নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, রোববার ১৮ অক্টোবর ২০২০, ২ কার্তিক ১৪২৭, ৩০ সফর ১৪৪২
ভেদরগঞ্জে ভিক্ষুককে বসতভিটা থেকে উচ্ছেদের পাঁয়তারা মারধর
শরীয়তপুর প্রতিনিধি
শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার উত্তর চরকুমারিয়া হাওলাদারকান্দি গ্রামে এক ভিক্ষুককে তার বসতভিটা থেকে উচ্ছেদ করার জন্য বেদম মারপিট করেছেন তার প্রভাবশালী প্রতিবেশী আব্দুল জলিল বালী। একই সাথে ওই ভিক্ষুকের বাড়ির সবজি গাছ কেটে সাবাড় করে দিয়েছেন তিনি। এ ঘটনার পর থেকে ওই ভিক্ষুক যাতে চিকিৎসা নিতে না পারে বা থানায় কোন অভিযোগ দাখিল করতে না পারে সে লক্ষ্যে তাকে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে।

শুক্রবার সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, ঘটনার পর ২ দিন পার হলেও প্রভাবশালীদের ভয়ে ঘর থেকে বের হতে পারছেন না ২ সন্তানের জননী ভিক্ষুক সাহিদা বেগম। ভিক্ষুক সাহিদা ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উত্তর চরকুমারিয়া হাওলাদারকান্দি গ্রামের সিরাজুল ইসলাম বালী গত ২বছর আগে ক্যান্সারে মারা যান। এরপর তার স্ত্রী সাহিদা বেগম ২সন্তান নিয়ে ভিক্ষা করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন। তার স্বামীর রেখে যাওয়া বাড়িতে ৬ শতাংশ জমির উপর একটি

খুপড়ি ঘর তুলে সেখানে বসবাস করছে ভিক্ষুক সাহিদা। কিন্তু প্রতিবেশী আব্দুল জলিল বালী ওই বাড়ি থেকে ভিক্ষুককে উচ্ছেদ করার জন্য নানাভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছেন। বুধবার সন্ধ্যায় ভিক্ষুক শাহিদা বেগমের সবজি বাগানের গাছ কেটে ফেলে আব্দুল জলির বালী। এরপর ভিক্ষুক শাহিদা বেগম এর প্রতিবাদ করলে আব্দুল জলিল বালী ক্ষিপ্ত হয়ে তার ঘরে ঢুকে মারধর করেন। এতে তিনি মারাত্মক আহত হয়। প্রভাবশালীদের ভয়ে গত ২ দিনেও চিকিৎসা ও মামলা করতে যেতে সাহস পায়নি। প্রবাশালীদের ভয়ে নিজ ঘরে যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন ভিক্ষুক শাহিদা। আহত ভিক্ষুক শাহিদা বেগমের মা জায়দা বেগম বলেন, আমার মেয়ে তার স্বামী মারা যাওয়ার পর তার অবুঝ সন্তানদের নিয়ে অন্যের বাড়ি থেকে ভিক্ষা করে খায়। স্বামীর রেখে যাওয়া বসতভিটা টুকুতে প্রভাবশালী আব্দুল জলিল বালীর লোভ পড়েছে। ভয়ে চিকিৎসা ও মামলা করতে যেতে পারছি না।

ভিক্ষুক শাহিদা বেগম বলেন, বসতভিটাটুকু নিয়ে যাওয়ার জন্য আব্দুল জলিল বালী বার বার আমাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করে। আব্দুল জলিল বালী বলেন, এটা আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তি। আমরা এর জন্য আদালতে মামলা করেছি। চরকুমারিয়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার নাজমুল ইসলাম খান বলেন, আমরা মারধরের কথা শুনে ছিলাম। বিষয়টি আমরা স্থানীয় ভাবে বসে মীমাংসা করে দিব।

সখিপুর থানার ওসি (তদন্ত) ওবায়দুল হক বলেন, এ ব্যাপারে আমাদের কাছে কেউ আসেনি। তাই বিষয়টি আমাদের জানা নেই। এলাকাবাসী বলতে পারবে। এ ব্যাপারে ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানভীর আল নাসিফ বলেন, আমি ঘটনাটি শুনিনি। সাংবাদিকদের মাধ্যমে জানলাম। তদন্ত করে ব্যবস্থা নিব।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীনভেম্বর - ১
ফজর৪:৪৮
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৪৩
মাগরিব৫:২৩
এশা৬:৩৭
সূর্যোদয় - ৬:০৫সূর্যাস্ত - ০৫:১৮
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৭৫৬৫.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.