নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১১ অক্টোবর ২০১৮, ২৬ আশ্বিন ১৪২৫, ৩০ মহররম ১৪৪০
খুলনায় রায়ের পক্ষে-বিপক্ষে মিছিল আহত ৭
খুলনা ব্যুরো
বর্বরোচিত ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায়কে কেন্দ্র করে খুলনায় পক্ষে-বিপক্ষে মিছিলে সাতজন আহত হয়। গতকাল বুধবার দুপুরে রায় ঘোষণার পর খুলনা জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ সন্তোষ প্রকাশ করে আনন্দ মিছিল করে। অপরদিকে রায়ে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর ও বিএনপি নেতা

আবদুস সালাম পিন্টুসহ ১৯ জনের মৃত্যুদণ্ড ও বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান (বর্তমানে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান) তারেক রহমানসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়ার প্রতিবাদে খুলনা জেলা যুবদল ও ছাত্রদল বিক্ষোভ-মিছিল করে।

শান্তিধাম মোড় এলাকায় মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি এস এম একরামুল হক হেলালের নেতৃত্বে একটি বিক্ষোভ মিছিল হয়। খুলনা মহানগরীর সিটি কলেজের সামনে থেকে জেলা যুবদল ও ছাত্রদল মিছিল নামিয়ে পিটিআই মোড়ের দিকে যাওয়ার পথে মিছিলে হামলার ঘটনা ঘটে। ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয় ছাত্রলীগ ও মিছিলকারীদের সঙ্গে। এসময় যুবদল ও ছাত্রদলের সাতজন আহত হন।

আহতরা হলেন- জেলা যুবদলের ভাইস প্রেসিডেন্ট শেখ কচি, সাধারণ সম্পাদক ইবাদুল হক রুবায়েদ, দফতর সম্পাদক জিএম রাসেল, যুবদল নেতা হেমায়েত রশিদ, জেলা ছাত্রদলের ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. মাসুম, সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম ও মহানগর ছাত্রদলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক জাফর ইকবাল।

জেলা যুবদলের দফতর সম্পাদক জিএম রাসেলের দাবি, তাদের মিছিলে পুলিশের সামনে ছাত্রলীগ লাঠিসোঁটা, রড ও অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এতে সাত নেতা-কর্মী আহন হন। তাদের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। তবে খুলনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ুন কবীরের দাবি, যুবদল ও ছাত্রদলের মিছিলে কোনো হামলার ঘটনা বা কেউ আহত হয়নি।

মহানগর আওয়ামী লীগের অফিসের সামনে থেকে আনন্দ-মিছিল বের হয়ে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এতে খুলনা সিটি করপোরেশনের (কেসিসি) মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক এবং খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য মিজানুর রহমান মিজানসহ ছাত্রলীগ ও আওয়ামী লীগের নেতারা অংশ দেন। মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে আওয়ামী লীগ নেতারা ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন। এইসঙ্গে তারা বলেন, হামলার যে প্ল্যানার বা মাস্টারমাইন্ড, তার শাস্তি হওয়া উচিত ছিল সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড ।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীনভেম্বর - ১০
ফজর৫:০৮
যোহর১১:৫১
আসর৩:৩৭
মাগরিব৫:১৬
এশা৬:৩৩
সূর্যোদয় - ৬:২৯সূর্যাস্ত - ০৫:১১
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৩৩৩০.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.