নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ অক্টোবর ২০২১, ২৯ আশ্বিন ১৪২৮, ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩
বারবার পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তনে ক্ষোভ সাত কলেজ শিক্ষার্থীদের
স্টাফ রিপোর্টার
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত রাজধানীর সরকারি সাত কলেজের স্নাতক শ্রেণির বিভিন্ন পরীক্ষার তারিখ বারবার পরিবর্তন করা হয়। এতে ক্ষোভ জানিয়েছেন অধিভুক্ত এসব কলেজের শিক্ষার্থীরা। তাদের অভিযোগ, চলতি অক্টোবর মাসের ২ তারিখ থেকে সাত কলেজের স্নাতক প্রথম বর্ষ ও ৪ অক্টোবর থেকে স্নাতক তৃতীয় বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষা শুরু হয়েছে। এরইমধ্যে পরীক্ষার সময়সূচী তিনবার পরিবর্তন করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। জানা যায়, চলতি মাসের (অক্টোবর) ২ ও ৪ তারিখ থেকে শুরু হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের অনার্স প্রথম ও তৃতীয় বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষা। এর মধ্যেই এই দুই পরীক্ষারই সময়সূচি পরিবর্তন করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। অনার্স প্রথম বর্ষের প্রকাশিত সময়সূচির ১২, ১৭ ও ২৭ অক্টোবরের পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন করে যথাক্রমে ২০, ২৫ ও ২৮ নভেম্বর করা হয়েছে। আর অনার্স তৃতীয় বর্ষের প্রকাশিত সময়সূচির ১৩, ২০ ও ২৩ অক্টোবরের পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন করে যথাক্রমে ৯, ২২ ও ১৫ নভেম্বর করা হয়েছে। শুধু স্নাতকই নয়, পরিবর্তন করা হয়েছে স্নাতকোত্তর শ্রেণির সময়সূচিও। মাস্টার্স প্রথম পর্ব ১২ অক্টোবরের পরীক্ষা প্রথম দফায় পরিবর্তন করে ২০ অক্টোবর করা হয়। একই পরীক্ষা আবার দ্বিতীয় দফায় পরিবর্তন করে ২৬ নভেম্বর থেকে শুরুর তারিখ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া মাস্টার্স শেষ পর্ব ১৪ অক্টোবরের পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন করে ২৫ অক্টোবর করা হয়েছে। ভুক্তভোগী ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী শাখাওয়াত হোসেন বলেন, একমাসে পরীক্ষা শেষ হওয়ার কথা ছিল। বারবার তারিখ পরিবর্তন করে এখন দুই মাসে শেষ হবে পরীক্ষা। একমাসের জন্য মেস ভাড়া নিয়েছিলাম। এখন আরও এক মাসের জন্য ভাড়া নিতে হবে। ইডেন মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী রেখা আক্তার বলেন, আমাদের প্রথম তিনটি পরীক্ষা হয়েছে সাতদিনে, এখন তারিখ পরিবর্তন করায় বাকি পরীক্ষা দিতে আরও এক মাস লাগবে। আগে থেকেই সুন্দর একটা রুটিন করতে পারতো। এভাবে বারবার তারিখ পরিবর্তনে আমাদের ভোগান্তিতে পড়তে হয়। এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বাহলুল হক চৌধুরী বলেন, ঢাকা কলেজ অধ্যক্ষ পরীক্ষা পেছাতে অনুরোধ করেছেন। কিছু শিক্ষার্থী গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে। শিক্ষার্থীদের কোনো অসুবিধা থাকলে আমাদের জানাতে পারে। আমরা বিবেচনা করবো। ২ সপ্তাহ সময় পেলেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের অভিযুক্ত সেই শিক্ষিকাসিরাজগঞ্জের রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ শিক্ষার্থীর চুল কেটে দেওয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষিকা ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনকে দুই সপ্তাহ সময় দিয়েছে তদন্ত কিমিটি। আগামী ২১ অক্টোবর দুপুর ১টায় উপস্থিত হয়ে তার বক্তব্য উপস্থাপনের জন্য বলা হয়েছে। গতকাল বুধবার দুপুর ২টায় এ তথ্য নিশ্চিত করেন রবীন্দ্র অধ্যয়ন বিভাগের চেয়ারম্যান ও পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটির প্রধান লায়লা ফেরদৌস হিমেল। তিনি জানান, অভিযুক্ত সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের শিক্ষিকা ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনকে দুই দফায় গত ৩ ও ৭ অক্টোবর তদন্ত কমিটির কাছে এসে তার বক্তব্য উপস্থাপন করতে বলা হয়। কিন্তু তিনি মানসিক ও শারীরিক অসুস্থতার কথা জানিয়ে উপস্থিত না হয়ে ই-মেইলে আরও ১৪ দিনের সময় প্রয়োজন বলে জানান। এই ই-মেইলটি বার বার পাঠিয়ে আরও কিছুদিন সময়ের জন্য আবেদন জানান। প্রথমে তাকে আর বাড়তি সময় দেওয়া হবে না বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কিন্তু বার বার ই-মেইলে সময়ের আবেদন করার পরিপ্রেক্ষিতে তদন্ত কমিটি তাকে তার চাহিদা অনুযায়ী দুই সপ্তাহের সময় দিয়েছে।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীঅক্টোবর - ২৫
ফজর৪:৪৪
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৪৭
মাগরিব৫:২৮
এশা৬:৪১
সূর্যোদয় - ৬:০০সূর্যাস্ত - ০৫:২৩
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫২৪০.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.