নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, মঙ্গলবার ৪ মে ২০২১, ২১ বৈশাখ ১৪২৮, ২১ রমজান ১৪৪২
ঢাকার বাতাসে সর্বোচ্চ মাত্রার মিথেনের উপস্থিতি
স্টাফ রিপোর্টার
কার্বন ডাই অক্সাইডের চেয়েও ৮৪ গুণ বেশি ক্ষতিকর গ্যাস মিথেন। এর অতিমাত্রার উপস্থিতি মিলেছেন রাজধানীর বাতাসে। আর এ দাবি করছে গ্রিনহাউস ইফেক্ট নিয়ে কাজ করা কিছু বিদেশি পর্যবেক্ষক প্রতিষ্ঠানের।

গ্রিনহাউস গ্যাস নিঃসরণ পর্যবেক্ষক জিএইচজি স্যাট ও বস্নু-ফিল্ডের হিসাবে, সবচেয়ে ঝুঁকিতে থাকা ১২টি জায়গার একটি ঢাকা। আর এ গ্যাস নিঃসরণ হচ্ছে মাতুয়াইলের বর্জ্যের ভাগাড় থেকে। প্যারিসভিত্তিক প্রতিষ্ঠান কাইরোস সাস, চলতি বছর মিথেন নিঃসরণের উৎপত্তিস্থল হিসেবে চিহ্নিত করেছে মাতুয়াইলের বজ্যের ভাগাড়কে। তাদের দাবি, ১৮১ একরের এই জায়গাটিতে দিনে আড়াই হাজার টনের মতো আবর্জনা ফেলা হয়। ওই গবেষণার পর সমপ্রতি প্রভাবশালী মার্কিন সংবাদমাধ্যম বস্নুমবার্গের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, মন্ট্রিয়লভিত্তিক প্রতিষ্ঠান জিএইচজিস্যাটের গত ১৭ এপ্রিলের হুগো স্যাটেলাইটে দেখা গেছে, বাংলাদেশের মাতুয়াইল স্যানিটারি ল্যান্ডফিল থেকে বিপুল পরিমাণ মিথেন নিঃসরণ হচ্ছে। এর পরিমাণ হতে পারে ঘণ্টায় প্রায় চার হাজার কেজি। প্রতি ঘণ্টায় এক লাখ ৯০ হাজার গাড়ি যে পরিমাণ বায়ুদূষণ ঘটায়, তার সমান দূষণ ছড়াচ্ছে মাতুয়াইলের বিশাল এই ময়লার ভাগাড় থেকে। এ প্রতিবেদন বিবেচনায় নিয়ে ২৪ এপ্রিল ১০ সদস্যর কমিটি গঠন করেছে পরিবেশ অধিদফতর। ওই কমিটিকে এক মাসের মধ্যে সুপারিশসহ প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। পরিবেশ অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. মনিরুজ্জামান বলছেন, মিথেনের উপস্থিতি থাকা অস্বাভাবিক নয়। তাদের দেয়া পরিকল্পনা অনুমোদন করা হলে, এ সংকট থাকবে না। তবে ঘণ্টায় ৪ হাজার কেজি মিথেন নিঃসরণের যে দাবি জিএইচজি স্যাট করেছে, তার সঙ্গে একমত নন দেশের পরিবেশবিদেরা।

মিথেনের উচ্চ নিঃসরণ মানবদেহ ও প্রকৃতি-জীব বৈচিত্র্যে দীর্ঘমেয়াদে প্রভাব ফেলবে জানিয়ে নিঃসরণের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ার পরামর্শও দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের পত্রিকা
আজকের নামাজের সময়সূচীমে - ১৫
ফজর৩:৫২
যোহর১১:৫৫
আসর৪:৩৩
মাগরিব৬:৩৬
এশা৭:৫৬
সূর্যোদয় - ৫:১৬সূর্যাস্ত - ০৬:৩১
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৭৬১.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.