নিবন্ধিত হোন |
ইউজার সাইনইন
ই-মেইলঃ
পাসওয়ার্ডঃ
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
ই-মেইলঃ 
বন্ধ করুন (X)
ঢাকা, মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০২১, ৫ শ্রাবণ ১৪২৮, ৯ জিলহজ ১৪৪২
প্রাকৃতিক দুর্যোগ বাড়ছে, বাড়বে
জনতা ডেস্ক
কয়েক মাস ধরে একের পর এক প্রাকৃতিক দুর্যোগ দেখছে বিশ্ব। সমপ্রতি যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডায় বয়ে গেল ভয়ঙ্কর তাপপ্রবাহ। জার্মানি, বেলজিয়ামসহ ইউরোপের একাধিক দেশে আঘাত হেনেছে বন্যা। আর ভারতে চলছে একের পর এক মেঘফাটা বৃষ্টিপাত, ভূমিধস। সব মিলিয়ে ভয়ঙ্কর এক পরিস্থিতির মুখোমুখি গোটা বিশ্ব। বিজ্ঞানীরা বলছেন, আগামীতে এই ধরনের সংকট আরো বাড়বে।

আবহাওয়াবিদ অ্যান্ড্রিয়াস ফিঙ্ক জার্মান সংবাদমাধ্যম ডয়েচে ভেলেকে বলেন, আগামী দিনে বৃষ্টির প্রকোপ আরো বৃদ্ধি পাবে। তখন বৃষ্টিপাতের পরিমাণ যেমন বাড়বে, তেমনই অল্পসময়ে অধিক বৃষ্টির প্রবণতাও বাড়বে। ফিঙ্কের সঙ্গে একমত জুরিখের বিজ্ঞানী সেবাস্টিয়ান সিপল। তিনি জানান, তাপমাত্রা এক ডিগ্রি বাড়লে বাতাসে সাত শতাংশ অতিরিক্ত জলীয় বাষ্প জমে। ওই জলীয় বাষ্প থেকেই পরে বৃষ্টি হয়। ফলে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ কেন বাড়ছে, তা সহজেই অনুমেয়-বৈশ্বিক উষ্ণায়ন। একটি বিষয়ে প্রায় সকল বিজ্ঞানীই একমত- বৈশ্বিক উষ্ণায়ন এভাবে ত্বরান্বিত হয়েছে মানুষের জন্যই। এর ফলে প্রাকৃতিক ভারসাম্য নষ্ট হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার ওপর দিয়ে যে তাপপ্রবাহ বয়ে গেল, তার কারণও উষ্ণায়ন। মেরু অঞ্চলের ওপর যে বাতাস তৈরি হয়, তা এতদিন তাপপ্রবাহ থেকে যুক্তরাষ্ট্র-কানাডাকে বাঁচিয়েছে। কিন্তু ক্রমশ সেই বাতাসের দাপট কমছে বলে তাপপ্রবাহ ঘটছে। এর কারণে স্বাভাবিক তাপমাত্রাও কয়েকগুণ বাড়ছে, যা থেকে প্রবল বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা তৈরি হচ্ছে। একের পর এক ঘূর্ণিঝড় আছড়ে পড়ছে।

বিজ্ঞানীদের মতে, প্রাকৃতিক দুর্যোগ বৃদ্ধির পেছনে বৈষ্ণিক উষ্ণায়নের পাশাপাশি চাঁদের কক্ষপথেরও একটি বড় অবদান রয়েছে। প্রতি ১৮ দশমিক ৬ বছর পরপর চাঁদের কক্ষপথে কিছুটা পরিবর্তন আসে। এর প্রভাবে জোয়ার-ভাটায়ও পরিবর্তন আসছে বলে মনে করা হচ্ছে। জোয়ারের পানি আগের চেয়ে বেশি ফুলেফেঁপে উঠছে। বিজ্ঞানীরা বলছেন, আগামী কয়েক বছরে পানির স্তর আরো উপরে চলে আসতে পারে, যার ফলে বন্যার আশঙ্কাও বাড়বে।
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আনার মতামত দিন।
মতামত দিতে চাইলে অনুগ্রহ করে করুন।
আপনার কোন একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
সর্বাধিক পঠিত
ফটো গ্যালারি
আজকের নামাজের সময়সূচীঅক্টোবর - ২৪
ফজর৪:৪৩
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৪৮
মাগরিব৫:২৯
এশা৬:৪২
সূর্যোদয় - ৫:৫৯সূর্যাস্ত - ০৫:২৪
পুরোন সংখ্যা
বছর : মাস :
আজকের পাঠকসংখ্যা
২৬৪৯৭.০
সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতিঃ সৈয়দ এম. আলতাফ হোসাইন। সম্পাদক : আহ্সান উল্লাহ্। প্রকাশক ছৈয়দ আন্ওয়ার কর্তৃক রোমাক্স লিমিটেড, তেজগাঁও শিল্প এলাকা থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : খলিল ম্যানশন (৩য়, ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলা), ১৪৯/এ, ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত। ফোন : ৯৩৫৭৭৩০ (বার্তা), ৮৩১৫৬৪৯ (বাণিজ্যিক), ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪.
ই-মেইলঃ djanata123@gmail.com, bishu.janata@gmail.com
ফোনঃ ০২৮৩১৫১১৫, ০২৮৩১৫৬৪৯ ফ্যাক্সঃ ৮৮-০২-৮৩১৪১৭৪
Copyright The Dainik Janata © 2010 Developed By : orangebd.com.