নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, রোববার ১৮ অক্টোবর ২০২০, ২ কার্তিক ১৪২৭, ৩০ সফর ১৪৪২
ঠাকুরগাঁওয়ে দুই সন্তানসহ মায়ের লাশ মিলল তিন পাতার চিরকুট
ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি
ঠাকুরগাঁওয়ে পুকুর থেকে দুই সন্তানসহ গৃহবধূর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় এখনও কোনো মামলা হয়নি। এদিকে, নিহত গৃহবধূর বাড়ি থেকে তিন পাতার একটি চিরকুট উদ্ধার করা করেছে পুলিশ। তবে এ ঘটনার অধিকতর তদন্ত করে সঠিক কারণ অনুসন্ধান করা হবে বলেও জানিয়েছে ঠাকুরগাঁও পুলিশ বিভাগ। গতকাল শনিবার দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে জেলা পুলিশ সভাকক্ষে ঠাকুরগাঁওয়ের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামাল হোসেন উক্ত ঘটনার অগ্রগতি নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।

তিনি আরো জানান, দুই পৃষ্ঠার চিঠিতে আরিফা বেগম লিখে গেছেন, আহারে জীবন। সংসারের অভাব, অশান্তি আর ভালো লাগে না। আমি একাই চলে যেতাম, কিন্তু একা গেলে আমার বাচ্চারা মা মা বলে হাহাকার

করবে। এজন্য ওদের নিয়েই চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিলাম। আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী না। আমি নিজেই আত্মহত্যা করিলাম। এটা সত্যি একশবার, একশবার, একশবার।

সংবাদ সম্মেলনে ঠাকুরগাঁও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামাল হোসেন আরো বলেন, চিঠিতে আরিফা তার স্বামী আকবরকে উদ্দেশ্যে করে লিখেছেন, স্বামী, তোমার প্রতি আমার কোনো অভিযোগ নাই। আমার বিয়ের মোহরানা মাফ করে দিলাম। তুমি ভালো থেকো।' শ্বশুরবাড়ির লোকজনকে উদ্দেশ্যে করে আরিফা লিখেছেন, 'আপনাদের সঙ্গে অনেক খারাপ আচরন করছি। এজন্য মাফ চাই।

তিনি আরো বলেন, পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে অভাব-অনটন ও সংসারে অশান্তি ছিল আরিফার। এ কারণে দীর্ঘদিন ধরে হতাশা ও বিষন্নতায় ভুগছিলেন তিনি। তাই মেয়ে ও ছেলেকে বিষাক্ত কোনো কিছু খাইয়ে পরে নিজে আত্মহত্যা করে থাকতে পারেন। তবে পুলিশ নিশ্চিত না। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনের পেলে জানা যাবে।

সংবাদ সম্মেলনে ঠাকুরগাঁওয়ের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামাল হোসেন বলেন, গৃহবধূর হাতের লেখা চিরকুটে পারিবারিক কলহ ও ঋণের বিষয়টি উল্লেখ আছে। এটি পর্যালোচনা করে দেখা হবে। আর ময়নাতদন্তের পর, হত্যা নাকি আত্মহত্যা তা নিশ্চিত হয়েই সিদ্ধান্ত হবে মামলার বিষয়টি।

এতে কামাল হোসেন আরো বলেন, পুকুর থেকে দুই সন্তানসহ গৃহবধূর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে গৃহবধূর স্বামী, শ্বশুর, শাশুড়ি ও দেবরকে আটক করা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তাছাড়া ঘটনার রহস্য উদঘাটনে কাজ করছে পিবিআই, সিআইডিসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চারটি দল। ঘটনার সঠিক কারণ ও রহস্য উৎঘাটন করতে তৎপর রয়েছে পুলিশ বলেও জানান তিনি।

এসময় ঠাকুরগাঁও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোসাদ্দেকুর রহমান, সহকারী পুলিশ সুপার সার্কেল আবু তাহের মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি তানভীরুল ইসলাম, ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি তদন্ত গোলাম মর্তুজা, ওসি অপারেশন নাজমুল হাসান, পীরগঞ্জ থানার ওসি প্রদীপ চক্রবর্তী, রুহিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ চিত্ত রঞ্জন রায়, রাণীশংকৈল থানার ওসি এসএম জাহিদ ইকবাল উপস্থিত ছিলেন । সে সময় পুলিশ বিভাগের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা, ঠাকুরগাঁও জেলার বিভিন্ন থানার অফিসার ইনচার্জ, ওসি তদন্ত, ওসি অপারেশনসহ বিভিন্ন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলে পুকুর থেকে মা ও দুই সন্তানের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) ভোরে উপজেলার ধর্মগড় ভরনিয়া শিয়ালডাঙ্গী গ্রামের বাড়ির পাশের পুকুর থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করেন প্রতিবেশীরা।

নিহতরা হলেন- শিয়ালডাঙ্গী গ্রামের আকবর হোসেনের স্ত্রী আরিদা খাতুন (৩২), তার মেয়ে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী আঁখি (১১) ও ছেলে আরাফাত (৪)।

এদিকে পুকুর থেকে উদ্ধার করা হয় গৃহবধূ আরিদা, তার ৪ বছরের ছেলে আরাফাত ও ১০ বছরের মেয়ে আকলিমার লাশ। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে গৃহবধূর স্বামী, শ্বশুর, শাশুড়ি ও দেবরকে আটক করা হয়েছে। পুলিশ ও প্রতিবেশীরা জানান, ভোর ৬টার দিকে আরিদা ও তার সন্তানদের মরদেহ পুকুরে ভাসতে দেখা যায়। পরে তাদের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশে খবর দেয়া হয়। তাদের মুখে বিষের গন্ধ পাওয়া গেছে বলেও তারা জানান।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীঅক্টোবর - ৩১
ফজর৪:৪৭
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৪৪
মাগরিব৫:২৪
এশা৬:৩৮
সূর্যোদয় - ৬:০৪সূর্যাস্ত - ০৫:১৯
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৭৫১৯.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.