নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, শুক্রবার ৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ২৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪০
পার্টি অফিসে হঠাৎ এরশাদ
চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে যেতে দেয়া হচ্ছে না
জাতীয় পার্টি এবারো নির্বাচন করবে
স্টাফ রিপোর্টার
নির্বাচনের আগে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ অভিযোগ করেছেন, অসুস্থ হওয়ার পরও তাকে চিকিৎসা করতে এবং বাইরে যেতে দেয়া হচ্ছে না। কার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তা স্পষ্ট না করেই সাবেক এই রাষ্ট্রনায়ক বলেছেন, তাকে 'দমিয়ে রাখা' যাবে না।

নেতাকর্মীদের অভয় দিয়ে এরশাদ বলেন, তোমাদের কোনো ভয় নেই। জাতীয় পার্টি তোমাদের মাঝে বেঁচে থাকবে। জাতীয় পার্টি চিরদিন নির্বাচন করেছে, এবারও করবে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে অনেকটা হঠাৎ করেই বনানীতে নিজের রাজনৈতিক কার্যালয়ের সামনে এসে গাড়ি থেকে না নেমে নেতাকর্মীদের সামনে কয়েক মিনিট কথা বলেন জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান। এ সময় তিনি বলেন, আজ বলতে এসেছি, আমাকে কেউ দমিয়ে রাখতে পারবে না, এগিয়ে যাবো। আমার বয়স হয়েছে, চিকিৎসা করতে দেবে না, বাইরে যেতে দেবে না। মৃত্যুকে ভয় করি না।

জাতীয় পার্টির জোটসঙ্গী আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের গত মাসের শেষে সাংবাদিকদের বলেন, এরশাদের অসুস্থতা 'রাজনৈতিক' নয়, তিনি 'সত্যিই' অসুস্থ। তাকে দু'এক দিনের মধ্যে সিঙ্গাপুরে নেয়া হতে পারে। কিন্তু জাতীয় পার্টি তখনকার মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার তখন সাংবাদিকদের কাছে বিষয়টি উপস্থাপন করেন ভিন্নভাবে। তিনি বলেন, এরশাদের অসুস্থতা 'এমন কিছু নয়'। তিনি নির্বাচনে অংশ নেবেন। এর মধ্যে জাতীয় পার্টি মনোনয়নপত্র বিতরণের শেষে বেশ কয়েকজন নেতা 'মোটা টাকায়' মনোনয়নপত্র বিক্রির অভিযোগ তোলেন এরশাদ ও হাওলাদারের বিরুদ্ধে। হাওলাদার সে সময় তা অস্বীকার করেন। ঋণ খেলাপের অভিযোগে পটুয়াখালী-১ আসনে হাওলাদারের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে গেলে গত সোমবার অনেকটা আকস্মিকভাবে জাতীয় পার্টির মহাসচিব পদে পরিবর্তনের ঘোষণা আসে। এরশাদের 'সন্তানতুল্য' হওলাদারকে সরিয়ে মহাসচিব করা হয় মসিউর রহমান রাঙ্গাকে। মঙ্গলবার সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে নতুন মহাসচিব রাঙ্গা বলেন, রক্তে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা কমে যাওয়ার পর শারীরিক অবস্থা নিয়ে এরশাদ 'ভয়ে থাকেন'। এ কারণে তাকে হাসপাতালে যেতে হয়। ঘুমের ডিস্টার্ব হলেও তিনি সিএমএইচে যান। বাসায় একা থাকেন বলে তার একলা লাগে, ভয় করে। তাছাড়া ইনফেকশনের ভয়ও আছে। নতুন মহাসচিব দাবি করেন, এরশাদ এখন 'হান্ড্রেড পারসেন্ট ফিট' থাকলেও চিকিৎসার জন্য তার দেশের বাইরে যাওয়া জরুরি। কিন্তু পার্টি চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব শেষ না করে তিনি দেশের বাইরে যেতে চান না। মহাজোটের আসন ভাগাভাগির বিষয়টি চূড়ান্ত হলে ১০ ডিসেম্বরের পর হয়তো এরশাদ বিদেশে যেতে পারেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার বনানীর কার্যালয়ের সামনে এসে নতুন মহাসচিবকে নিয়েও কথা বলেন এরশাদ। তিনি বলেন, পুরনো মহাসচিবকে ভালোবাসতাম। নতুন মহাসচিবকে তোমরা ভালোবেসো। সে নতুন, তাকে সাহায্য করো।

৮৮ বছর বয়সী এরশাদ বলেন, বেঁচে আছি, বেঁচে থাকবো। ২৭ বছর ধরে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরেছি, পার্টি ছাড়িনি। সব নির্ভর করে তোমাদের ওপর। কেউ পার্টি ছেড়ে যেও না, আমাকে প্রতিশ্রুতি দাও পার্টি অফিসের সামনে এই ঝটিকা সফর শেষে বিদায় নেয়ার সময় এরশাদ তার কর্মীদের বলেন, আমার বস্নাড শর্টেজ আছে, একটু বাসায় যাচ্ছি। এভাবে কয়েক মিনিট গাড়িতে বসে বক্তব্য দিয়েই এরশাদ চলে যান। এ সময় কার্যালয়ের সামনে কর্মীরা সস্নোগান ধরেন-'এরশাদের কিছু হলে জ্বলবে আগুন ঘরে ঘরে'। 'অ্যাকশন অ্যাকশন, ডাইরেক্ট অ্যাকশন'। 'আওয়ামী লীগের দালালরা হুঁশিয়ার সাবধান'।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীনভেম্বর - ১৭
ফজর৫:১৩
যোহর১১:৫৫
আসর৩:৩৯
মাগরিব৫:১৮
এশা৬:৩৬
সূর্যোদয় - ৬:৩৪সূর্যাস্ত - ০৫:১৩
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
২১১৬.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। উপদেষ্টা সম্পাদক : মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata@dhaka.net
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.