নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯
দুর্নীতির কারণে অর্থনৈতিক ও সামাজিক বৈষম্য বাড়ছে
স্টাফ রিপোর্টার
বর্তমানে দুর্নীতির কারণে অর্থনৈতিক ও সামাজিক বৈষম্য বেড়েই চলেছে। পাশাপাশি আয় ও সম্পদের বৈষম্যও ক্রমশ বাড়ছে বলে মত প্রকাশ করেছেন বিশিষ্ট নাগরিক সমাজ। গতকাল বুধবার দুপুরে রাজধানীর বাংলাদেশ কৃষিবিদ ইন্সটিটিউটে 'বাংলাদেশে এসডিজি বাস্তবায়ন' শীর্ষক নাগরিক সম্মেলন ২০১৭ অনুষ্ঠানে বক্তারা একথা বলেন।

সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) সম্মানীয় ফেলো ড.দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য বলেন, বাংলাদেশের মাটিতে পিছিয়ে পড়াদের দাবিয়ে রাখা যাবে না। দেশের উন্নয়নের মাপকাঠি ঠিক করতে হলে অবশ্যই পিছিয়ে পড়াদের উন্নয়নের চিত্র নির্ধারণ করতে হবে। নয়তো এসডিজি বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে না। প্রবৃদ্ধির সাথে সাথে সামাজিক সুরক্ষা কিভাবে মূল ধারায় ফিরিয়ে আনা যায় সেটা নিয়ে কাজ করতে হবে। অন্যদিকে গত পাঁচ বছরে সম্পদ ও আয়ের বৈষম্য বেড়েই চলেছে। মানবাধিকার কর্মী অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল বলেন, এসডিজির মাধ্যমে প্রতিটি নাগরিকের জীবনের পরিবর্তন আনার সুযোগ এসেছে। আমরা পেছনে পড়ে থাকব না। নিজেদের আত্মশক্তিতে বলীয়ান হয়ে কাজ করতে হবে। তবে এসডিজি বাস্তবায়ন করতে হলে বৈষম্য দূর করতে হবে। নারায়ণগঞ্জের সিটি মেয়র সেলিনা হায়াত আইভী বলেন, সরকার বিধবা ভাতা থেকে শুরু করে বয়স্ক ভাতা চালু করেছেন। এটি অবশ্যই অনন্য নজির স্থাপন করেছে। স্থানীয় সরকারকে প্রাধান্য দিয়ে যদি কাজ করা হয় তাহলে দেশের উন্নয়ন খুব দ্রুত সম্ভব। অন্যদিকে যেখানে সরকারের সঙ্গে সুশীল সমাজ যুক্ত হবে না সেখানে সরকার এগুতে পারবে না। এজন্য সকল ক্ষেত্রে সিভিল সোসাইটিকে যুক্ত করতে হবে। নইলে উন্নত দেশে পরিণত হওয়া সম্ভব নয়। সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন, সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা রাশেদা কে চৌধুরী, সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগ সিপিডি'র চেয়ারম্যান অধ্যাপক রেহমান সোবহান, সম্মানিত ফেলো অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমান,রিসার্চ ফেলো তৌফিকুল ইসলাম খান, ঢাকা চেম্বারের সাবেক সভাপতি আসিফ ইব্রাহীম, ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান প্রমুখ।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত