নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১২ অক্টোবর ২০১৭, ২৭ আশ্বিন ১৪২৪, ২১ মহররম ১৪৩৯
দিল্লীর কাছেই পাকিস্তানের পরমাণু ঘাঁটি উদ্বেগে ভারত
জনতা ডেস্ক
পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে বৈরীতা কোনও নতুন বিষয় নয়। ২ দেশের জন্মের পর থেকেই কাশ্মির, সীমান্ত উত্তেজনা, জঙ্গিবাদ ও গুপ্তচরবৃত্তিসহ নানা ইস্যুতে বিবাদে জড়িয়েছে তারা। একে অন্যকে ঘায়েল করতেই মরিয়া ভারত-পাকিস্তান।

সম্প্রতি মার্কিন চাপে কিছুটা বিপাকে পড়লেও পিছপা হয়নি পাকিস্তান। এমনই পরিস্থিতিতে ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দাদের হাতে এসেছে এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। ওই রিপোর্ট মোতাবেক, রাজধানী নয়াদিলি্লর কাছেই গোপন সুড়ঙ্গ তৈরি করছে পাক সেনা। ওই সুড়ঙ্গে থাকবে পারমাণবিক মিসাইল ও বোমা। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী, প্রায় ১৪০টি পরমাণু বোমা তৈরি করে ফেলেছে পাকিস্তান। তবে এতেই ক্ষান্ত না থেকে আরও বোমা বানাচ্ছে ওই দেশ। নিশানায় যথারীতি ভারত। জানা গেছে, পাকিস্তানের মিয়ানওয়ালি নামের জায়গায় পরমাণু অস্ত্রঘাঁটি তৈরি করা হচ্ছে। অমৃতসর থেকে ওই জায়গার দূরত্ব প্রায় ৩৫০ কি.মি। উদ্বেগজনকভাবে মিয়ানওয়ালি থেকে দিলি্লর দুরত্ব মাত্র ৭৫০ কিমি। ফলে সেখান থেকে মিসাইল ছুড়লে মুহূর্তের মধ্যে তা দিলি্লতে আঘাত হানবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে পেশ করা গোয়েন্দাদের এক রিপোর্টে বলা হয়েছে, ইতোমধ্যে পাক পরমাণু ঘাঁটির কাজ অনেকটাই এগিয়ে গেছে। বিমানহানা থেকে বাঁচাতে মাটির নিচে তিনটি সুড়ঙ্গে তৈরি করা হচ্ছে। সেখানে মোতায়েন করা হবে পারমাণবিক বোমা বহনে সক্ষম ব্যালিস্টিক মিসাইল। সুড়ঙ্গগুলিকে যুক্ত করেছে বেশ কয়েকটি সংযোগকারী সুড়ঙ্গ। ওই ঘাঁটিতে ১২ থেকে ২৪টি পারমাণবিক অস্ত্র মজুত রাখা যাবে বলেও মনে করা হচ্ছে।

যদিও ভারতের দাবি, সম্মুখ সমরে দেশটির সামনে টিকতে পারবে না ইসলামাবাদ। ফলে চোরাগোপ্তা হামলা ও জঙ্গিবাদের আশ্রয় নিয়েছে তারা। সীমান্তে সংঘাত শুরু হলে কৌশলগত পারমাণবিক মিসাইল হামলার হুমকিও একাধিকবার দিয়েছে পাকিস্তান।

এবার দিলি্লর কাছেই পরমাণু ঘাঁটি বানিয়ে কড়া বার্তাই দিল পাকিস্তান। তবে পরিস্থিতি বুঝে তৈরি ভারতও।

কয়েকদিন আগেই পাকিস্তানের পরমাণু অস্ত্রভা-ার ধ্বংস করতে সক্ষম ভারত বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন এয়ার চিফ মার্শাল বি এস ধানোয়া। শুধু পাকিস্তানের ট্যাকটিক্যাল পরমাণু অস্ত্রই নয়, যে কোনও গোপন অস্ত্রভা-ার বা পরিকাঠামো টার্গেট করে ধ্বংস করতেও সেনা প্রস্তুত বলেও জানান তিনি।
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীফেব্রুয়ারী - ২৩
ফজর৫:১০
যোহর১২:১৩
আসর৪:২১
মাগরিব৬:০১
এশা৭:১৪
সূর্যোদয় - ৬:২৬সূর্যাস্ত - ০৫:৫৬
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৩৩৪৪.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.