নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০২১, ৫ শ্রাবণ ১৪২৮, ৯ জিলহজ ১৪৪২
প্রধানমন্ত্রীর দেয়া মর্যাদার প্রতিদান দেব _ড. শামসুল আলম
স্টাফ রিপোর্টার
সদ্য পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পাওয়া ড. শামসুল আলম বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী আমাকে তার উপদেষ্টা হওয়ার জন্য বলেছিলেন। কিন্তু আমি পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে থাকতে চেয়েছি। এজন্য আমাকে এই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী আমাকে যে মর্যাদা দিয়েছেন, আমি সেই মর্যাদার প্রতিদান দেবো। গতকাল সোমবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে নতুন প্রতিমন্ত্রীকে সংবর্ধনা জানানো হয়। এ অনুষ্ঠানে ড. শামসুল আলম এসব কথা বলেন।

ড. শামসুল আলম বলেন, আমি গত ১২ বছর পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগে (জিইডি) স্বচ্ছতার সাথে কাজ করেছি। আমার দীর্ঘ কর্মজীবনের এই স্বচ্ছতা অক্ষুণ্ন রেখেই কাজ করব। তিনি বলেন, ১৯৭৩-৭৪ সালে আমি ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলাম। যখন শিক্ষকতা শুরু করি তখন মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি ও আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে ছিলাম। জিইডির সদস্য থাকার সময় অনেক পরিকল্পনা করেছি। পরিকল্পনা নিয়ে সাধারণত সমালোচনা হয়। তবে আমার পরিকল্পনাগুলো সর্বজন গৃহীত ছিল। আমি যখন প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করি। তখন এটা সব মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে প্রচার পেয়েছে। এ জন্য গণমাধ্যমকর্মীদের ধন্যবাদ জানাই। ড. শামসুল আলম বলেন, ১৯৭৩-৭৪ সালে ছাত্রলীগে ও পরে যখন শিক্ষকতা শুরু করি তখন আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলাম।

এর আগে গত রোববার সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ড. শামসুল আলমকে প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথবাক্য পাঠ করান।

উল্লেখ্য, ড. শামসুল আলম দীর্ঘ ১২ বছর ধরে জিইডিতে চুক্তিভিত্তিক দায়িত্ব পালন করেছেন। গত ৩০ জুন তার মেয়াদ শেষ হয়। পেশাগত জীবনে তিনি বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩৫ বছর অধ্যাপনার পর প্রেষণে ছুটিতে যান। ২০০৯ সালের ১ জুলাই পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য হিসেবে যোগ দেন।

জিইডিতে তিনি যেসব পরিকল্পনা তৈরি করেন : পরিকল্পনা কমিশনে তার প্রাপ্ত প্রথম দায়িত্বের মধ্যে ছিল দ্বিতীয় দারিদ্র্যবিমোচন কৌশলপত্র (২০০৯-১১), সরকারের নির্বাচনী ইশতেহারের আলোকে সংশোধন পুনর্বিন্যাস করা। সংশোধিত সেই দলিল 'দিন বদলের পদক্ষেপ' জাতীয় অর্থনৈতিক কাউন্সিল কর্তৃক অনুমোদিত হয়ে ২০১০-১১ পর্যন্ত বাস্তবায়িত হয়। রূপকল্প ২০২১ এর আলোকে প্রণীত বাংলাদেশের প্রথম দীর্ঘমেয়াদী প্রেক্ষিত পরিকল্পনা (২০১০-২০২১), ষষ্ঠ পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা (২০১১-২০১৫), সপ্তম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা ও অষ্টম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা এবং আগামী ১০০ বছরের ব-দ্বীপ পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয় ড. আলমের নেতৃত্বে। ড. শামসুল আলম ১৯৫১ সালের ১ জানুয়ারি চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর উপজেলার সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।

এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
এই পাতার আরো খবর -
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের নামাজের সময়সূচীজুলাই - ২৭
ফজর৪:০২
যোহর১২:০৫
আসর৪:৪৪
মাগরিব৬:৪৭
এশা৮:০৮
সূর্যোদয় - ৫:২৫সূর্যাস্ত - ০৬:৪২
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
২০২১৪.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.