন করছেন কৃযকরা। অল্প পরিশ্রমে লাভ বেশি হওয়া উন্নত জাতের মুখে খাওয়ার আখ চাষ করেছেন তারা।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীনভেম্বর - ১০
ফজর৫:০৮
যোহর১১:৫১
আসর৩:৩৭
মাগরিব৫:১৬
এশা৬:৩৩
সূর্যোদয় - ৬:২৯সূর্যাস্ত - ০৫:১১
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৩৩৭৬.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.