নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, রোববার ২২ নভেম্বর ২০২০, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ৬ রবিউস সানি ১৪৪২
আমতলীতে চাঁদা না দেয়ায় সরকারি বন্দোবস্ত জমিতে ঘর নির্মাণ কাজ বন্ধ
আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি
আঠারোগাছিয়া ইউনিয়ন শ্রমিকলীগ সভাপতি মো. নান্নু ডাক্তার ও তার সহযোগীরা দাবিকৃত পঞ্চাশ হাজার টাকা চাঁদা না পেয়ে সরকারি বন্দোবস্ত পাওয়া জমিতে ঘর নির্মাণ বন্ধ করে দিয়েছেন। গতকাল শনিবার আমতলী সাংবাদিক ইউনিয়ন কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে এমন অভিযোগ করেন বন্দোবস্থ পাওয়া জমির মালিক সোহেল রানা, জুয়েল হাওলাদার ও আবু ছালেহ। এতে গত ১০ দিন ধরে ঘর নির্মাণ কাজ বন্ধ রয়েছে। ঘটনা ঘটেছে বরগুনার আমতলী উপজেলার গাজীপুর বন্দরে।

জানা গেছে, ২০২০ সালে উপজেলার গাজীপুর বন্দরের চরপাড়া এলাকায় ১ নং খাস খতিয়ানে ১৫৩৮ নং দাগে ব্যবসার জন্য মোঃ সোহেল রানা, জুয়েল হাওলাদার ও আবু ছালেহকে দেড় শতাংশ জমি বন্দোবস্ত দেয় আমতলী উপজেলা সহকারী কমিশনার ( ভুমি) অফিস। ওই জমিতে ব্যবসার জন্য গত ১১ নভেম্বর তারা ঘর নির্মাণ কাজ শুরু করেন। নির্মাণ কাজ শুরুতেই আঠারোগাছিয়া ইউনিয়ন শ্রমিকলীগ সভাপতি মো. নান্নু ডাক্তার ও তার সহযোগীরা পঞ্চাশ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন। তাদের দাবিকৃত টাকা দিকে অস্বীকার করে সোহেল রানাসহ অন্যরা। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শ্রমিকলীগ নেতা ও তার সহযোগীরা নির্মাণ শ্রমিক মজিবর মুন্সিকে মারধর করে কাজ বন্ধ করে দেয়। নিরুপায় হয়ে সোহেল রানা বরগুনা জেলা প্রশাসক মো. মোস্তাইন বিল্লাহ ও সহকারী পুলিশ সুপার (আমতলী-তালতলী সার্কেল) সৈয়দ রবিউল ইসলামের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। জেলা প্রশাসক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে আমতলী সহকারী কমিশনার (ভূমি) নিশাত তামান্নাকে নির্দেশ দেন। শ্রমিকলীগ সভাপতি ও তার সহযোগীদের কারণে গত ১০ দিন ধরে নির্মাণ কাজ বন্ধ রয়েছে। এদিকে ওই জমির সামনে শ্রমিকলীগ নেতার ভাই পান্নু ডাক্তার ও তার ভাইয়ের ছেলে সোহাগ অস্থায়ী ঘর তুলে জমি দখল করে রেখেছেন।

এ বিষয়ে বন্দোবস্ত পাওয়া জমির মালিক জুয়েল হাওলাদার ও আবু ছালেহ বলেন, বন্দোবস্ত পাওয়ার পরও শ্রমিক লীগ সভাপতি নান্নু ডাক্তার ও তার সহযোগীদের বাঁধার কারণে কাজ করতে পারছি না। তারা জোরপূর্বক কাজ বন্ধ করে দিয়েছে।

সোহেলা রানা বলেন, শ্রমিক লীগ সভাপতি নান্নু ডাক্তার ও তার লোকজন আমার কাছে পঞ্চাশ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। তাদের দাবিকৃত টাকা না দেয়ায় ঘর নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিয়েছে।

আঠারোগাছিয়া ইউনিয়ন শ্রমিক লীগ সভাপতি মো. নান্নু ডাক্তার চাঁদা দাবির কথা অস্বীকার করে বলেন, ওই জমিতে পূর্বে ডাকঘর ছিল। তাই কাজ বন্ধ করে দিয়েছি। তিনি আরো বলেন, আমার ভাই ও ভাইয়ের ছেলে যে ঘর তুলেছে তা প্রয়োজনে ভেঙেু ফেলা হবে।

আমতলী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) অফিসের সার্ভেয়ার মো. ইকবাল হোসেন বলেন, যথা নিয়মে ওই জমি তিন জনকে বন্দোবস্ত দেয়া হয়েছে। তাদের ওই জমিতে ব্যবসার জন্য ঘর নির্মাণের নির্দেশ দেয়া হয়। আঠারোগাছিয়া ইউপি চেয়ারম্যান হারুন-অর-রশিদ বলেন, সরকারি জমি সরকার ডিসিআর দিয়েছে এখানে কোন ব্যক্তির হস্তক্ষেপ থাকার কথা না। নান্নু ডাক্তার কিভাবে কাজ বন্ধ করে দিয়েছে তা আমার বোধগম্য নয়।

গাজীপুর ফাড়ির ইনচার্জ (ওসি) হালদার অর্পিত ঠাকুর বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। আমতলী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নিশাত তামান্না বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীনভেম্বর - ১
ফজর৫:০৪
যোহর১১:৪৮
আসর৩:৩৫
মাগরিব৫:১৪
এশা৬:৩১
সূর্যোদয় - ৬:২৪সূর্যাস্ত - ০৫:০৯
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৭০৩৭.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.