নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, শুক্রবার ৯ নভেম্বর ২০১৮, ২৫ কার্তিক ১৪২৫, ২৯ সফর ১৪৪০
পটিয়া শ্রীমাই ফরেস্ট সড়ক খালে পরিণত
সংস্কার হয়নি ৩৬ বছরেও হাইদগাঁও সড়কে খানাখন্দক
পটিয়া (চট্টগ্রাম) থেকে সেলিম চৌধুরী
চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার কচুয়াই ইউনিয়নের পূর্বাঞ্চল শ্রীমাই ফরেস্ট সড়ক খালে পরিণত হলেও ৩৬ বছরেও উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। এতে করে জনভোগান্তী বাড়ছে। এ যাবতকালে যে কতজন পটিয়া থেকে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন সবাই সড়কটি সংস্কার কাজ করার আশ্বাস দিয়েছে। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি। এতে ঐ এলাকার লোকজন সংস্কার উন্নয়ন কাজ থেকে বঞ্চিত। ফলে ঐ এলাকার লোকজনের মধ্যে চরম ক্ষোভ রয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পটিয়ার পূর্বাঞ্চল পাহাড়ে শ্রীমাই ফরেস্ট অফিস নির্মাণ করেছিলেন ব্রিটিশ সরকার আমলে।

শ্রীমাই পাহাড়ে রয়েছে একটি বিট অফিস। ঐ অফিসে মাঝে মধ্যে ভিলেজার মহিউদ্দিন গিয়ে দেখাশোনা করে আসলেও রাস্তার মাঝখানে খালে পরিণত হওয়ায় মানুষ আর চলাচল করে না। যার ফলে গাড়ি চলাচলও বন্ধ রয়েছে। স্থানীয় একটি সিন্ডিকেট মাটি ব্যবসায়ীরা ড্রেজার ব্যবহার করে রাস্তার মাঝখানে ২শ ফুটের মতো খালে পরিণত হয়ে জমিনে রূপ নিয়েছে। রাস্তাটি আছে কিনা তা বোঝার উপায় নেই। রাতের বেলায় ফরেস্ট অফিসে সন্ত্রাসীদের আনাগোনা বৃদ্ধি পেয়েছে।

এতে সন্ত্রাসীরা নিরাপদ আশ্রয়স্থল হিসেবে রাতের বেলায় শ্রীমাই ফরেস্টকে বেছে নিয়েছে বলে ভিলেজার মহিউদ্দিন জানান। শ্রীমাই ফরেস্ট অফিসে গাড়ি নিয়ে যাওয়া যায় না বলে বনবিভাগের কর্মকর্তারা ঐ অফিস করে না বলে সূত্রে প্রকাশ। যার ফলে পটিয়া পূর্বাঞ্চল পাহাড়ের সরকারি গাছ কর্তন করে এক শ্রেণীর কাঠ পাচারকারীরা জমজমাটভাবে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। গত ১ বছর আগে পটিয়ার এমপি সামশুল হক চৌধুরী নতুন ফরেস্ট অফিসের ভবন নির্মাণ করে দিলেও যোগাযোগের ব্যবস্থা না থাকায় অফিসটি বর্তমানে পরিত্যক্ত রয়েছে।

স্থানীয় সাবেক মেম্বার ইকবাল হোসেন জানান, এলাকার কৃষকরা চলাচলের রাস্তা ভালো না হওয়ায় চরম ভোগান্তী পোহাচ্ছে। তাছাড়া পাহাড়ি সন্ত্রাসীদের কারণে কৃষকরা কাজ করতে গিয়ে আছরের আগে বাড়িতে ফিরে আসতে হয়। এলাকাবাসী রাস্তাটি সংস্কারপূর্বক সন্ত্রাসীদের আনাগোনা বন্ধের জন্য প্রশাসনের উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

এদিকে পটিয়া উপজেলার হাইদগাঁও ইউনিয়নের ৪ ও ৮ নং ওয়ার্ডের গ্রামীণ সংযোগ সড়কে খানাখন্দক সৃষ্টি হয়ে চলাচলে সাধারণ পথযাত্রী ও শিক্ষার্থী চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছে।

দীর্ঘদিন এ সড়ক খানাখন্দক সৃষ্টি হলেও হাইদগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, মেম্বার নীরব ভূমিক পালন করছে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ। পটিয়া আসনের এমপি সামশুল হক চৌধুরী ২ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন করেছে মর্মে প্রচার করলেও প্রকৃতপক্ষে পটিয়া উপজেলায় ১৭টি ইউনিয়নে গ্রামীণ সড়কের অবকাঠামো উন্নয়ন হয়নি।

স্থানীয় যুবক বাহাদুর জানান, দীর্ঘদিন তাদের এলাকার গ্রামীণ এই সড়কটির সংস্কার কাজ না হওয়ায় তারা চরম ভোগান্তীর মধ্যে রয়েছে। তাছাড়া এ রাস্তা দিয়ে কোনো যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকায় এমারজেন্সী কোনো রোগীর সমস্যা হলে তাকে কোলে করে এলাকা পার করতে হয়। সে এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে সড়কটির সংস্কার কাজ করার দ্রুত দাবি জানান।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীনভেম্বর - ১৪
ফজর৪:৫৩
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৩৮
মাগরিব৫:১৭
এশা৬:৩২
সূর্যোদয় - ৬:১১সূর্যাস্ত - ০৫:১২
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
২৬৪৪.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.