নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ২১ মাঘ ১৪২৭, ২১ জমাদিউস সানি ১৪৪২
মায়ানমারের অর্থনীতিকে ডুবিয়েছে সামরিক বাহিনী
অর্থনীতি ডেস্ক
ময়ানমারের অর্থনীতিকে প্রায় ডুবিয়ে ফেলেছে দেশটির সামরিক বাহিনী। এরই মধ্যে কোটি কোটি ডলারের বিদেশি বিনিয়োগকে ঝুঁকিতে ফেলেছে সামরিক জান্তা সরকার। গত মঙ্গলবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে রেখে মার্কিন সরকার বেশ আগেই হুমকি দিয়ে রেখেছে যে কোনো সময় মায়ানমারের সঙ্গে বাণিজ্য চলমান রাখতে বাড়তি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হতে পারে। তবে, এটাও ঠিক যে যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়লে মায়ানমারের অর্থনীতির তেমন বড় ক্ষতি হবে না। কারণ, দেশটির যত বিনিয়োগ আসে এশিয়ার দেশগুলো থেকে সে তুলনায় অনেক কম বিনিয়োগ আসছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে। বিশ্বব্যাংকের তথ্যে দেখা যায়, গতবছর মায়ানমারে সবচেয়ে বড় বিনিয়োগকারী দেশ ছিল সিঙ্গাপুর। এ সময়ে দেশটিতে যত বিনিয়োগের অনুমতি দেয়া হয়েছে সিঙ্গাপুর একাই করেছে এর ৩৪ শতাংশ। আর ২৬ ভাগ নিয়ে মায়ানমারে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে হংকং।

এদিকে, গত সেপ্টেম্বর শেষ হওয়া অর্থবছরে মায়ানমারের অর্থনীতি সাড়ে ৫ বিলিয়ন ডলারের বিনিয়োগ হারিয়েছে। যে বিনিয়োগ দেশটিতে আসার কথা ছিল। আসি আসি করেও না আসা বিনিয়োগের মধ্যে ২০ ভাগই আসত দেশটির উৎপাদন ও আবাসন খাতে। তবে, করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিপর্যস্ত বিশ্ব পরিস্থিতিতে খুব ভালো বিনিয়োগ বা ব্যবসা কেউ আশাই করেনি। মায়ানমার সরকারের ট্যারিফ কমিশনের পরামর্শক প্রতিষ্ঠান ভ্রিইন্স অ্যান্ড পার্টনারস বর্তমানে দেশটিতে ৩ থেকে ৪ বিলিয়ন ডলারের সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগ নিয়ে কাজ করছে। আশা করা হচ্ছে, এই বিনিয়োগের সিংহভাগই আসবে জ্বালানি, অবকাঠামো নির্মাণ ও টেলিযোগাযোগ খাতে। তবে, এসবই এখন ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে বলে জানিয়েছেন ওই পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা অংশীদার হ্যান্স ভ্রিইন্স।

যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা সরাসরি মায়ানমারে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে খুব বড় বাধা হিসাবে আমলে নেয়া না হলেও ধরা হচ্ছে তা ভিনদেশি বিনিয়োগকে বেশ সাড়া জাগানোর মতো প্রভাবিত করবে। যেমন, জাপানসহ পশ্চিমা দেশগুলো মায়ানমারে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে সবকিছু ঠিকঠাক করার পরও অন্তত দুইবার ভাববে। তবে, মার্কিন সরকার মুখ ফিরিয়ে নিলেও চীনকে কাছে পাবে আশা করছেন ভ্রিইন্স।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীঅক্টোবর - ২৫
ফজর৪:৪৪
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৪৭
মাগরিব৫:২৮
এশা৬:৪১
সূর্যোদয় - ৬:০০সূর্যাস্ত - ০৫:২৩
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
২১৩৫৭.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.